সেঞ্চুরির জন্য নয়, জেতানোর জন্য খেলছিলাম: নাইম

0
675

দল হেরে যাওয়ায় ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে আলো ছড়ানো নাইম শেখের উচ্ছ্বাস নেই। ভারতের বোলারদের সামনে দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা কোণঠাসা হয়ে পড়েছিলেন। অথচ ক্যারিয়ারের মাত্র তৃতীয় আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামা নাইম কত সাহসী! দিনশেষে তার সাহস থেকে কুড়নো প্রশংসাবাক্যেও এতটা তৃপ্তি নেই। কারণ, দল যে জিততে পারেনি!

সেঞ্চুরির জন্য নয়, জেতানোর জন্য খেলছিলাম নাইম

Advertisment

তরুণ নাইম অকপটে স্বীকার করেছেন- তিনি মারকুটে এই ইনিংস সাজাচ্ছিলেন দলকে জয়ীর আসনে দেখবেন বলেই। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে উড়ন্ত সূচনা করেছিল সফরকারী বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিকরা সমতা ফিরিয়ে আনলে শেষ ম্যাচ পায় ফাইনালের মর্যাদা।





সেই ফাইনাল ম্যাচে ৩০ রানের পরাজয় জুটলেও নাইম ছিলেন পূর্ণিমার চাঁদের মত উজ্জ্বল। মাত্র ৪৮ বলের মোকাবেলায় ৮১ রান! তিনি ছাড়া দুই অঙ্কের দেখা পেয়েছিলেন শুধু মোহাম্মদ মিঠুন, তাও বড় লক্ষ্য তাড়ায় ওয়ানডে মেজাজে খেলেছেন। নাইমের সাহসী ইনিংস আরেকটু দীর্ঘ না হওয়ায় বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছে। তাই নাইমের সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হওয়ার সন্তুষ্টিও অনেক কম।

দেশে ফেরার বিমান ধরার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ২০ বছর বয়সী ওপেনার বলেন, ‘ইনিংসে আমার বিরুদ্ধে করা ওদের সেরা বল ছিল এটা (যে বলে আউট হয়েছিলেন)। সেঞ্চুরির জন্য খেলিনি। দলকে জেতানোর জন্য খেলছিলাম। সেদিক থেকে সফল হইনি, খারাপ লেগেছে।’






টেস্ট দলে নেই, তাই ফিরছেন দেশে। দেশে ফিরেও ব্যস্ত সময় কাটবে। স্বাগতিক দলের সদস্য হিসেবে অংশ নেবেন ইমার্জিং এশিয়া কাপে। পেছনের প্রাপ্তি বা আক্ষেপ সবই পেছনে রেখে তাই আগামী নিয়েই তার ভাবনা।

নাইম বলেন, ‘এত কিছু চিন্তা করি না। বেশি রান করলাম কি না বা সর্বোচ্চ রান করেছি এগুলো নিয়ে চিন্তাই করি না। ম্যাচ টু ম্যাচ খেলার চেষ্টা করি। যা হওয়ার ম্যাচ শেষে হবেই। সামনে ইমার্জিং এশিয়া কাপ আছে। এটা নিয়েই এখন চিন্তা করছি।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।