২০ নাকি ২৩ বলে ফিফটি করেছিলেন মোসাদ্দেক?

0
1022

শুক্রবার (১৭ মে) ত্রিদেশীয় সিরিজে উইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথমবারের মত শিরোপা ঘরে তুলেছে বাংলাদেশ। তবে শিরোপা জয় ছাপিয়ে এখন আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত কত বলে অর্ধশতক করেছিলেন সেটা। এই বির্তকের জন্ম হয়েছে, ম্যাচ চলাকালীন জনপ্রিয় কিছু ক্রিকেট ওয়েবসাইটের হিসাবের ভুলে।

মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত @ছবি- এএফপি

 

Advertisment

মোসাদ্দেক যখন ক্রিজে আসলেন তখনও বাংলাদেশের ভাগ্য ঝুলছিল। কিন্তু মাহমুদউল্লাহের সাথে জুটই বেধে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলছিলেন মোসাদ্দেক। সময়ের সাথে সাথে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের রান তোলার গতি বাড়ছিল। সেই সাথে ম্যাচও হেলে পড়ছিল বাংলাদেশের দিকে। তবে মোসাদ্দেকের বল খেলার হিসাবে ভুল দেখানো হয় স্কোর কার্ডে। ১৮তম ওভারে টানা তিনটি ডট বল মোসাদ্দেক খেললেও ইএসপিএন ক্রিকইনফো, ক্রিকবাজের মতো জনপ্রিয় সাইটগুলোতে দেখানো হয় সেগুলো রিয়াদের খেল বল হিসাবে।

কিন্তু পরবর্তীতে ম্যাচের ভিডিও দেখে এটা নিশ্চিত করা হয়েছে, রিয়াদ নয় বলগুলো মোকাবেলা করেছিলেন মোসাদ্দেকই। ভিডিওতে দেখা যায়, ১৯ বলে ৪৮ রান তুলে ফেলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তারপরেই ১৮তম ওভারে ফ্যবিয়ান অ্যালেনের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম- এই তিনটি বল খেলে কোনো রান করতে পারেননি। ২২ বলে ৪৮ রানে অপরাজিত থাকা মোসাদ্দেক ২৩তম বলে ২ রান নিয়ে অর্ধশতক পূর্ণ করেন। ফলে মোহাম্মদ আশরাফুল ও আব্দুর রাজ্জাকের ২১ বলে করা অর্ধশতকই এখনো বাংলাদেশের দ্রুততম অর্ধশতকের রেকর্ড ধরে রাখল।

বাংলাদেশের পক্ষে ২০০৫ সালে মাত্র ২১ বলে অর্ধশতক তুলে নেন মোহাম্মদ আশরাফুল। এই রেকর্ডটি ৮ বছর ধরে এককভাবে তারই ছিল। ২০১৩ সালে আশরাফুলের রেকর্ডে ভাগ বসান আব্দুর রাজ্জাক। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঝড়ো ইনিংস খেলে  ২১ বলে ফিফটি করেন এই বাঁহাতি ক্রিকেটারও।

২৩ বলে অর্ধশতক বাংলাদেশের পক্ষে দ্বিতীয় দ্রুততম অর্ধশতক। ম্যাচ শেষে স্কোর কার্ডে মোসাদ্দেককে ২৪ বলে ৫২ রানে অপরাজিত দেখালেও সেটা আসলে ২৭ বলে ৫২ রান হবে। উল্লেখ্য, বল নিয়ে হিসাবের বির্তকের এই ঝড়ো ইনিংস খেলেই বাংলাদেশকে ম্যাচ জিতিয়েছেন তিনি। ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতেছেন মোসাদ্দেক।