Scores

৮৫ রানে অলআউট করার পর ৩৮ রানে শেষ আয়ারল্যান্ড

লর্ডসে  প্রথম টেস্টের গল্প রচনার হাতছানি ছিল আয়ারল্যান্ডের সামনে। লক্ষ্য ছিল ১৮২ রান। তবে যে ইতিহাস গড়েছে আয়ারল্যান্ড সেটা তাদের চাওয়া ছিল না। মাত্র ৩৮ রান করে গুটিয়ে যায় তারা। প্রথম ইনিংসে ৮৫ রানে অলআউট হওয়া ইংল্যান্ড যেন এবার ঝালটা মেটাল।

৮৫ রানে অলআউট করার পর ৩৮ রানে শেষ আয়ারল্যান্ড

৯ উইকেটে ৩০৩ রান নিয়ে দিন শুরু করে ইংল্যান্ড। তৃতীয় দিন কোনো রান তুলতে পারেনি স্বাগতিকরা। স্টুয়ার্ট থম্পসনের বলে বোল্ড হন ওয়েলি স্টোন। প্রথম ইনিংসে ৮৫ রান করেছিল ইংল্যান্ড। আয়ারল্যান্ড ১২২ রানের লিড নেয় প্রথম ইনিংসে। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড ৩০৩ রান করে অলআউট হলে ১৮২ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায় আয়ারল্যান্ডের সামনে।

জবাব দিতে নেমে মাত্র ১৫ ওভার ৪ বল টিকতে পেরেছে আয়ারল্যান্ড। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বিদায় নেন উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক ক্রিস ওকসের বলে ২ রান করে ফেরত যান উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে। এরপর অ্যান্ডি ব্যালবিরনিকে (৫) সাজঘরে পাথান স্টুয়ার্ট ব্রড। পরের ওভারে পল স্টার্লিংকে বোল্ড করে দেন ক্রিস ওকস। ১৯ রানে ৩ উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। পরের ৭ উইকেটে সংগ্রহ করে আর মাত্র ১৯।

Also Read - বাংলাদেশের সামনে বড় লক্ষ্য


স্টার্লিংয়ের উইকেট তুলে নেওয়ার পরের ওভারে আবারো আঘাত হানেন ক্রিস ওকস। এবার আর শিকার হন জেমস ম্যাককলাম। ১৭ বলে ১১ রান করে ওকসের বলে জো রুটের হাতে ক্যাচ দেন ম্যাককলাম। এক বল পর গ্যারি উইলসনকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন ক্রিস ওকস। ২৪ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় আয়ারল্যান্ড।  পরের ওভারে কেভিন ও’ব্রায়েনকে এলবিডব্লিউ করেন স্টুয়ার্ট ব্রড।

ধ্বংসস্তুপ থেকে আর মাথা তুলে দাড়াঁতে পারেনি আয়ারল্যান্ড। কোনো ব্যাটসম্যানই দৃঢ়তা দেখাতে পারেননি। দলীয় ৩২ রানের মাথায় মার্ক অ্যাডেয়ারকে বোল্ড করেন ব্রড। দুই প্রান্ত থেকে ব্রড আর ওকস মিলেই ধসিয়ে দেন আয়ারল্যান্ডকে। এ দুই বোলারকেই ব্যবহার করেছেন ইংলিশ ক্যাপ্টেন। এরপর স্টুয়ার্ট থম্পসনকে ফিরিয়ে দেন ক্রিস ওকস।

পরের ওভারে অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইনের উইকেট তুলে নেন ব্রড। উইকেট হারানোর ধারা বজায় ছিল চার ওভার ধরে। পরের ওভারে টিম মুরটাঘকে বোল্ড করেন ক্রিস ওকস। সেটিই ছিল আইরিশদের কফিনে শেষ পেরেক। আয়ারল্যান্ডের এ ৩৮ রান টেস্ট ইতিহাসের সপ্তম সর্বনিম্ন স্কোর। টেস্টে সবচেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ার রেকর্ডটা নিউজিল্যান্ডের। ২৬ রানে তারা অলআউট হয়েছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর : ইংল্যান্ড ৮৫/১০, প্রথম ইনিংস, ২৩.৪ ওভার
ডেনলি ২৩, স্টোন ১৯, কারান ১৮
মুরটাঘ ৫/১৩, অ্যাডেয়ার ৩/৩২, র‍্যাঙ্কিন ২/২

আয়ারল্যান্ড ২০৭/১০, প্রথম ইনিংস, ৫৮.২ ওভার
ব্যালবিরনি ৫৫, স্টার্লিং ৩৬, কেভিন ২৮*
ব্রড ৩/৬০,  স্টোন ৩/২৯, কারান ৩/২৮

ইংল্যান্ড ৩০৩/১০, দ্বিতীয় ইনিংস, ৭৭.৫ ওভার
লিচ ৯২, রয় ৭২, কারান ৩৭
থম্পসন ৩/৪৪, অ্যাডেয়ার ৩/৬৬,  র‍্যাঙ্কিন ২/৮৬

আয়ারল্যান্ড ৩৮/১০, দ্বিতীয় ইনিংস, ১৫.৪ ওভার
ম্যাককলম ১১, অ্যাডেয়ার ৮, ব্যালবিরনি ৫
ওকস ৬/১৭, ব্রড ৪/১৯


আরো পড়ুন : স্পোর্টসম্যানশিপের অনন্য নজির স্থাপন করলেন মেন্ডিস 


 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

চূড়ান্ত হলো অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের ১৬ দল

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করল আয়ারল্যান্ড

আইরিশদের হারিয়ে আরব আমিরাতের চমক

স্বেচ্ছায় পাকিস্তানে খেলতে যেতে চায় আয়ারল্যান্ড!

স্রোতের বিপরীতে হাঁটলেন পল স্টার্লিং