সালেহ আহমেদ শাওনের ঘূর্ণিতে বিধ্বস্ত ভিক্টোরিয়া

ফতুল্লার খান সাহেব উসমান আলী স্টেডিয়ামে সকালে টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে দুই ওপেনার পিনাক ঘোষ ও রাজিন সালেহ’র  এবং সাইফ হাসানের ৭৮ রানের উপর ভর করে ৪৯.৪ ওভারে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ২৫৯ রান সংগ্রহ করে ক্রিকেট কোচিং স্কুল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে সালেহ আহমেদ শাওনের বোলিং ঘূর্ণিতে বৃষ্টির আইনে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ৫৩ রানের জয় পায় ক্রিকেট কোচিং স্কুল।

shawon
ছবিঃ বিডিক্রিকটিম ডট কম

ফতুল্লার সকালের ঠাঁসা রৌদে ব্যাটিং নিয়ে ভুল করেননি ক্রিকেট কোচিং স্কুলের অধিনায়ক রাজিন সালেহ। শুরুতেই ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের বোলারদের চাপে রাখে ক্রিকেট কোচিংয়ের ব্যাটসমানরা। দুই ওপেনার পিনাক ঘোষ ও রাজিন সালেহ দেখে শুনেই প্রতিপক্ষ বোলারদের মোকাবিলা করেছেন। কিন্তু রানের লেজ বেশি বড় করতে দেননি ভিক্টোরিয়ার বোলার সোহরাওয়ার্দী শুভ, পিনাক ঘোষকে (৪২) এল্বিডাবলিওর ফাঁদে ফেলে ফেরান তাঁকে। তার কিছুক্ষণ পরেই কাম্রুল ইসলাম রাব্বির বলে সাজঘরের পথ ধরেন রাজিন সালেহ (৪২)। তাপরেই দলের হাল ধরেন দুই ব্যাটসম্যান সাইফ হাসান ও সালমান হোসেন।

দুই ব্যাটসম্যানের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বড় স্কোরের দিকে এগুতে থাকে দল। ব্যক্তিগত ৫৪ বলে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন সাইফ হাসান। দুই ব্যাটসম্যানের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ৪০তম ওভারেই ২০০ রানের কোটায় পা রাখে দল। তবে ক্রিজে থিতু হয়ে ফিরতে হয় সালমান হোসেনকে (৪১)। দলীয় ১৯ রানের মাথায় উত্তম, অমিত ও সাইফকে হারিয়ে কিছুটা থোবরে পড়ে দল তবে শেষ দিকে সাইদ সরকারের ১৭ ও নাসুম আহমেদের ১৫ রানের উপর ভর করে পূর্ণাঙ্গ ওভার হতে ২ বল বাকি থাকতেই ২৫৯ রানে গুঁটিয়ে যায় ক্রিকেট কোচিং। ভিক্টোরিয়ার হয়ে ৪টি করে উইকেট লাভ করেন তরুণ বোলার কামরুল ইসলাম রাব্বি ও অভিজ্ঞ ডি সিলভা।

Also Read - এখনো জাতীয় দলের হয়ে খেলার স্বপ্ন দেখিঃ মোহাম্মদ শরীফ


২৬০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা বেশ ভালোভাবেই করতে পেরেছিল ভিক্টোরিয়ার দুই ওপেনার সোহরাওয়ার্দী শুভ ও আব্দুল মজিদ। দলীয় ৪৪ রানের মাথায় সালেহ আহমেদ শাওনের বলে বোল্ড আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন সোহরাওয়ার্দী শুভ (১৬)। ‘পাওয়ার প্লে’ এর প্রথম দশ ওভারেই ২ উইকেট হারিয়ে করেন ৭২ রান, তারপরেই ম্যাচেই বৃষ্টি বাগড়া। ইনিংসে সুবিধা করতে পারেননি মুমিনুল হক (১৪)। এরপরেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব।

ইনিংসের মাঝে আবারো বৃষ্টি হানা দিলে (ডি/এল মেথডে) ৩৫ ওভারে ভিক্টোরিয়া টার্গেট দাঁড়ায় ২৫৩ রান। জুবায়ের আহমেদকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের লক্ষ্যে এগুতে থাকে অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরী, কিন্তু দলীয় ১৪০ রানের মাথায় সাইফ হাসানের বলে আউট হন জুবায়ের আহমেদ (২২) । তবে দলের হয়ে রানের চাকা সচল রাখেন নাদিফ, ৪৩ বলে ক্যারিয়ারের নবম অর্ধশতক করেই রাজিন সালেহ বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তিনি। ভিক্টোরিয়ার ইনিংসের বাকি সময়টা ছিল পরাজয়ের ব্যবধান কমানো, শেষ পর্যন্ত শাওনের ম্যাজিক বোলিং ফিগারে ১৯৯ রানেই অল আউট হয় ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ক্রিকেট কোচিং স্কুল  ২৫৯ (৪৯.৪)

সাইফ হাসান ৭৮, পিনাক ৪২; ডি সিলভা ৪-৪৭

ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব  ১৯৯ (৩১.১)

নাদিফ ৫০, আব্দুল মজিদ ৩৯; শাওন ৪-১৫

ফলাফলঃ ৫৩ রানে জয়ী ক্রিকেট কোচিং স্কুল (ডি/এল মেথড)

ম্যাচ সেরাঃ সালেহ আহমেদ শাওন (ক্রিকেট কোচিং স্কুল)

-মুশফিকুর রিফাত, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম ডট কম

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন