Score

সড়কপথে সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ নাসিরের

ঈদ এলেই বেড়ে যায় সড়ক ও নৌপথে দুর্ঘটনা। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নৌ-দুর্ঘটনা মোকাবেলা করা একটু জটিল হলেও একটু সচেতন হলেই সম্ভব সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিহত করা।

সড়কপথে সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ নাসিরের
নাসির হোসেন। ছবিঃ টুইটার

প্রতি বছর ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে মহাসড়কগুলোতে। মানুষ আর গাড়ির চাপে বাড়ে দুর্ঘটনার শঙ্কা। কেউ কেউ আবার ঈদের ছুটিতে ফাঁকা রাস্তায় লাগামহীন গতিতে চালাতে গিয়ে পড়েন দুর্ঘটনায়। তাদের জন্য নাসির হোসেন রেখেছেন পরামর্শ।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার ঈদ উপলক্ষ্যে নিজের ফেসবুক পেইজে আপলোড করা এক ভিডিও বার্তায় সবাইকে সতর্কতার সাথে সড়কপথে যানবাহন ব্যবহারের আহ্বান জানান। ইনজুরি সারানোর অস্ত্রোপচারের কারণে বর্তমানে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারছেন না নাসির। তাই ভিডিও ধারণ করার সময় আয়েশি বিছানায় বসে ছিলেন তিনি।

Also Read - ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ক্রিকেটাররা

পায়ের লিগামেন্টের অস্ত্রোপচারের পর পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় থাকা নাসির ভিডিও বার্তার শুরুতে জানান ঈদ-শুভেচ্ছা। তিনি বলেন, ‘আসসালামু আলাইকুম। আমার পক্ষ থেকে সবাইকে জানাচ্ছি পবিত্র ঈদ উল ফিতরের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক।’

পরিবার থেকে দূরে থেকে ঈদ কাটাতে হয়েছে সুদূর অস্ট্রেলিয়ায়। নাসির অনুভবে খুঁজে ফিরছেন বাংলাদেশকে। তিনি বলেন, ‘এই ঈদে আমি আমার ফ্যামিলি আর আপনাদের সবাইকে অনেক মিস করছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন, যাতে আমি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠতে পারি।’

পরক্ষণেই নাসির সমর্থকদের প্রতি রেখেছেন তার বিশেষ পরামর্শটি, যা তার দৃষ্টিতে অনুরোধ-

‘আপনাদের কাছে আমার একটা বিশেষ অনুরোধ। সেটা হচ্ছে… ঈদে কিন্তু অনেক এক্সিডেন্ট (দুর্ঘটনা) হয়। তাই আপনারা যারা-ই বাইক (মোটরসাইকেল) বা গাড়ি চালান না কেন, একটু সতর্কভাবে বাইক বা গাড়ি চালাবেন।’

নিদাহাস ট্রফি আর সর্বশেষ মৌসুমের ঘরোয়া ক্রিকেট শেষ করে সিরাজগঞ্জে ফুটবল খেলতে গিয়ে পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায় নাসির হোসেনের। এরপর চলতি মাসের ৮ তারিখ অস্ট্রেলিয়ায় তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। পুরো সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরতে নাসিরের লাগবে প্রায় আট মাস।

আরও পড়ুনঃ বিদ্রোহ ভাঙলেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা

Related Articles

প্রস্তুতি নিতে বাড়ি যাননি তামিম

প্রবাসীদের সাথে সাকিবের ঈদ আড্ডা

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ঈদ আনন্দে বিডিক্রিকটাইম