Scores

সাব্বিরের বীরত্বে শাইনপুকুরের প্রথম জয়

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে সাব্বির হোসেনের অলরাউন্ডিং নৈপুণ্যে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। ব্যাটে-বলে দলকে অনেকটা একাই জিতিয়েছেন সাব্বির হোসেন।

সাব্বিরের বীরত্বে শাইনপুকুরের প্রথম জয়

উত্তরা স্পোর্টং ক্লাবের শুরুটা হয়েছিল ভালোই। দলকে ৩৫ রানের ভিত গড়ে দেন তানজীদ হাসান আর আনিসুল ইসলাম ইমন। সম্ভাবনাময়ী ইনিংস ছিল তানজীদ হাসানের। কিন্তু ২৫ বলে ২৫ রান করে রান আউট হয়ে যান এ ওপেনার। কিছুটা মন্থর ছিলেন আরেক ওপেনার আনিসুল ইসলাম ইমন। তানজীদ হাসানের বিদায়ের পর উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের রানের গতি কমতে থাকে।

Also Read - বিসিসিআইয়ের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন স্মিথ


৩২ বলে ১৩ রান করে দলীয় ৪৬ রানের মাথায় আনিসুল ইসলাম ইমন বিদায় নেন সোহরাওয়ার্দী শুভর বলে। এক ওভার পর আবরার আলমকে নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে সাজঘরে পাঠান দেলোয়ার হোসেন। রানের গতি কমতেই থাকে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের।

দলীয় ৫৮ রানের মাথায় আঘাত হানেন সাব্বির হোসেন। ১৩ বলে ৪ রান করে বিদায় নেন মিনহাজ হোসেন।  অধিনায়ক মোহাইমিনুল খান আর শাখির হোসেনের জুটি থেকে আসে ২০ রান। রাকিবুল হাসানের বলে স্টাম্পিং হন মোহাইমিনুল খান। ৪৩ বলে ২১ রান করে ফিরে যান তিনি। এরপর শাখির হোসেনকে ফেরান সাব্বির হোসেন। ৩৮ বল টিকে মাত্র ৯ রান করেন শাখির হোসেন। নিজের পরের ওভারে জাহাঙ্গীর আলমকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন সাব্বির হোসেন। পরের ওভারেই বিদায় নেন সাইদুল ইসলাম।

৮৫ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় চলে যায় উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব। অলআউট হওয়ার ক্ষণগণনা করা উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের ইনিংস লম্বা করেন মিনহাজুল আবেদিন। এক প্রান্ত আগলে রেখেছিলেন তিনি। নবম উইকেটে নাইমুল ইসলামকে নিয়ে যোগ করেন ১৯ রান। দশম উইকেটে সোহেল রানাকে সাথে নিয়ে গড়েন ৪১ রানের জুটি। অর্ধশতক তুলে নেন মিনহাজুল আবেদিন। ৭৩ বলে ৫১ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ১৪৫ রান করে অলআউট হয় উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব।

বল হাতে তিন উইকেট শিকার কহ্রেন সাব্বির হোসেন। দশ ওভারে মাত্র ২৭ রান দেন ডানহাতি মিডিয়াম পেসার। দুই উইকেট নেন বাঁহাতি স্পিনার রাকিবুল হাসান।

জবাব দিতে নেমে ওপেনিং জুটিতেই জয়ের কাছাকাছি চলে যায় শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। শুরু থেকেই ঝড়ো ব্যাটিং করতে থাকেন সাব্বির হোসেন। অপর প্রান্তে থাকা সাদমান ইসলাম পালন করছিলেন তাকে সঙ্গ দেওয়ার দায়িত্ব। এ জুটিতে ভরক অরেই শতরানের চৌকাঠ পার করে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। ৪৯ বলে অর্ধশতক তুলে নেন সাব্বির হোসেন।

সেখান থেকে সাব্বির হোসেন ছুটতে থাকেন শতকের পথে। মাঝে নাইমুল ইসলামের বলে বোল্ড হন ওপেনার সাদমান ইসলাম। ৭৩ বল খেলে ৩৮ রান করেন তিনি। সাব্বির হোসেন এরপর অমিত হাসানকে নিয়ে এগিয়ে যান।

দলীয় ১৪৫ রানের মাথায় সাব্বির হোসেনের রান ছিল ৯৯। দলের জয় ও নিজের শতকের জন্য প্রয়োজন ছিল মাত্র একটি রান। এ সুবর্ণ সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি সাব্বির হোসেন। জয়সূচক রান করে শতক পূর্ণের সৌভাগ্য হয়নি তার। ৯৯ রান করে জাহাঙ্গীর আলমের বলে আউট হন তিনি। তার ইনিংস সাজানো ছিল ৭ চার আর ৭ ছক্কায়। পরের ওভারেই আট উইকেটের বড় জয় নিশ্চিত হয় শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের।

টানা চারের হারের পর অবশেশে হারের বৃত্ত থেকে বের হতে পেরেছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। পাঁচ ম্যাচে তাদের জয় একটি। উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবেরও একই চিত্র।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব ১৪৫/১০, ৪৪.৪ ওভার
আবেদিন ৫১, তানজীদ ২৫, মোহাইমিনুল ২১, আনিসুল ১৩, শাখির ৯
সাব্বির ৩/২৭, রাকিবুল ২/১৮, শুভ ১/২৪, দেলোয়ার ১/২৪, শরীফুল ১/২৯

শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব ১৪৯/২, ২৫.১ ওভার
সাব্বির ৯৯, সাদমান ৩৮, অমিত ৬*, তৌহিদ ০*
জাহাঙ্গীর ১/২৪, নাইমুল ১/৪৭


আরো পড়ুন: চেন্নাই-বেঙ্গালুরু ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে ১২তম আইপিএল


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বোলারদের দিনে উত্তরার কষ্টার্জিত জয়

ব্রাদার্স ইউনিয়নের এ কী হাল!

ডিপিএল খেলা বোলারের অ্যাকশন অবৈধ!

দোলেশ্বরের সামনে পাত্তা পেলো না উত্তরা

দৈর্ঘ্য কমার ম্যাচেও অলআউট হয়ে গাজীর কাছে হারলো উত্তরা