সামি-কটরেল আসেননি বলেই সিলেটের দুর্দশা!

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের পরই আলোচনার শোর ওঠে- অন্যান্য দলের তুলনায় কম শক্তিশালী দল গড়েছে সিলেট থান্ডার। টি-টোয়েন্টি আসরে দলগুলোর মধ্যে শক্তিমত্তার পার্থক্য থাকে কম। আর এ কারণে লিগগুলোর জনপ্রিয়তাও বেশি। কিন্তু সিলেটের দল দেখে যে প্রথমেই হতাশ সমর্থকরা!

সামি-কটরেল আসেননি বলেই সিলেটের দুর্দশা!

Advertisment

অথচ টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বিসিবির নির্দেশনাই ছিল- দলগুলোর শক্তিমত্তায় যেন খুব বেশি পার্থক্য না থাকে। সরাসরি চুক্তিতে যেসব বিদেশির দিকে হাত বাড়িয়েছিল তাদেরও দলের সাথে পাওয়া হয়নি। সিলেট থান্ডারের স্পন্সর জিভানি ফুটওয়্যার। দল গঠনে তাদের পারদর্শিতা নিয়েও প্রশ্ন আছে। দলের পরিচালকও বলেছিলেন- ড্রাফটে দল গোছানোর অনেক কাজ তার নিজেরই পছন্দ হয়নি।





তারপরও সিলেট যে দল গড়েছিল, তা পুরোপুরি পেলে দলের পারফরম্যান্স এত বাজে হত না বলে অভিমত দলের বাঁহাতি স্পিনার মনির হোসেনের।

শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) রংপুরের কাছে ফিরতি লেগেও পরাজয়ের পর তিনি জানান, দলের ব্যাটিং বোলিং একসাথে ভালো না হওয়ায় সাফল্য পাচ্ছে না দল। ১০ ম্যাচে মাত্র একটি জয় পাওয়া সিলেটের বোলিং ইউনিট বেশ অগোছালো। পাকিস্তানের মোহাম্মদ সামি ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের শেলডন কটরেল দলভুক্ত হয়েও আসেননি।






মনির মনে করেন, তারা না আসায় বোলিং ইউনিট শক্তিশালী হয়নি। তিনি বলেন-

‘আমাদের দুজন বিদেশি খেলোয়াড় ছিল- মোহাম্মদ সামি আর শেলডন কটরেল। তাদের উপর নির্ভর করে সাজানো হয়েছিল। ওরা না আসাতে বোলিং অ্যাটাক দুর্বল হয়ে গেছে। স্থানীয়রাও এক-দুদিন ছাড়া ভালো খেলছি না।’

দল বারবার ব্যর্থ হওয়ায় প্রশ্নের উত্তরও যেন নেই সিলেটের কাছে। এজন্য এখন বড় তারকাদের গণমাধ্যমের সামনে পাঠানো হচ্ছে না। মনিরকে দলের ফলাফলের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘সবাই তো জেতার জন্যই খেলতে আসে। আমরা চেষ্টা করছি। সবাই চেষ্টা করছে ভালো খেলার জন্য। কিন্তু বোলিং আর ব্যাটিং দুইটা একসাথে ভালো হচ্ছে না। আজ এক-দুটো ওভারে একটু বেশি রান হয়ে গেছে। বোলিংয়ে একটু ঘাটতি ছিল। এত রান তাড়ায় যেমন শুরু দরকার ছিল আমরা তা পাইনি।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।