Scores

সিরিজ জিতে নিল নিউজিল্যান্ড

আবু ধাবিতে সিরিজ নির্ধারণী টেস্টে পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। প্রায় দশ বছর পর এশিয়ার মাটিতে সিরিজ জয়ের স্বাদ পেল কিউইরা।

সিরিজ-জিতে-নিল-নিউজিল্যান্ড
ট্রফি হাতে উচ্ছ্বসিত নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।

 

৪ উইকেটে ২৭২ রান নিয়ে শুরু করে নিউজিল্যান্ড। দিনের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি তাদের। দিনের প্রথম বলেই হাসান আলির বলে এলবিডব্লিউ হয়ে মাঠ ছাড়েন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। সমাপ্তি ঘটে তার ১৩৯ রানের ইনিংসের।  ষষ্ঠ উইকেটে কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে সাথে নিয়ে হাল ধরেন হেনরি নিকোলস। শতক তুলে নেন হেনরি নিকোলস। এ জুটিতে স্কোরবোর্ডে রান যোগ হয় ৬২। এ জুটিতে ভর করে তিনশ’ রান পার করে নিউজিল্যান্ড।

Also Read - কর্পোরেট টি২০তে জিতলো টেক্স স্টাইল বিডি ও বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ


কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে ফিরিয়ে দিয়ে এ জুটি ভাঙেন পাকিস্তানের লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ। বিলাল আসিফের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান কলিন ডি গ্রান্ডহোম। ২ চার ও ২ ছক্কায় ১৯ বলে ২৬ রানের দ্রুতগতির ইনিংস খেলেন তিনি।

পরের বলেই ওয়াটলিংকে বোল্ড করেন ইয়াসির শাহ। খালি হাতে সাজঘরে ফিরে যান ওয়াটলিং। অষ্টম উইকেটে টিম সাউদি ও হেনরি নিকোলস মিলে দলের রান ৩৫০ পার করান। ৭ উইকেটে ৩৫৩ রান করে ইনিংস ঘোষণা দেয় নিউজিল্যান্ড। ১ ছক্কায় ১০ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন টিম সাউদি। ২৬৬ বলে ১২৬ রান করে অপরাজিত চিহ্লেন হেনরি নিকোলস। তার ইনিংস সাজানো ছিল ১২ চারে।

২৮০ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে পাকিস্তান। ওপেনিং জুটি টিকে সপ্তম ওভার পর্যন্ত। নিউজিল্যান্ডের পেসার টিম সাউদির বলে বোল্ড হন মোহাম্মদ হাফিজ। নিজের ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট ইনিংসে ২০ বলে ৮ রান করেন তিনি। এরপর টিকতে পারেননি আজহার আলিও। কলিন ডি গ্রান্ডহোমের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান আজহার আলি। ১৪ বলে ৫ রান করেন আজহার।

এরপর আঘাত হানেন উইলিয়াম সমারভিল। এক ওভারেই সমারভিল ফিরিয়ে দেন হারিস সোহেল ও আসাদ শফিককে। দুই বলে দুই উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের মেরুদণ্ড ভেঙে দেন তিনি। ঐ ওভারেই যেন ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় পাকিস্তান। ওপেনার ইমাম-উল-হক ফিরেন ৫৫ রানের মাথায়। তার উইকেট নেন আজাজ প্যাটেল। প্যাটেলের বলে নিকোলসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান ইমাম-উল-হক। ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় চলে যায় স্বাগতিকরা।

ষষ্ঠ উইকেটে বাবর আজম আর সরফরাজ আহমেদ যোগ করেন ৪৩ রান। ২৮ রান করে সমারভিলের বলে বোল্ড হন সরফরাজ আহমেদ। এরপর সপ্তম উইকেটে বিলাল আসিফকে নিয়ে বাবর আজম যোগ করেন ৩৩ রান। অর্ধশতক তুলে নেন বাবর আজম। তবে বাবর এমন দৃঢ়তা শুধু হারের ব্যবধানই কমায়। ১২ রান করে টিম সাউদির শিকার হন বিলাল আসিফ। নিজের পরের ওভারে ইয়াসির শাহের উইকেট নেন টিম সাউদি। দলীয় ১৫০ রানের মাথায় বাবর আজম ফিরে আজাজ প্যাটেলের বলে। ৫১ রানের ইনিংস খেলেন বাবর আজম। নিজের পরের ওভারে হাসান আলির উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের ইনিংসের সমাপ্তিও ঘটান আজাজ প্যাটেল। পাকিস্তান অলআউট হয় ১৫৬ রান করে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ নিউজিল্যান্ড ২৭৪/১০, ১১৬.১ ওভার, প্রথম ইনিংস
উইলিয়ামসন ৮৯, ওয়াটলিং ৭৭, রাভাল ৪৫
আসিফ ৫/৬৫, ইয়াসির ৩/৭৫, শাহিন শাহ ১/৫২

পাকিস্তান ৩৪৮/১০, ১৩৮ ওভার, প্রথম ইনিংস
আজহার আলি ১৩৪, শফিক ১০৪, সরফরাজ ২৫
সমারভিল ৪/৭৫, বোল্ট ২/৬৬, প্যাটেল ২/১০০

নিউজিল্যান্ড ৩৫৩/৭, ডিক্লেয়ার্ড, ১১৩ ওভার, দ্বিতীয় ইনিংস
উইলিয়ামসন ১৩৯, নিকোলস ১২৬*, ডি গ্রান্ডহোম ২৬
ইয়াসির ৪/১২৯, শাহিন শাহ ২/৮৫, হাসান ১/৬২

পাকিস্তান ১৫৬/১০, ৫৬.১ ওভার, দ্বিতীয় ইনিংস
বাবর ৫১, সরফরাজ ২৮, ইমাম-উল-হক ২২
সাউদি ৩/৪২, প্যাটেল ৩/৪২, সমারভিল ৩/৫২

ম্যাচসেরাঃ কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড)


আরো পড়ুনঃ রোমাঞ্চকর জয়ে সেমিফাইনালের আশা টিকিয়ে রাখলো বাংলাদেশ


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ব্র্যাডম্যানের রেকর্ড ভাঙলেন আগারওয়াল

এখনো ইনিংস ঘোষণার কথা ভাবেনি ভারত

শ্রীলঙ্কা দলের কোচ হচ্ছেন মিকি আর্থার!

শ্রীলঙ্কাই যাচ্ছে বাংলাদেশের আগে

ভুল মানছেন মুমিনুল, জানালেন মুস্তাফিজ না থাকার কারণ