সিপিএলে যোগ দিতে ‘৬’ বার বিমান পাল্টান রাজা!

মাত্র ক’দিন আগে শেষ হয়েছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) অষ্টম আসর। এবারের সিপিএলের শিরোপা জিতেছে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স, যা দলটির চতুর্থ শিরোপা। চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ছিলেন জিম্বাবুইয়ান ক্রিকেটার সিকান্দার রাজা। 

সিপিএলে যোগ দিতে '৬' বার বিমান পাল্টান রাজা!

Advertisment

এবারের আসরে মোট ৭টি ম্যাচ খেলেছেন রাজা। ব্যাট হাতে ভালো করতে না পারলেও বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন এই অলরাউন্ডার। যদিও আসরে অংশ নেওয়া নিয়েও একসময় ছিল ঘোর অনিশ্চয়তা।






সিপিএল শুরুর আগমুহূর্তে রাজাকে বাদ দিয়ে নতুন খেলোয়াড় দলভুক্ত করার পরিকল্পনাও করেছিল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। তবে শেষপর্যন্ত রাজা সিপিএলে যোগ দেন। তার যোগ দেওয়ার কাহিনী অবাক করবে ক্রিকেট সমর্থকদের। যেন ‘সাত সমুদ্র তেরো নদী’ পাড়ি জমানো!

ক’রোনা মহামারীর কারণে অনেক দেশেই ফ্লাইট বন্ধ। বর্তমানে বিমান যোগাযোগ ব্যবস্থা ধীরে ধীরে অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠলেও সিপিএল শুরুর সময়ে বেশ বিধিনিষেধ ছিল বিশ্বজুড়ে। নিজ দেশ জিম্বাবুয়ের হারারে থেকে ত্রিনিদাদে দলের সাথে যোগ দিতে রাজাকে ৬ বার বিমান বদলাতে হয়েছে!





রাজা বলেন, ‘হারারে থেকে ত্রিনিদাদ সুদীর্ঘ এক যাত্রা ছিল। কৃতিত্ব দিতে হবে ভেঙ্কি স্যারকে (ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স ও আইপিএলের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রধান নির্বাহী)। একটা সময় মনে হচ্ছিল আমি সিপিএলে যেতে পারব না। দলকে আমার পরিবর্তে অন্য কোনো খেলোয়াড়কে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বলা হয়েছিল। তখন ভেঙ্কি স্যার বলেছিলেন- না, না, না, আমাদের ছেলে ঠিকই দলে যোগ দেবে।’

শেষপর্যন্ত দলে ঠিকই যোগ দিতে পেরেছিলেন রাজা। সেই যাত্রা কতটা কঠিন ছিল? শোনা যাক তার মুখেই, ‘ভেঙ্কি স্যার নিশ্চিত করেছিলেন আমি যেন দলে যোগ দেই। হারারে থেকে অ্যাডিস আবাবা, সেখান থেকে দুবাই, তারপর আমস্টারডাম, তারপর প্যারিস, তারপর ফোর্ট ডি ফ্রান্স, তারপর মার্টিনিকিউ, তারপর বার্বাডোজ, তারপর ত্রিনিদাদে গিয়ে দলের সাথে যোগ দেই।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।