সিএকে নতুন কোনো তথ্য দেননি ব্যানক্রফট

অস্ট্রেলিয়ার কুখ্যাত বল টেম্পারিং কাণ্ড নিয়ে আলোচনা দুই বছরেরও বেশি সময় পর ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। এ নিয়ে নতুন তথ্য পেতে ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে তলব করলেও তিনি নতুন কোনো তথ্য দেননি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে (সিএ)।

সিএকে নতুন কোনো তথ্য দেননি ব্যানক্রফট
ব্যানক্রফটের হাতেই হয়েছিল কুখ্যাত বল টেম্পারিং। ফাইল ছবি

২০১৮ সালের অন্যতম আলোচিত বিষয় ছিল বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার এই টেম্পারিং দেশটির ক্রিকেটের উপর বয়ে নেয় প্রবল ঝড়। ঐ ঘটনায় ভিন্ন মেয়াদে নিষেধাজ্ঞা পান তিন অভিযুক্ত স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফট।

Advertisment

সেই ঘটনার মূল হোতা ছিলেন ওয়ার্নার, স্মিথ তখন দলের অধিনায়ক। দুইজনে মিলে কাজটা করিয়েছিলেন ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে দিয়ে। টেম্পারিংয়ের ঘটনায় এই তিনজনই পেয়েছিলেন নিষেধাজ্ঞা। ঘটনার এতদিন পর ব্যানক্রফট দিলেন এক বিস্ফোরক তথ্য।

সম্প্রতি ব্যানক্রফট গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দাবি করেন, বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা জানতেন সেই টেস্টে অজি দলের সব বোলারই। তরুণ ব্যানক্রফটের কাছ থেকে আরও তথ্য পাওয়া যেতে পারে, এমন প্রত্যাশায় সিএ ব্যানক্রফটকে তলব করে।

তবে সিএকে নতুন কোনো তথ্য দেননি কাউন্টিতে ব্যস্ত ব্যানক্রফট। মুঠোফোনে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে সিএর কর্তাদের তিনি জানিয়েছেন, বল টেম্পারিং কাণ্ড নিয়ে অজানা বা লুকানো আর কোনো তথ্য নেই।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট ভিত্তিক এক সংবাদমাধ্যমে সিএর এক কর্মকর্তা জানান, ‘ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া বারবার বলে এসেছে, যদি কারও কাছে সেই ঘটনা নিয়ে নতুন কোনো তথ্য-প্রমাণ থাকে, তবে সে যেন তা জানানো হয়। ঐসময় মনোযোগ দিয়ে তদন্ত হয়েছিল। তারপর কেউ আর এমন কোনো তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেনি, যা দেখে অস্ট্রেলীয় বোর্ডের তদন্তের ফল নিয়ে প্রশ্ন তোলা যেতে পারে।’

ব্যানক্রফটের বিস্ফোরক দাবির পর ঐ টেস্টের অস্ট্রেলিয়া দলের চার পেসার অবশ্য জানিয়েছেন, তারা এমন কোনো কাজ করেননি যার কারণে প্রশ্নের মুখে পড়তে হতে পারে।