সিলেটের উইকেট নিয়ে অসন্তুষ্ট মোসাদ্দেক

মিরপুরের উইকেট নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে। ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপের ভেন্যু হিসেবে নির্ধারণ করা হয় সিলেটকে। তবে হতাশ করেছে নয়নাভিরাম এই ভেন্যুর উইকেটও। সিলেটের উইকেট নিয়ে অসন্তোষ ঝরেছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের কণ্ঠে।

সবাই জানে এই ফরম্যাটে আমরা কত ভালো দল মোসাদ্দেক
মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ফাইল ছবি

দীর্ঘদিন পর একদিনের কোনো টুর্নামেন্ট খেলছেন ক্রিকেটাররা, যেখানে ফাইনালে উঠেছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল ও বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল। তবে ফাইনালের আগে বেশিরভাগ ম্যাচই দেখেছে রানখরা। স্বল্প রানের পুঁজি নিয়েও আগে ব্যাট করা দল জমিয়ে তুলেছে ম্যাচ।

Advertisment

তবে উইকেটের কারণে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা পছন্দ নয় মধ্যাঞ্চলের অধিনায়ক মোসাদ্দেকের। তিনি বলেন, ‘ভালো উইকেট না থাকলে ব্যাটার ও বোলার দুইজনেরই স্কিল উন্নতি করা কঠিন হয়ে যায়। এ ধরনের উইকেট থাকলে স্কিল ভালো করা কঠিন।’

মধ্যাঞ্চল অবশ্য উইকেট নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ জানায়নি, তবে অসন্তোষ লুকাননি মোসাদ্দেক। তার ভাষায়, ‘উইকেট ভালো হলে বাংলাদেশ ক্রিকেটেরও ভালো হবে। অন্যান্য দল বলেছে কি না জানি না। তবে আমরা কোনো অভিযোগ করিনি। গত দুই ম্যাচে ব্যাটাররা রান না করায় আর স্পিনাররা উইকেট নেওয়ায় এ নিয়ে কথা হচ্ছে।’

সিলেটের উইকেট নিয়ে অসন্তুষ্ট মোসাদ্দেক
ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপে মধ্যাঞ্চলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মোসাদ্দেক।

নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে দক্ষিণাঞ্চলের কাছে হেরে গিয়েছিলেন মোসাদ্দেকরা। হেরে গেলেও এই ম্যাচের উইকেট মনে ধরেছে মোসাদ্দেকের। তিনি বলেন, ‘প্রথম দুই ম্যাচে যে রানগুলো করে জিতেছি, খেয়াল করে দেখবেন প্রথম দুই ম্যাচের মত উইকেট কাল ছিল না। খুবই ভালো উইকেট ছিল, উইকেটের উন্নতি হয়েছে। উইকেট এমন থাকলে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ হবে।’

বাংলাদেশের ভেন্যুগুলোর উইকেট সমস্যা সমাধানে অনেকেই সিলেটকে বেশি ব্যবহারের দাবি তোলে থাকেন। যদিও মিরপুর ও চট্টগ্রামের তুলনায় এখানে শীর্ষ পর্যায়ের খেলা হয় তুলনামূলক কম। ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপের কারণে এবার সিলেটের পিচ নিয়েও হচ্ছে সমালোচনা।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনের চ্যাটে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime Crickey সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন। বিডিক্রিকটাইমের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি।