“সুযোগ পেলে আমিও স্টোকসের মতো হতে পারতাম”

0
2160

টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাট হাতে মঈন আলীর রেকর্ড খারাপ না, তবুও আফসোস আছে এই অলরাউন্ডারের। মঈনের বিশ্বাস, মিডল অর্ডারে নিয়মিত ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেলে নিজেকে স্টোকসের মতো করেই গড়ে তুলতে পারতেন।

সুযোগ পেলে আমিও স্টোকসের মতো হতে পারতাম
মঈন আলী

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলার জন্য বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আছেন মঈন। আইপিএল শেষে সেখানেই অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ স্কোয়াডেও আছেন মঈন। বিশ্বকাপ শেষে অ্যাশেজ খেলতে অস্ট্রেলিয়ায় যাবে ইংল্যান্ড। হয়তো সেই স্কোয়াডেও থাকতে পারতেন এই অলরাউন্ডার, তবে তার আগেই হঠাৎ করেই গতকাল (সোমবার) টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি

Advertisment

২০১৪ সালে মঈনের টেস্ট অভিষেক হয়। ৭ বছরের ক্যারিয়ারে খেলেছেন ৬৪টি ম্যাচ। বেশির ভাগ ম্যাচেই লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিং করতে হয়েছে তাকে। ১১১ ইনিংসে ২৮.২৯ গড়ে সংগ্রহ করেছেন ২৯১৪ রান। পাঁচটি সেঞ্চুরির পাশাপাশি আছে ১৪টি হাফ-সেঞ্চুরি। বল হাতে নিয়েছেন ১৯৫টি উইকেট।

অপরদিকে, মঈনের ছয় মাস আগে টেস্ট অভিষেক হওয়া স্টোকস খেলেছেন ৭১টি ম্যাচ। ১৩০ ইনিংসে ৩৭.০৪ গড়ে তার সংগ্রহ ৪৬৩১ রান। ১০টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি হাঁকিয়েছেন ২৪টি হাফ-সেঞ্চুরি। অবশ্য বল হাতে মঈনের চেয়ে বেশ পিছিয়ে আছেন স্টোকস। এই পেস অলরাউন্ডারের ঝুলিতে আছে ১৬৩টি উইকেট।

সুযোগ পেলে আমিও স্টোকসের মতো হতে পারতাম
বেন স্টোকস ও মঈন আলী

মঈন মনে করেন, যদি ব্যাট হাতেও তিনি স্টোকসের মতো সুযোগ পেতেন তাহলে তিনিও নিজেকে সেভাবেই গড়ে তুলতে পারতেন। ২০১৫ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্টোকস ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করার পরে অ্যালেস্টার কুক মঈনকে জানিয়েছিলেন যে, ৮ নং থেকে উন্নতি করে স্টোকসকে ৬ এ ব্যাটিং করানো হবে এবং মঈনকে পাঠানো হবে ৮ এ। এই সিদ্ধান্ত নিয়ে এখনো আফসোস আছে মঈনের।

মঈন বলেন, “ব্যাটিং নিয়ে আমার ভিন্ন চিন্তাভাবনা ছিল, নিজেকে একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচয় দিতেই স্বচ্ছন্দ বোধ করতাম। আমার মনে হয়, আমার ব্যাটিংকে বেশ নষ্ট করা হয়েছে। আমি যা করেছি তার চেয়েও ভালো কিছু করতে পারতাম। নিশ্চিত ভাবেই আরও কয়েকটা সেঞ্চুরি করতে পারতাম, আরও বেশি রান করতে পারতাম।”

তিনি আরও বলেন, “অবশ্যই স্টোকস একজন চমৎকার খেলোয়াড় হয়ে উঠেছেন। কিন্তু আমার মাঝেমাঝে মনে হয় যে এটা আমিও হতে পারতাম, যদি আমি আরেকটু বেশি সুযোগ পেতাম। আমি ওপরে ব্যাটিং করতে পছন্দ করতাম। ৬ নং সর্বশেষ ব্যাট করার দিনে আমি ৬০ রান করেছিলাম। আমি জানি, আমার কৌশল ও ধৈর্য আহামরি ছিল না, তবে সুযোগ পেলে আমি ঠিকই ভালো করতাম।”

সুযোগ পেলে আমিও স্টোকসের মতো হতে পারতাম
মঈন আলি

প্রসঙ্গত, টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও অন্যান্য সংস্করণে খেলা চালিয়ে যাবেন মঈন। অবসরের সিদ্ধান্ত জানানোর সাথে এই অলরাউন্ডার বলেন, তার বাবা-মায়ের জন্যই তিনি ক্যারিয়ারের সবগুলো ম্যাচ খেলেছেন। খারাপ সময়ে তার ভাই ও স্ত্রী-সন্তান তাকে কতটা বেশি সমর্থন দিয়েছেন তাও জানান তিনি।

মঈন আরও বলেন, ক্রিকেটে তার অনুপ্রেরণা ছিলেন সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা। আমলাকে দেখেই তার মতো স্বপ্ন দেখেছিলেন মঈন এবং সেভাবেই পথচলা শুরু হয় তার। সফলতাও পেয়েছেন এই ইংলিশ অলরাউন্ডার।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।