স্কটল্যান্ড সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

২০১৯ সালের জুনে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার আগে স্কটল্যান্ড সফর করবে শ্রীলঙ্কা। ইংলিশ কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিতেই হয়তো লঙ্কানদের এ সিরিজ আয়োজন। শ্রীলঙ্কার স্কটল্যান্ড সফরের বিষয়টি ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করেছে স্কটল্যান্ডের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা ক্রিকেট স্কটল্যান্ড।

স্কটল্যান্ড সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

Advertisment

সোমবার ক্রিকেট স্কটল্যান্ড জানিয়েছে মে মাসে স্কটিশদের বিপক্ষে দুইটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলবে শ্রীলঙ্কা। ম্যাচ দুইটি অনুষ্ঠিত হবে ১৮ মে এবং ২১ মে। তবে ম্যাচের ভেন্যু এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

২০১৮ সালটা বেশ ভালো গেলেও ২০১৯ বিশ্বকাপের টিকিট পায়নি স্কটল্যান্ড। তবে এ বছর ইংল্যান্ডকে একমাত্র ওয়ানডেতে ছয় রানে হারিয়ে ক্রিকেটবিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল দলটি। স্কটল্যান্ডের ৩৭১ রানের জবাবে ইংল্যান্ড করেছিল ৩৬৫ রান। ঐ সিরিজে শতক হাঁকিয়ে ছিলেন স্কটল্যান্ডের ওপেনার কাইল কোয়েতজার।

আসন্ন সিরিজ নিয়ে কোয়েতজার বলেন, “আরেকটি পূর্ণ সদস্য দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে পেরে আমরা বেশ রোমাঞ্চিত। গত সিরিজ ১-১ এ ড্র হয়েছিল। এটি আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হবে। দেশের মাটিতে মাথভর্তি স্কটিশ সমর্থকের সামনে খেলার চাইতে ভালো আর কিছু হয় না। আমরা আমাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ও উন্নতির ধারা ধরে রাখতে বদ্ধপরিকর। এই দুটি ম্যাচের জন্য আমরা ভালোভাবে প্রস্তুতি নিব এবং জেতার জন্যই খেলব।” 

২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগেও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে দুইটি আনঅফিসিয়াল ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল শ্রীলঙ্কা। সেখানেও সবাইকে চমকে দেয় স্কটল্যান্ড।  ২৮৮ রান তাড়া করে প্রথম ম্যাচটি জিতে নিয়েছিল স্কটিশরা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে স্কটল্যান্ডকে নয় উইকেটে দেয় শ্রীলঙ্কা। ১-১ এ সমতায় শেষ হয় সিরিজ।

এর আগে ২০১১ সালে স্কটল্যান্ড সফর করেছিল লঙ্কানরা। ঐ ম্যাচে স্কটল্যান্ডকে ১৮৩ রানে হারায় শ্রীলঙ্কা। এছাড়া ২০১৫ বিশ্বকাপেও মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ঐ ম্যাচেও বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে শ্রীলঙ্কা।


আরো পড়ুনঃ  টেস্ট খেলা শেষ হলে কী করেন তাইজুল?