হ্যাঁ, আমি নামাজ পড়ি তবে ক্রিকেটের ক্ষতি করে নয় : ওয়াসিম জাফর

0
773

ভারতের রঞ্জি ট্রফির দল উত্তরাখণ্ডের হেড কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ওয়াসিম জাফর। সেই সাথে তার বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত আনার অভিযোগও উড়িয়ে দেন তিনি।

বিসিবি হাই পারফরম্যান্স দলের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে ছিলেন জাফর। ছবিঃ ইন্সটাগ্রাম

রঞ্জি ট্রফিতে বছরের পর বছর ব্যাট হাতে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন ওয়াসিম জাফর। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের রেকর্ড অতোটা উজ্জ্বল না হলে ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাট হাতে দ্যুতি ছড়িয়েছেন ভারতের এই সাবেক ক্রিকেটার। গত বছরই সব ধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানান তিনি। তারপরেই ঘরোয়া ক্রিকেটে উত্তরাখণ্ডের হেড কোচের নিয়োগ পান তিনি।

Advertisment

তবে সম্প্রতি সময়ে তার বিরুদ্ধে ধর্মীয় গোঁড়ামির অভিযোগ এনেছেন উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সচিব মহিম ভার্মা। ওয়াসিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন অনুশীলনের সময় নামাজ পড়ে দলের ক্ষতি করছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি নিজেই।

“হ্যাঁ আমি নামাজ পড়ি। তবে নামাজপড়তে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় তো লাগে না। ক্রিকেটের ক্ষতি হয় না। এটা কয়েক মিনিটের ব্যাপার। আমি কিন্তু ক্রিকেটের ক্ষতি করিনি। কারণ ওয়াসিম জাফরকে একজন মুসলমান নয়, সবাই ভারতের একজন প্রাক্তন ক্রিকেটার হিসেবেই সম্মান করে। শুধু উত্তরাখণ্ড ক্রিকেট সংস্থার গুটিকয়েক নির্বোধ কর্তা ছাড়া।”

শুধু এটিই নয় ওয়াসিম জাফরের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ তোলেন তিনি নাকি মুসলিম বলে ইকবাল আবদুল্লাহকে দলের অধিনায়ক বানাতে সুপারিশ করেছেন তিনি। তবে এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন জাফর। তিনি বলেন স্বয়ং নির্বাচকই তাকে অধিনায়ক বানাতে চেয়েছিল।

“আমি নাকি ইকবাল আবদুল্লাকে অধিনায়ক করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যে। আমি জয় বিস্তকে অধিনায়ক করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু রিজওয়ান শামসাদ এবং অন্যান্য নির্বাচকরাই ইকবালকে অধিনায়ক করার কথা বলেন আমাকে। কারণ ইকবাল আবদুল্লার আইপিএলে খেলার অভিজ্ঞতাও ছিল, তাছাড়া ও দলের অন্যতম সিনিয়র খেলোয়াড়। আমিও তাতে রাজি হয়ে যাই।”

ওয়াসিম জাফরের বিরুদ্ধ আরও অভিযোগ উঠে নামাজ পড়তে তিনি জানি জৈব সুরক্ষা বলয়কে পাত্তা না দিয়ে ইমাম ডাকেন তিনি। তবে তার বিরুদ্ধে উঠা এই অভিযোগও প্রত্যাখ্যান করেন তিনি। এই ইস্যুতে তিনি বলেন,

“একটা কথা পরিষ্কার জানিয়ে দিই যে মৌলবীরা কিন্তু আমার কথায় আসেননি। দলের ম্যানেজারের অনুমতি নেওয়ার পর ইকবাল ওই মৌলবীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। তার পর ওঁরা দুই-তিনবার আসেন। তাই এখানে আমাকে জড়ানোর কোনও প্রশ্নই আসে না।”

উল্লেখ্য, গত বছর হাই পারফরম্যান্স দলের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে ওয়াসিম জাফরকে নিয়োগ দেয় বিসিবি। তার অধীনে কাজ করেন জাতীয় দলের সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকাররা। এছাড়াও বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী স্কোয়াডের ব্যাটসম্যানদের নিয়েও কাজ করেন তিনি।