১০ রানে জিতে সিরিজে টিকে রইলো বাঘিনীরা


পাঁচ ম্যাচের সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দলের বিরুদ্ধে হেরে বেশ কোণঠাসা হয়ে গিয়েছিলো বাংলাদেশের মেয়েরা। বাঘিনীদের জন্য তৃতীয় ওয়ানডে হয়ে দাঁড়িয়েছিলো বাঁচা-মরার লড়াই। তৃতীয় ম্যাচে ১০ রানে জিতে সিরিজে টিকে রইলো বাঘিনীরা।

শুরুতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ নারী দল। শুরুটা দেখেশুনে করেন দুই ওপেনার শারমিন আক্তার ও শারমিন সুলতানা। দুই শারমিন গড়েন ৪২ রানের জুটি। মার্সিয়া লেটসোয়ালোর বলে ১৭ রান করে বিদায় নেন শারমিন আক্তার। পরের ওভারে ওদিনে কার্স্টেন ফেরান শারমিন সুলতানাকে। ২১ রান করেন এ অভিষিক্ত।

দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। বিপর্যয় কিছুটা সামাল দেন অধিনায়ক রুমানা আহমেদ। ৫৮ বলে দলীয় সর্বোচ্চ ২৮ রান আসে তার ব্যাট থেকে। এরপর দলীয় ১০৪ রানের মাথায় সানজিদা ইসলামকে বোল্ড করেন খাকা। এরপর তাসের ঘরের মতো বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন ভেঙে পড়ে। ১৩৬ রানেই অলআউট হয়ে যায় বাঘিনীরা। সালনা, লতা ও নাহিদা শুন্য করেন।

Also Read - "মুশফিকের ঘটনায় আমরা দুঃখিত"


প্রথম থেকেই ধুঁকতে থাকে সফরকারীরা। তৃতীয় ওভারে খাদিজা তুল কুবরা বোল্ড করেন অ্যান্ড্রি স্টেইনকে। নিজের বলে নিজে ক্যাচ ধরে ডু প্রিজকে ফেরান জাহানারা আলম। তবে ওপেনার লিজেলি লি দারুণ ব্যাট করতে থাকেন। ৩১ বলে ৪৬ রান করে খাদিজার দ্বিতীয় শিকার হন লি। দলীয় ৬০ রানের মাথায় ক্যাপ সাজঘরে ফিরলে বিপাকে পড়ে প্রোটিয়ারা।

ক্যাপের বিদায়ের পরের ওভারেই আঘাত হানেন জাহানারা। ফিরিয়ে দেন ট্রিয়নকে। এরপর ৬৭ রানের মাথায় টানা দুই বলে লুস ও জাফতাকে ফিরিয়ে দেন খাদিজা। এতে করে খেলা বাংলাদেশের অনুকূলে চলে আসে। তবে হুমকি হয়ে দাঁড়ায় নিকার্ক। তবে অন্য প্রান্তে আসা-যাওয়া চলতে থাকে। শেষ উইকেট জুটিতে ৩০ রান যোগ করলেও তা হারের ব্যবধানই কমায়। ১২৬ রান করেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

-আজমল তানজীম সাকির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম ডট কম 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন