Scores

সাড়ে ১৭ ঘণ্টা রোজার দেশে কী করবেন ক্রিকেটাররা?

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শুরু হয়েছে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ ও পবিত্র রমজান মাস, বাংলাদেশে শুরু হবে মঙ্গলবার (৬ মে)। বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন রয়েছে আয়ারল্যান্ডে, উদ্দেশ্য ত্রিদেশীয় সিরিজ। সিরিজের সবগুলো ম্যাচই স্থানীয় সময় অনুযায়ী দিনের ভাগে। রমজান মাসে তাহলে কীভাবে খেলবেন ক্রিকেটাররা?  

মাশরাফির কাছে অজুহাত নয় ‘কনকনে শীত’

রোজার উপবাস নিয়ে শারীরিক শক্তির খেলা ক্রিকেট স্বভাবতই কঠিন। তবে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে গিয়ে গুরুত্বপূর্ণ পেশা পালন করেন ক্রিকেটাররাও। আর সে কারণে মাঠে না নেমেও উপায় নেই। মাশরাফি জানিয়েছেন, খেলার দিন অনেক ক্রিকেটার হয়ত রোজা রাখবেন না। তবে খেলার দিন ক্রিকেটাররা রোজা রাখুন বা না রাখুন, অন্যান্য দিনে দলের মুসলিম ক্রিকেটাররা রোজা রাখবেন, রোজা রেখেই চলবে কঠোর অনুশীলন।

Also Read - জাহানারাদের ‘নারী আইপিএলে’র পর্দা উঠল


মাশরাফি বলেন-

‘যেহেতু আমরা মুসলিম, রোজা খুব গুরুত্বপূর্ণ। সবাই-ই রোজা থাকবে। খেলার দিন হয়ত কেউ কেউ থাকতে পারবে না।’ 

ইউরোপে রোজায় উপোষ করতে হয় উপমহাদেশের চেয়েও অনেক বেশি সময়। সেটি উল্লেখ করে মাশরাফি বলেন, ‘১৭-১৮ ঘণ্টা রোজা রেখে খেলা খুব কঠিন। অন্যান্য দিনে সবাই রোজা রাখবে ইনশাআল্লাহ্‌।’

আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনে সত্যিকার অর্থেই কনকনে শীত। মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের সদস্যরা দেশে অনুশীলন করে গেছেন তপ্ত পরিবেশে, সূর্যের সাক্ষাতে। অথচ যে আয়ারল্যান্ড সিরিজ সেই অনুশীলনের পরের ‘পর্ব’, সেখানেই হাড়কাঁপান শীত।

তবে এই শীত বা ঠাণ্ডা বাংলাদেশ দলের অজুহাত হয়ে দাঁড়াচ্ছে না। ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফর্ম করতে ব্যর্থ হলে তো না-ই, বাজেভাবে হারা প্রস্তুতি ম্যাচেও না।

মাশরাফি যে আগেই জানিয়ে দিয়েছেন, এই শীতকে মোকাবেলা করতে হবে মানসিক পরিপক্বতা দিয়ে!

উইন্ডিজের বিপক্ষে টাইগারদের প্রথম ম্যাচকে সামনে রেখে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে মাশরাফি বলেন, ‘এখানে যারা থাকে তারাও ঠাণ্ডার সাথে লড়াই করে। আমার মনে হয় না এই ঠাণ্ডা আমাদের সাথে এডজাস্ট হবে। মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ নেই। তবে মানসিকভাবে শক্ত হতে হবে। খেলতে নেমে ভালো করতে না পারলে ঠাণ্ডার কথা শেষ অজুহাত ছাড়া আর কিছুই হবে না। মানিয়ে নিয়েই খেলতে হবে।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মানিয়ে নিতে পারবেন কি না সেই প্রশ্নের উত্তর আপাতত নেই। ফলাফল বা পারফরম্যান্সের নিশ্চয়তার মতই আপাতত হাতে নেই প্রস্তুতির অংশটি ছাড়া কিছুই। প্রতিপক্ষকে জানাও সেই প্রস্তুতিরই অংশ। উইন্ডিজের ক্রিকেটারদের সম্পর্কে মাশরাফির ভাষ্য, ‘ওদের কিছু খেলোয়াড় আছে… শাই হোপ, বাংলাদেশেই আমাদের ওর বিপক্ষে সংগ্রাম করতে হয়েছে। ডোয়াইন ব্রাভো আছে, আরও ভালো ভালো খেলোয়াড় আছে। ওদের পেস আক্রমণও ভালো। কাল ওরা খুব ভালো একটা ম্যাচ খেলেছে। আমরা প্র্যাকটিস ম্যাচ হেরেছি। কাল খেলার সময় আমাদের কাজ ঠিকমত সবকিছু করা।’

প্রস্তুতি ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের দ্বিতীয় সারির দলের কাছে বাংলাদেশ হেরেছে বড় ব্যবধানে। মূল লড়াইয়ে এটি প্রভাব ফেলবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, ‘মানসিকভাবে আমরা কেমন থাকছি এর উপরই নির্ভর করছে।’

সোমবার সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ডাবলিনের উইকেট নিয়েও কথা বলেন মাশরাফি। এখানকার উইকেটে ইনিংসে ৩০০ রান সহজেই হওয়ার কথা বলে অভিমত তার। তবে বল হাতে কোনো দল ভালো করতে পারলে প্রতিপক্ষকে অল্প রানে আটকে দেওয়া সম্ভব বলেও অভিমত মাশরাফি বিন মুর্তজার।

তিনি বলেন, ‘উইকেট এখানে ৩০০ রানের মতই হবে। ভালো বল হলে দ্রুত ২-৩টা উইকেট পড়ে গেলে অন্যরকম হতে পারে। অন্যথায় এই উইকেটে ৩০০ রান থাকবে। যেকোনো দল বেশ ভালো বল করলে রান কমতে পারে।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ভারত যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-২৩ দল, ‘এ’ দল শ্রীলঙ্কায়

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে ভারত

বাংলাদেশ হারলেই আফগানিস্তানের বিশ্বরেকর্ড!

বাংলাদেশের সামনে এবার টি-টোয়েন্টির ‘শক্তিশালী’ আফগানিস্তান

জিম্বাবুয়েকে হেসেখেলে হারালো আফগানিস্তান