Scores

হৃদয়ের বিশ্বরেকর্ডে বাংলাদেশের বড় সংগ্রহ

শ্রীলঙ্কার যুবাদের বিপক্ষে আগের তিন ম্যাচের ধারাবাহিকতা আজও ধরে রাখলেন তৌহিদ হৃদয়। সিরিজের শেষ ম্যাচেও সেঞ্চুরি হাঁকালেন তিনি। যা তাকে এনে দিল অনন্য এক অর্জন। যুব ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকানোর বিশ্বরেকর্ড গড়লেন তিনি। তার রেকর্ড গড়া ১১১ রানের ইনিংসে চড়ে ২৮৩ রানের বড় সংগ্রহের দেখা পেয়েছে স্বাগতিক যুবারা।

হৃদয়ের শতকে রান পাহাড়ে যুবারা

নিয়মরক্ষার ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিকরা। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় স্বাগতিক যুবারা। ম্যাচের প্রথম ওভারেই হারিয়ে বসে উইকেট। নিয়মিত ওপেনার তানজিদ হাসানের বিশ্রামে একাদশে সুযোগ পেয়েছিলেন প্রিতম কুমার। তবে সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। ১ রান করে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন তিনি।

Also Read - ঐতিহাসিক টেস্ট খেলতে কলকাতায় টাইগাররা


তার বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন সাজিদ হোসেন ও প্রান্তিক নওরোজ। প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দিয়ে দু’জনে গড়েন ৫৭ রানের জুটি। ৪২ বলে ২১ রান করে সাজিদ আউট হলে ভাঙ্গে এ উইকেট জুটি। এরপর ক্রিজে আসেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা হৃদয়।

পুরো সিরিজজুড়ে দাপুটে ব্যাট করা হৃদয় শুরু থেকেই থাকেন আক্রমণাত্বক। দ্রুতগতিতে রান তুলতে থাকেন তিনি। তার সাথে পাল্লা দিয়ে স্কোরবোর্ডকে এগিয়ে নিতে থাকেন নওরোজও। দ্রুতই দেখা পেয়ে যান হাফসেঞ্চুরির। তবে মাইলফলক স্পর্শের পর বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি তিনি।


দিলুম সুধেরার বলে রোহান সানজায়ার হাতে ক্যাচ দিলে থামে তার ইনিংস। আউটের আগে অবশ্য ৭৭ বলে করেন ৪ ও ২ ছক্কায় ৬৫ রান। তার বিদায়ে দলীয় ১২৭ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

সেট ব্যাটসম্যানের উইকেট হারালেও এর প্রভাব ম্যাচে পড়তে দেননি হৃদয়। রানের চাকা সচল রেখে দলের সংগ্রহ বাড়িয়ে নিয়ে চলেন তিনি। চতুর্থ উইকেটে পারভেজ হোসেনের সাথে গড়েন ইনিংসের সেরা ১০০ রানের জুটি। ৩৮ রান করে পারভেজ আউট হলে বিচ্ছিন্ন হয় তাদের জুটি।

এরপর দ্রুত সাজঘরে ফিরে যান শামীম হোসেন (১) ও আকবর আলী (২)। নির্ভরযোগ্য দুই ব্যাটসম্যানের দ্রুত বিদায়ে কিছুটা ভাটা পড়ে শেষদিকের রান তোলার গতিতে। এমন চাপে আরও একবার নিজের সামর্থ্যর প্রমাণ দেন হৃদয়।

যুব ক্রিকেট ইতিহাসে টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি করার বিশ্বরেকর্ড গড়ে দলকে বড় সংগ্রহ এনে দেন তিনি। শেষ পর্যন্ত তার ১১১ রানের ইনিংসে চড়ে ৭ উইকেটে ২৮৩ রানের পূঁজি পায় স্বাগতিক যুবারা। ৩ চার ও ৫ ছক্কায় রেকর্ড গড়া ইনিংসটি সাজান তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দল: ২৮৩/৭ (৫০ ওভার)

হৃদয় ১১১, প্রান্তিক ৬৫, পারভেজ ৩৮, অভিষেক ২৪; রোহান ১০-০-৫৭-২।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

বিশ্বকাপজয়ী তামিম-হৃদয়দের কাছে মোহামেডানের পরাজয়

বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারদের শাস্তি কমাতে ব্যবস্থা নিচ্ছে বিসিবি

তৌহিদের সামনে বড় মঞ্চে সফল হওয়ার চ্যালেঞ্জ

শ্রীলঙ্কাকে শূন্য হাতেই ফেরাল বাংলার যুবারা

হৃদয়ের সেঞ্চুরিতে যুবাদের সিরিজ জয়