কোড অব কন্ডাক্ট থেকে বেশি বলাতেই তামিমের শুনানি

বৃহস্পতিবার দিনভর ক্রিকেট অঙ্গনে আলোচনা ছিল তামিম ইকবালের শুনানিতে ডাক পাওয়া প্রসঙ্গে। বিপিএল চলাকালে উইকেট নিয়ে সমালোচনা করায় তাকে এই শুনানিতে ডাকে বিসিবি। যার কারণে টি-টেন ক্রিকেট টুর্নামেন্টেও নির্ধারিত সময়ে যোগ দিতে পারেননি বাঁহাতি এই ড্যাশিং ওপেনার।

কোড অব কন্ডাক্ট থেকে বেশি বলাতেই তামিমের শুনানি

তামিমের শুনানি শেষে বিসিবির গ্রাউন্ডস কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুব আনাম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, উইকেট নিয়ে তামিমের সমালোচনার প্রেক্ষিতে কী সিদ্ধান্ত নেবে তা বোর্ডের অভ্যন্তরীন বিষয়। সবার সামনে বলা যাবে না। আপনাদের বুঝতে হবে আমাদের ডেকোরাম আছে। তাছাড়া তামিম জাতীয় দলের প্লেয়ার। আমরা তাকে যা জিজ্ঞেস করেছি এবং সে যা বলেছে সেটা আমাদের দুই পক্ষের মধ্যেই থাকবে। তবে এটুকুই বলতে পারি উনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

Also Read - বিজয় দিবসের ক্রিকেটে সাবেকদের মিলনমেলা

মূলত বিসিবির কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গ করায়ই তামিমকে মুখোমুখি হতে হয়েছে এই শুনানির। মাহবুব আনাম আরও বলেন, শব্দচয়ন কীভাবে আপনি করবেন এবং কতটুকু বলতে পারবেন সেটা সামগ্রিকভাবে আন্তর্জাতিকভাবে সকল প্লেয়ারের জানা উচিত। আপনি অবশ্যই বলতে পারেন এটি একটি ডাবল পেসড উইকেট, টার্নিং উইকেট। এমনটি আপনি ফাস্ট উইকেটও বলতে পারেন। তিনি বলতে পারতেন আরও কুইক বল আসলে আমি আরও স্ট্রোক খেলতে পারতাম। কোড অব কন্ডাক্টে বলা আছে তিনি কী বলতে পারবেন। কোড অব কন্ডাক্টে যে সীমাবদ্ধতা আছে তার থেকে বেশি করেছে বলেই তাকে ডেকেছি।

এদিকে দুঃখ প্রকাশ করে তামিম বলেন, ‘উনারা উনাদের কনসার্নটা আমাকে জানিয়েছেন। আমার মনে হয় উইকেট নিয়ে আমি যে ভাষায় কথা বলেছি সেগুলো আরও সুন্দর হতে পারতো। আমি হয়তো জিনিসটা ভালোভাবে বলতে পারিনি। এটাই উনাদের কাছে আমার বলার ছিল এবং উনারাও বিষয়টা সুন্দরভাবে নিয়েছেন।

তামিম বলেন,তারা আমাকে বলেছেন কারণ আমি বাংলাদেশের জন্য খেলি। এবং বিসিবি আমার অভিভাবক। গ্রাউন্ড, উইকেট এবং আউটফিল্ডস এসবই আমাদের সম্পদ। ভবিষ্যতে এটার বিষয়ে আমি আরও সতর্ক থাকবো।’

আরও পড়ুনঃ শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য সূচি প্রকাশ বিসিবির

1 of 1