SCORE

সর্বশেষ

জাতীয় লিগে ছয় বছর পর ফিরছেন তাসকিন

বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম আকর্ষণ জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) দীর্ঘ ছয় বছরের লম্বা বিরতির পর আবারও ফিরতে যাচ্ছেন জাতীয় দলের তরুণ গতিতারকা তাসকিন আহমেদ।

পেসারদের জন্য অন্যরকম চ্যালেঞ্জ দেখছেন তাসকিন

বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ১৯তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) শেষ রাউন্ডে ঢাকা মেট্রোর হয়ে ২০১১ সালের পর আবারও মাঠে নামতে যাচ্ছেন ২২ বছর বয়সী তাসকিন আহমেদ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাসকিন আহমেদ নিজেই।

Also Read - অস্ট্রেলিয়ার অ্যাশেজ পুনরুদ্ধার

নিউজ পোর্টাল জাগো নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সোমবার তাসকিন নিশ্চিত করেন জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডে তার খেলার খবরটি। এসময় লম্বা সময় ধরে জাতীয় লিগে না খেলার কারণও ব্যাখ্যা করেন তিনি। হাঁটুর ইঞ্জুরির জন্যই ২০১১ সালের পর থেকে জাতীয় ক্রিকেট লিগে তার খেলা হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার হাঁটুর ইনজুরির কারণে দেড় বছর মূলত খেলার সুযোগ পাইনি। তাছাড়াও জাতীয় দলের শিডিউলের কারণেও খেলতে পারিনি। আমি শেষ চার দিনের ম্যাচ খেলেছিলাম ২০১১ সালের শেষ দিকে। পিংক বলে ডে-নাইট যে ফাইনালটি হয়েছিল সেটি।’

এতদিন যাবত ঘরোয়া ক্রিকেটের জনপ্রিয় এই আসরে না খেললেও, প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে না পারায় অনেক কিছু মিস করেছেন বলেও এসময় জানান তিনি। ‘আমি ঘরোয়া ক্রিকেটটা বেশ মিস করতাম। তাই সব সময় চেয়েছি ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরতে।’

দীর্ঘ ৬ বছর পর ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরে আবারও কি বিরতি নিবেন নাকি নিয়মিতভাবে খেলে যাবেন জাতীয় লিগে এমন প্রশ্নের জবাবে অবশ্য জাতীয় দলের শিডিউল প্রসঙ্গ তুলে আনেন তাসকিন। জানান ইঞ্জুরি আর জাতীয় দলের সূচিতে সমস্যা না হলে তবেই নিয়মিতভাবে খেলে যাবেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। ‘ইনজুরি আর জাতীয় দলের শিডিউল না থাকলে এবার ধারাবাহিকভাবেই খেলতে চাই।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে এতদিন নিয়মিত না হলেও ইতোমধ্যে সাদা পোশাকে জাতীয় দলের হয়ে ক্রিকেটের সবচেয়ে গৌরবময় ফরম্যাট টেস্টে অভিষেক ঘটেছে তাসকিনের। অভিষেকের পর ৫টি টেস্ট ম্যাচও খেলেছেন তিনি।


আরও পড়ুনঃ অস্ট্রেলিয়ার অ্যাশেজ পুনরুদ্ধার

1 of 1

Related Articles

ঘরোয়া লঙ্গার ভার্শনে মনোযোগ মাশরাফির

বিসিএলের চতুর্থ রাউন্ডে খেলবেন রিয়াদ-মুশফিক

অথচ এখনও এনসিএলের পারিশ্রমিকই পাননি ক্রিকেটাররা!

‘ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটের সাথে টেস্ট ক্রিকেটের বিস্তর ফারাক’

ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর অপেক্ষায় রাজিন সালেহ