Scores

ভিডিওঃ সাব্বিরের ৬২ রানের ঝড়ো ইনিংস

প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখতে জয় ভিন্ন কোন পথ ছিল না কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের। সেই মিশনে দলটি আজ মাঠে নামে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে। যেখানে সাব্বির রহমানের ঝড়ো ফিফটির পরেও হারতে হয়েছে। খুলনার পক্ষে একাই পাঁচ উইকেট নিয়েছেন রবি ফ্রাইলিঙ্ক। 

এদিন টসে হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নামে খুলনা। দলের হয়ে ইনিংস শুরু করতে আসেন দুই ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত মেহেদী হাসান মিরাজ। শুরুতে দেখেশুনে খেললেও ম্যাচের বয়স বাড়ার সাথে সাথে হাত খুলে খেলতে থাকেন দুজন। ৫৫ বলে উদ্বোধনী জুটিতে যোগ করেন ৭১ রান। ২৯ বলে ৩৮ রান করা শান্তকে ফিরিয়ে এই পার্টনারশিপ ভাঙেন সৌম্য সরকার।

Also Read - রানাকে টপকে গেলেন মুস্তাফিজ


এরপর নিজেকে বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেননি মিরাজও। দলীয় ৯১ রানে ফিরেছেন ৩৯ বলে সমান ৩৯ রান করে। মিরাজের আউটের পর মুশফিককে নিয়ে হাত খুলে খেলতে শুরু করেন রুশো। ইমরুল কায়েসের পর চলতি বিপিএলে তুলে নেন নিজের চতুর্থ ফিফটি। মাত্র ২৬ বলে পাওয়া অর্ধশতকটি বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান সাজান ৪টি চার ও ৩টি ছয়ের মারে।

শেষদিকে মুশফিক-রুশোর ৪৬ বলে ৮৫ রানের অবিচ্ছেদ্য পার্টনারশিপের উপর ভর করে ২০ ওভার শেষে ১৭৯ রানের পাহাড়সম সংগ্রহ দাঁড় করে খুলনা টাইগার্স। দলের হয়ে মুশফিক ১৭ বলে ২৪ ও রুশো অপরাজিত থাকেন ৩৬ বলে ৭১ রান নিয়ে।

পরে খুলনার দেওয়া ১৮০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নামেন কুমিল্লার দুই ওপেনার স্ট্যিয়ান ভ্যান জিল ও সাব্বির রহমান। এক ম্যাচ পর আবার দলে ফিরে বেশ সাবলীল ছিলেন সাব্বির। তবে সুবিধা করতে পারেননি ভ্যান জিল। ১৩ বলে ১২ রান করে ফ্রাইলিঙ্কের প্রথম শিকারে পরিণত হন তিনি।

এরপর দলটির ইনফর্ম ব্যাটসম্যান ডেভিড মালানকে ১ রানের মাথায় ফেরান শফিউল ইসলাম। মালানের বিদায়ের পর উইকেটে থাকা সাব্বিরের সাথে যোগ দেন সৌম্য। ইনিংসের ১১তম ওভারে জোড়া আঘাতে সৌম্য (২২) ও মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনকে (০) আউট করেন ফ্রাইলিঙ্ক। ফলে ৮২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে কুমিল্লা।

একপ্রান্তে আগলে রেখে খেলে যান সাব্বির। মিরপুরে আজ চার-ছক্কার ফুলঝুরি সাজিয়ে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাত্র ৩১ বলে তুলে নেন ফিফটি। এবার তার সাথে যোগ দেন ইয়াসির আলী রাব্বি। রীতিমত ধ্বংসলীলা চালান স্পিনার অ্যালিস ইসলামের উপর। অ্যালিসের ৪ ওভারে ৪৯ রান তুলে নেয় কুমিল্লা।

পরে রুশোর দুর্দান্ত এক ক্যাচে ৩৯ বলে ৬৩ রান করে সাজঘরে ফিরতে হয় সাব্বিরকে। ১৪ ম্যাচ পাওয়া ফিফটি ৭টি চার ও ২টি ছয়ের মার দিয়ে সাজিয়েছেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। শেষদিকে ইয়াসির ১৩ বলে ২৬ রান করে আউট হলে শেষরক্ষা হয়নি কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের। ইনিংস থামে ১৪৫ রানে। ফলে ৩৪ রানে ম্যাচ জেতে খুলনা টাইগার্স।

এই হারের ফলে প্লে-অফের স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেল কুমিল্লার। ম্যাচে ৫ উইকেট নিয়েছেন খুলনার পেসার রবি ফ্রাইলিঙ্ক।


সংক্ষিপ্ত স্কোর:

খুলনা টাইগার্স: ১৭৯/২ (২০ ওভার)
রুশো ৭১*, মিরাজ ৩৯, শান্ত ৩৮; সৌম্য ১/৩৯, উইজ ১/৩০।

কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স: ১৪৫/১০ (১৮.২ ওভার)
সাব্বির ৬৩, ইয়াসির ২৭, সৌম্য ২২; ফ্রাইলিঙ্ক ৫/১৬, শহিদুল ২/৩৪।

সাব্বিরের ইনিংসটি দেখুন এখানে-

ফল: খুলনা ৩৪ রানে জয়ী।

Related Articles

বিসিবির সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে গিবসন

মুশফিক-মিরাজের ব্যাটিং তাণ্ডবে প্লে-অফে খুলনা

ফ্রাইলিঙ্কের গতিতে বৃথা গেল সাব্বিরের ঝড়

মালানের কাছে সৌম্যই ‘ম্যান অব দ্যা ম্যাচ’

সৌম্যর ব্যাটে প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখল কুমিল্লা