স্টেইনকে ভয়ের কথা অস্বীকার হাফিজের

0
1651

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলেছেন পাকিস্তানের ৩৮ বছর বয়সী অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। তবে তার আকস্মিক বিদায়কে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন অনেকেই। বলেছেন, হয়ত আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে ডেল স্টেইনকে মোকাবিলার ভয়েই হাফিজের এমন সিদ্ধান্ত।

Hafeez not afraid
ভয় পেয়ে নয়, ব্যক্তিগত কারণে অবসরের দাবি হাফিজের।

তবে সম্প্রতি পাকিস্তানের এক স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ ধরণের দাবিকে নিছকই অপপ্রচারণা বলে দাবি করেছেন হাফিজ। পাকিস্তানের হয়ে ১০ শতক ও ১২ অর্ধশতককের মাধ্যমে ৩৭.৬৪ গড়ে ৩,৬৫২ টেস্ট রান করা হাফিজের দাবি, কারও ব্যাপারে ভয় পেয়ে নয় বরং ব্যক্তিগত কারণেই তার হঠাৎ অবসর।

‘লোকে ভাবছে আমি দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনে স্টেইন ও রাবাদাকে খেলতে ভয় পাচ্ছি। বিষয়টি মোটেই তেমন নয়। আমি পারফ্ররম করতে পারছিলাম না বলেও অবসর নিইনি। আমি ব্যক্তিগত কারণেই টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলেছি,’ বলেন হাফিজ।

Advertisment

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমাকে তো একদিনের ক্রিকেটেও এই বোলারদের বিপক্ষে খেলতে হবে। আমি আমার পারফরম্যান্সের মাধ্যমেই এ-ধরণের কথার জবাব দেব।’

তবে হাফিজ নিজের মুখে স্বীকার না করলেও, পরিসংখ্যান কিন্তু ঠিকই বলছে যে স্টেইনের সামনে বরাবরই ভয়ে জড়সড় হয়ে যান তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত ১৫ বার স্টেইনের শিকার হয়েছেন তিনি, যা এমনকি বিশ্বরেকর্ডও বটে। একজন নির্দিষ্ট বোলারের হাতে আর কোনো ব্যাটসম্যানই এতবার আউট হননি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৩ বার ভারতের পেস বোলার জহির খানের শিকার হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার গ্রায়েম স্মিথ।

তবে জহিরের বিপক্ষে স্মিথের গড় যেখানে ১৯.০০, স্টেইনের বিপক্ষে হাফিজের গড় মাত্র ১০.৫৩। হাফিজ টেস্টে মোট ৮ বার, ওয়ানডেতে ৫ বার এবং টি-টোয়েন্টিতে ২ বার স্টেইনের বলে আউট হয়েছেন। সব মিলিয়ে তিনি স্টেইনের বিপক্ষে মোট ২৮ ইনিংসে ২২৬ বল খেলে ১৫৮ রান করেছেন।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে শুরু হবে পাকিস্তানের পাঁচ ওয়ানডে, তিন টেস্ট ও দুই টি-টোয়েন্টির সিরিজ।