Scores

সিপিএলে সাকিবের অবিশ্বাস্য কীর্তির ‘৭’ বছর আজ

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) সাকিব আল হাসানের অবিশ্বাস্য ও অগ্নিঝরা বোলিংয়ের সাত বছর পূর্ণ হল আজ (৩ আগস্ট)। ২০১৩ সালের ৩ আগস্ট ৬ রানের বিনিময়ে ৬ উইকেট শিকার করে পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন সাকিব।

সিপিএলে সাকিবের অবিশ্বাস্য কীর্তির '৭' বছর আজ

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বোলাররা অনেকটাই অসহায়। তবে সাকিব বল হাতেই রীতিমত তাণ্ডব চালিয়েছিলেন ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো রেড স্টিলের ব্যাটসম্যানদের উপর। সাকিবের অতিমানবীয় পারফরম্যান্সে তার তৎকালীন দল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস পেয়েছিল ৪ উইকেটের জয়।

Also Read - চীনের স্পন্সরেই আইপিএল, ক্ষেপেছেন ভক্তরা






বার্বাডোজের কেনসিংটন ওভালের সেই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেছিল ত্রিনিদাদ। জেসন হোল্ডার ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শুরুতেই খেই হারিয়ে ফেলে দলটি। সেই ঘায়ে নুন ছিটিয়ে দেয় সাকিবের বোলিং।

বল করতে এসে একে একে তিনি তুলে নেন রস টেলর, ডোয়াইন ব্রাভো, কেভিন ও’ব্রায়েন, নিকোলাস পুরান, কেভন কুপার ও স্যামুয়েল বদ্রির উইকেট। তাও এই ৬টি উইকেট সাকিব শিকার করেছিলেন মাত্র ৬ রানের খরচায়! টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ম্যাচে একজন বোলার বল করতেই পারেন মাত্র ৪ ওভার। তার মধ্যে সাকিবের একটি ওভার ছিল মেডেন।






বল হাতে বিধ্বংসী সাকিব ব্যাট হাতে মাত্র ১ রান করেছিলেন সেদিন। দলের অন্যান্য ব্যাটসম্যানরাও তেমন সুবিধা করতে পারেননি। তবে সাকিবের বোলিংয়ে প্রতিপক্ষকে মাত্র ৫২ রানে গুটিয়ে দেওয়ায় বার্বাডোজ পেয়েছিল ৪ উইকেটের জয়।

সাকিবের সেই বোলিং ফিগারটি এখনো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের তৃতীয় সেরা বোলিং ফিগার হয়ে আছে। যদিও রেকর্ড গড়ার সময় সাকিবের কীর্তি ছিল দ্বিতীয় সেরা হিসেবে।

একনজরে টি-টোয়েন্টির সেরা পাঁচ বোলিং ফিগার 

১. কলিন আকারম্যান – ৪-০-১৮-৭ (লিচেস্টারশায়ার বনাম বার্মিংহাম বিয়ারস)
২. অরুল সুপিয়াহ – ৩.৪-০-৫-৬ (সমারসেট বনাম গ্ল্যামারগান)
৩. সাকিব আল হাসান – ৪-১-৬-৬ (বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস বনাম ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো রেড স্টিল)
৪. লাসিথ মালিঙ্গা – ৪-১-৭-৬ (মেলবোর্ন স্টার্স বনাম পার্থ স্কচার্স)
৫. কাইল জেমিসন – ৪-০-৭-৬ (ক্যান্টাবুরি বনাম অকল্যান্ড)

দেখুন সাকিবের স্পেলটি-

 

Related Articles

সিপিএলে যোগ দিতে ‘৬’ বার বিমান পাল্টান রাজা!

অপরাজিত থেকেই ফাইনালে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স

সিপিএলের সেমিফাইনালের লাইনআপ চূড়ান্ত

জয় দিয়ে লিগ পর্ব শেষ করল সেন্ট লুসিয়া

টানা ‘১০’ ম্যাচ জিতে লিগ পর্ব শেষ করল ত্রিনবাগো