Scores

সাকিব-রাজ্জাকদের ভবিষ্যৎ ভেবেই অবসর নেন রফিক

বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা প্রতিভা বলে গণ্য করা হয় মোহাম্মদ রফিককে। তিনি তার মাঠের পারফর্মেই সেটা প্রমাণ করেছেন। তৎকালীন বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেটা এই ক্রিকেটারকে অবসর নেয়ার জন্য নির্বাচক প্যানেল থেকে চাপ দেয়া হতো বলে জানান তিনি। বিডিক্রিকটাইমের  সাথে আলাপচারিতায় অবসর নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন রফিক।

নবীর যে কীর্তি রফিকও গড়েছিলেন
মোহাম্মদ রফিক। ফাইল ছবি

১৯৯৫ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেকের মধ্য নিয়ে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে চাপান রফিক। ২০০০ সালে তার টেস্ট অভিষেক হয়। টেস্ট ক্যারিয়ারটা খুব দীর্ঘ হয়নি। খেলেছেন ৭ বছর। প্রথম বাংলাদেশি বোলার হিসাবে টেস্ট ক্রিকেটে ১০০ উইকেট শিকারের রেকর্ড তার দখলে। ওয়ানডে খেলেছেন প্রায় এক যুগ। বোলিংটা মূল কাজ হলেও ব্যাটিংয়েও চমক দেখাতেন তিনি।

তৎকালীন বাংলাদেশ দলের পারফর্মার এই অলরাউন্ডারকে অবসর নেওয়ার জন্য চাপ দেয়া হতো বলে তিনি জানান। তার আরও খেলার ইচ্ছা থাকলেও এক পর্যায়ে সব ভেবে অবসর নেন।

Also Read - এবছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চায় না অস্ট্রেলিয়া!


বিডিক্রিকটাইমকে রফিক বলেন, ‘আমার বিদায়টা ভালোভাবে হয়নি। নির্বাচকরা আমাকে বলতো অবসর নিতে। অনুশীলনে গেলে বলতো তুমি অবসর নাও। তোমার জন্য আমরা দল ঠিক করতে পারছি না। আমি বলতাম দেখো, আমি তো পারফর্ম করেই দলে আছি। তারপরেও খুব বিরক্ত করতো। তখন আমি চিন্তা করলাম যে মানুষের কথা না শুনে আমি নিজেই অবসর নিয়ে নিই। তখনই অবসর নিয়ে নিলাম।’

তাকে এভাবে অবসর নিতে বলার কারণ ছিল তরুণ ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান, আব্দুর রাজ্জাকরা ডাগআউটে বসে থাকতেন রফিককে জায়গা দিতে। কিন্তু নির্বাচকরা চাচ্ছিলেন তরুণদের খেলাতে। রফিকও ভেবে দেখেছিলেন তরুণদের বেশি সময় দিলে তারা ভালো কিছু করতে পারবে। তাই নিজের আরও খেলার ইচ্ছা বিসর্জন দেন।

রফিকের ভাষায়, ‘আসলে বিরোধ কিছু না। দেখা যায় আমার জায়গায় আমার সাকিব ভালো খেলছে, আব্দুর রাজ্জাক বসে থাকছে কিংবা কখনো সাকিব বসে থাকছে আর আমি নিয়মিত খেলছি। ওই জায়গাটা চিন্তা করে দেখলাম, সাকিব কিংবা আব্দুর রাজ্জাক যদি আমার থেকে দুই বছর বেশি খেলতে পারে ওই চিন্তাটা করেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিলাম। ওরা কিন্তু দীর্ঘ সময় খেলছে। আমি যদি খেলতাম দেখা যেত এখান থেকে যেকোন একজন বাদ পড়ত।’

বাংলাদেশের পক্ষে ৩৩টা টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন রফিক। যেখানে তার শিকার ১০০টা উইকেট এবং সংগ্রহ ১০৫৯ রান। ওয়ানডে খেলেছেন ১২৫টা; শিকার করেছেন ১২৫ উইকেট ও ব্যাট হাতে করেছেন ১১৯১ রান।

মোহাম্মদ রফিকের সাক্ষাৎকারটি দেখুন এখানে-

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

রাজ্জাককে নির্বাচক প্যানেলে যুক্ত হওয়ার প্রস্তাব

কাগজ-কলমের হিসেবে বিশ্বাসী নন রাজ্জাক

সাদাকালো জার্সিতে তাসকিন-রাজ্জাকদের চাওয়া

শিরোপা ধরে রাখল দক্ষিণাঞ্চল

শফিউল-রাজ্জাকের অগ্নিঝরা বোলিংয়ে এগিয়ে দক্ষিণাঞ্চল