Scores

সার্জারির টেবিলে বসতে যাচ্ছেন ওয়ার্নার

কনুইয়ে চোট পাওয়া অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নার বসতে যাচ্ছেন অস্ত্রোপচারের টেবিলে। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) মেলবোর্নে হবে ওয়ার্নারের সেই সার্জারি।

সিলেটে খেলার সুযোগ পেয়ে বিসিবিকে ওয়ার্নারের ধন্যবাদ

সার্জারির আগে তার চোট পাওয়া কনুই ভালো করে পরীক্ষা করা হবে। এরপর একইদিন করা হবে অস্ত্রোপচার।

অস্ত্রোপচার শেষে ওয়ার্নার মাঠে ফিরবেন শীঘ্রই। তার মত কনুইয়ের চোটে ভোগা স্টিভ স্মিথের চেয়ে তার চোটের অবস্থা তুলনামূলক ভালো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Also Read - সোমবার মিরপুরে ফিরছে বিপিএল


ওয়ার্নার ও স্মিথ দুজনই চোট পেয়েছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে খেলতে গিয়ে। চলমান বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে ওয়ার্নার ছিলেন সিলেট সিক্সার্সের অধিনায়ক। বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই ঘরোয়া আসরে ওয়ার্নারের অংশগ্রহণ ছিল এবারই প্রথম। নেতৃত্বের দিক থেকে তো বটেই, ব্যাট হাতে পারফরম্যান্সের দিক থেকেও ওয়ার্নার ছিলেন দুর্দান্ত।

যদিও আসরের মাঝথেই চোট বাঁধিয়ে তাকে ধরতে হয় দেশের বিমান। বিপিএলের সিলেট পর্বের খেলায় দলের দুটি ম্যাচ শেষেই জানা গিয়েছিল তার চোট পাওয়ার কথা। তবে এই চোট নিয়েই ওয়ার্নার খেলেছেন আরও দুটি ম্যাচ। দল জয় না পেলেও ওয়ারনারের দুর্দান্ত ক্রিকেট কেড়ে নিয়েছিল প্রশংসা।

বাংলাদেশ ছাড়ার আগে সিলেট সিক্সার্সের অধিনায়ক ওয়ার্নার জানান, পুরনো ইনজুরি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার ফলেই বিপিএল ছাড়তে হয় তাকে। ব্যথানাশক নিয়ে খেলা চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন, তবে তা সব ম্যাচে কাজে আসছে না বলেই ফিরতে হয় তাকে।

নিজের ইনজুরির অবস্থা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ওয়ার্নার জানিয়েছিলেন, কনুইয়ের এই চোট আগে থেকেই ছিল তার। কনুইয়ের সন্ধিতে জমেছিল তরল। ব্যথানাশক ঔষধ খেয়েছিলেন, কিন্তু হাতের ফোলা কমছিল না। তাই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পরামর্শেই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন। মেলবোর্নে ডাক্তাররা তার কনুই দেখে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন- অস্ত্রোপচারই সর্বোত্তম সমাধান।

প্রসঙ্গত, বল টেম্পারিংয় ইস্যুতে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে ১২ মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটাচ্ছেন ওয়ার্নার ও তার বন্ধু-সতীর্থ স্মিথ। আগামী বিশ্বকাপের দলে সুযোগ পাওয়ার আগে চোট হয়ে গেছে দুজনের বড় বাধা।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওয়েডের ‘মাথার খুলি উড়িয়ে দিতে চেয়েছিল’ আর্চার!

একাধিক রেকর্ড দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করলেন স্মিথ

সমতায় শেষ হলো অ্যাশেজ, ট্রফি গেল অস্ট্রেলিয়ায়

অস্ট্রেলিয়ার অধিকাংশ সমর্থকই আমাকে ঘৃণা করে: মার্শ

নেতৃত্বে ফিরবেন স্মিথ!