Score

ক্রিকেটারদের উত্সর্জন প্রসঙ্গে তামিমের বক্তব্য

ইনজুরিতে এশিয়া কাপ শেষ হয়েছে তামিম ইকবালের। মাত্র এক ম্যাচে খেলেই আজ (১৮ সেপ্টেম্বর) দেশে ফিরেছেন তামিম। এমিরেটস এয়ারলাইনসযোগে মঙ্গলবার বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানন্দরে অবতরণ করে তামিমকে বহনকারী বিমানটি। দেশে ফিরে সাকিব-মুশফিকের ইনজুরি প্রসঙ্গে কথা বলেন এই বামহাতি ব্যাটসম্যান। 

 

তামিমের সাহসী সিদ্ধান্তে অবাক ম্যাথুজও

Also Read - দেশে ফিরেছেন তামিম ইকবাল

 

এশিয়া কাপে ইনজুরি নিয়েই খেলতে গিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। হাতের অস্ত্রপচার করানোর কথা থাকলেও দলের প্রয়োজনে এশিয়া কাপের পরেই অস্ত্রপচার করানোর সিদ্ধান্ত নেন। তবে এই ইনজুরি সঙ্গী করেই উইন্ডিজে খেলেছিলেন সাকিব। করেছিলেন দুর্দান্ত পারফর্ম। তিনটি একদিনের ম্যাচে দুই অর্ধশতসহ করেন ১৯০ রান (৯৭,৫৬,৩৭)।

অন্যদিকে এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচের পূর্বেই ইনজুরিতে পড়েন দলের আরেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। সেই ইনজুরি নিয়েই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে ১৫০ বলে ১১ চার আর ৪ ছক্কায় ১৪৪ রান করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ইনজুরি নিয়ে দেশে ফেরা তামিমের বিশ্বাস মুশফিক পরের ম্যাচেও ভালো করবেন। তিনি আজ বলেন, “ইনজুরি নিয়ে তো ১৪৪ করছে। আশাকরি, ইনজুরি নিয়ে আর একটা সেঞ্চুরি করবে। “

পাশাপাশি দলের দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের ইনজুরি প্রসঙ্গে তামিম আরও যোগ করেন, “সাকিবের অনেকদিন থেকে হাতে সমস্যা আমরা জানি। এই হাত নিয়েই কিন্তু ও অনেক ভালো করে উইন্ডিজে। সবারই কম-বেশি ব্যথা থাকে। একজন খেলোয়াড় যখন মাঠে নামে তখন সবকিছু চিন্তা করে, সবকিছু ত্যাগ করেই মাঠে নামে। আমি জানি, মুশফিক কিংবা সাকিবের ইনজুরিটা কি! ওরা যা করতেছে, এটাতে বুঝা যায় ওরা দেশের জন্য কতোটা ত্যাগী, ওদের দায়িত্ববোধ কতো”

 

‘ডানহাতে হৃদয় জিতেছো’, তামিমকে মাশরাফি

উল্লেখ্য, হাতে চোট নিয়েই ইউনিমনি এশিয়া কাপ ২০১৮ আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন তামিম ইকবাল।তবে এতে বেড়েছে আরও বিপত্তি। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই হাতে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন তামিম।

ব্যথার পরিমাণ বেশি থাকায় চোটের ধরন জানতে এরপর স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। স্ক্যানে তামিমের বাঁহাতের কব্জিতে চিড় ধরা পড়ে। এরপর হাসপাতাল থেকে মাঠে ফিরে দলের বিপদে ৪৭তম ওভারের শেষ বলে এক হাতে ব্যাট নিয়ে উইকেটে নেমে পড়েন তামিম। মুশফিকের সাথে শেষ উইকেট জুটিতে মহাগুরুত্বপূর্ণ ৩২ রান যোগ করেন।

তবে ইনজুরির কারণে চলতি এশিয়া কাপে তামিমের আর খেলা হচ্ছে না, এটা আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। এরপরেও দুইদিন সময় নিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর মাঝে দুবাইয়ে আরেকজন বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হয়েছিলেন তামিম। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, অস্ত্রপচার না করা হলেও কমপক্ষে চার সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে দেশসেরা এই ওপেনারকে। যার ফলে মিস হয়ে যেতে জিম্বাবুয়ে সিরিজ।!

[আরও পড়ুনঃ ‘গত চার দিনে ২৫টি ব্যথানাশক ট্যাবলেট খেয়েছি’]

 

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি