Scores

সাব্বিরকে আবেগ নিয়ন্ত্রণের পরামর্শ মাশরাফির

কয়েকদিন আগেও তিনি নিষিদ্ধ ছিলেন, এবার দলে সুযোগ পেয়েই বাজিমাত। প্রথম দুই ম্যাচে দিয়েছিলেন বড় ইনিংসের ইঙ্গিত। অবশেষে সাব্বির রহমানের ব্যাটে বড় ইনিংসের দেখা মিলল তৃতীয় ওয়ানডেতেই।

সাব্বিরের উদযাপন দেখে নাখোশ মাশরাফি

ম্যাচে দল যথারীতি পরাজিত হলেও সাব্বিরের শতরানের ইনিংস কুড়িয়েছে প্রশংসা। তবে বিতর্ক যেন সহসাই সাব্বিরের পিছু ছাড়ছে না। আর তাই এমন দারুণ ইনিংস খেলার পরও সমালোচিত সাব্বির। এবার সমালোচনার বিষয় তার উদযাপন!

Also Read - প্রথম শতক বাবা-মাকে উৎসর্গ করলেন সাব্বির

১০৬ বলে শতক সম্পন্ন করার পর সাব্বির উদযাপনের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিলেন হাতকেই। এক হাতে ব্যাট, আরেক হাত তো ফাঁকাই। প্রথমে শূন্যে লাফ, এরপর উইকেটে চুমু। অতঃপর ফাঁকা হাতটি যেন জোড়া ঠোঁট হয়ে কথা বলল। এমন ভঙ্গির স্পষ্ট বার্তা ছিল এই- অনেক সমালোচনা হয়েছে, এবার আমিও বললাম কথা!

সাব্বিরের ব্যাট কথা বলেছে বটে। কিন্তু একাধিকবার বিতর্কিত কাজ করে শাস্তি ভোগ করে মাঠে ফিরেই এমন উদযাপন কতটা যুক্তিসঙ্গত? প্রশ্ন সেখানেই। সেই প্রশ্নের জেরেই হয়ত অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা সাব্বিরের উদযাপন নিয়ে প্রকাশ করলেন বিরক্তি।

ম্যাচ শেষে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে মাশরাফি বলেন,
‘ড্রেসিংরুমে ফেরার পর ওর সঙ্গে কথা হয়েছে। ওকে জিজ্ঞেস করায় ও বলেছে- আমি বলতে চেষ্টা করেছি, আমার ব্যাট অনেক দিন পর কথা বলেছে।’

মাশরাফি মনে করেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রথম শতক হাঁকিয়ে একটু আবেগিই ছিলেন সাব্বির। এই আবেগ নিয়ন্ত্রণের আহবান জানিয়ে অধিনায়কের ভাষ্য, ‘ভবিষ্যতে ওকে আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে শিখতে হবে। জীবনের প্রথম (আন্তর্জাতিক) সেঞ্চুরি, এ কারণে ও খুব রোমাঞ্চিত ছিল। আর ও যা কিছুর মধ্য দিয়ে এসেছে, সেটাও মনে রাখতে হবে।’

সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে সাব্বিরের এই পারফরম্যান্স অব্যাহত রাখার প্রত্যাশা করেন মাশরাফি, ‘আমি আশা করি, ও যা করেছে, তা এই সিরিজেই থেমে থাকবে না। সামনে আমাদের অনেক খেলা। ও এমন আরও অনেক পারফরম্যান্স করবে।’

Related Articles

নিউজিল্যান্ডকে নিরাপদ ভাববে বাংলাদেশ, বিশ্বাস দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রীর

“দল কিসের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন”

“স্বপ্নে দেখেছি, বাইকে করে ওরা গুলি করছে’

বাতিল হওয়া টেস্ট ভবিষ্যতে আয়োজনের পরিকল্পনা

“অনেকেই ভয়ে নামাজের টুপি খুলে ফেলে”