‘স্বপ্ন কি প্রতিদিন পরিবর্তন হয়?’, গণমাধ্যমকে পাল্টা প্রশ্ন সাকিবের

স্কটল্যান্ডের কাছে এক হারেই যেন বদলে গিয়েছিল বাংলাদেশ দলের চেহারা। সেই হারে বাংলাদেশের সুপার টুয়েলভে অংশগ্রহণই পড়ে গিয়েছিল শঙ্কায়। যদিও ওমানকে হারিয়ে টাইগাররা আবারও ফিরেছে মূল পর্বে জায়গা করার দৌড়ে। তবে এমন সময়ে সাকিব আল হাসান মেজাজ হারালেন স্বপ্ন বা লক্ষ্য পরিবর্তনের প্রশ্নে।

স্বপ্ন পরিবর্তনের প্রশ্নে গণমাধ্যমের ওপর ক্ষেপলেন সাকিব
সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আল হাসান।

স্কটল্যান্ডের কাছে পরাজয়ের পর ওমানের বিপক্ষে ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার পর কষ্টার্জিত জয়- এমন পারফরম্যান্সের পরও বাংলাদেশের বিশ্বকাপ লক্ষ্য বড় আছে কি না, কিংবা পারফরম্যান্স নিয়ে এমন শঙ্কা জাগার পর সেমিফাইনালের মত মঞ্চ লক্ষ্য কি না- সংবাদ সম্মেলনে এমন এক প্রশ্নের জবাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাকিব।

Advertisment

তিনি বলেন, ‘স্বপ্ন কি প্রতিদিন পরিবর্তন হয় নাকি? প্রথমত আমাদের লক্ষ্য পরবর্তী স্টেজে কোয়ালিফাই করার। এরপর সেমিফাইনাল খেলা। আমরা যখন দেশ থেকে আসি, তখন তো আমাদের একটা বড় স্বপ্ন নিয়ে আসতে হবে। যদি বলেই আসি সব ম্যাচ হারব, আমরা হারতে যাচ্ছি, আপনার কি সেটা খুশি মনে নিবেন? নিলে এরপর থেকে আমরা এটা বলতেও পারি।’

পৃথক প্রশ্নের জবাবে সাকিব জানান, আপাতত কোয়ালিফাই করাই দলের মূল লক্ষ্য। তিনি বলেন, ‘প্রথম লক্ষ্য অবশ্যই কোয়ালিফাই করা। সেটা করতে পারলে অনেক ম্যাচ খেলার সুযোগ আসবে। অনেক ম্যাচ জিততে হলে তো আগে অনেক ম্যাচ খেলতে হবে। মূল পর্বে আমরা এখনও কোনো ম্যাচ জিততে পারিনি। প্রথমত তো আমাদের কোয়ালিফাই করতে হবে, তারপর সুপার টুয়েলভে আরও পাঁচটি ম্যাচ পাব।’

বাংলাদেশের সামর্থ্য কিংবা পারফরম্যান্স নিয়ে একটুআধটু যা প্রশ্ন উঠছে, তা সহযোগী দলগুলোর নজরকাড়া পারফরম্যান্সে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে টেস্ট খেলুড়ে দলের বিপক্ষে সহযোগী দলগুলোর আধিপত্যে সাকিব কৃতিত্ব দিতে কার্পণ্য করলেন না।

তিনি বলেন, ‘যারা সহযোগী দেশ, তাদের অনেক কৃতিত্ব দিতে হয়। ওরা অনেক প্রতিকূলতার মাঝে খেলাধুলা করে। তারপরও এত ভালো ক্রিকেট খেলছে, এজন্য ওদের কৃতিত্ব প্রাপ্য।’

সাকিবের মতে, টি-টোয়েন্টিতে কোনো দলই ফেভারিট নয়। তার ভাষায়, ‘টি-টোয়েন্টি এমন এক ফরম্যাট যেখানে কেউই ফেভারিট না। সবাইকেই ভালো ক্রিকেট খেলতে হয়। যেহেতু আমরা টেস্ট খেলুড়ে দল, আপনাদের প্রত্যাশা অবশ্যই থাকবে। আমরাও আশা করি জেতার। এটা আসলে সবসময় সম্ভব হয় না।’

‘আমাদের চেয়ে অনেক বড় বড় দল আছে, তারাও প্রত্যাশা করে আমাদের সাথে জিততে। তাদের সাথে যখন জিতে যাই তারাও হয়ত এরকমই চিন্তা করে। ক্রিকেট খেলাটাই আসলে এমন।’– বলেন সাকিব।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।