০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ঢাকার লজ্জার রেকর্ড

0
4472

চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) চতুর্থ রাউন্ডের প্রথম দিনে কোনো রান যোগ করার আগেই চারটি উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা বিভাগ। আর এতেই লজ্জার এক রেকর্ডে নাম উঠেছে দলটির।

০ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে ঢাকার লজ্জার রেকর্ড
৭ উইকেট শিকার করেছেন সিলেটের নাসুম আহমেদ

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলা হচ্ছে প্রায় দুই শতাব্দী ধরে। টেস্ট ক্রিকেট চলছে প্রায় ১৪৪ ধরে। এই দীর্ঘ ইতিহাসে মাত্র ১২ বার কোনো দল রান যোগ করার আগেই হারিয়েছে প্রথম চারটি উইকেট। এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা প্রথমবারের মতো ঘটল বাংলাদেশ ক্রিকেটে। এই লজ্জার রেকর্ডে নাম লিখিয়েছে ঢাকা বিভাগ।

Advertisment

সিলেট বিভাগের বিপক্ষে টস হেরে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নামে ঢাকা বিভাগ। সদ্য সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ফেরা নাসুম আহমেদ একাই ধ্বসিয়ে দেন ঢাকাকে। প্রথম চার উইকেটের তিনটিই নাসুম শিকার করেন। অপর একটি উইকেট নেন এবাদত হোসেন।

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই রনি তালুকদারকে শিকার করেন নাসুম। ওই ওভারের তৃতীয় বলে বোল্ড করেন জয়রাজ শেখকে এবং শেষ বলে রকিবুল হাসানকেও শিকার করেন এই বাঁহাতি স্পিনার। পরের ওভারের প্রথম বলেই আব্দুল মজিদকে সাজঘরের পথ দেখান এবাদত। ফলে স্কোর কার্ডে ০ রেখেই সাজঘরে ফেরেন ঢাকার চার ব্যাটার।

ঢাকার এই লজ্জার রেকর্ডের আগে এমন ঘটনা সর্বশেষ ঘটেছিল ২০১৫-১৬ মৌসুমে পাকিস্তানের কায়েদে আজম ট্রফিতে। ০ রানেই ৭ উইকেট হারানোর রেকর্ডও আছে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে। ১৮৭২ সালে ০ রানেই ৭ উইকেট হারিয়েছিল মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে একবারই শুন্য রানে চার উইকেট হারানোর ঘটনা ঘটেছে। ১৯৫২ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেডিংলি টেস্টে এই বিপর্যয়ের শিকার হয়েছিল ভারত। কোনো রান যোগ করার আগেই সেই ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে সাজঘরে ফিরেছিলেন ভারতের প্রথম চারজন ব্যাটার।

বিশ্বকাপের খেলা সরাসরি দেখতে ক্লিক করুন এখানে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।