SCORE

সর্বশেষ

বিপিএলের কোয়ালিফায়ারে রিজার্ভ ডে নয় কেন?

ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইলের অতিমানবীয় ইনিংসের উপর ভর করে খুলনা টাইটান্সকে আসর থেকে বিদায় করে দেওয়ার পাশাপাশি ফাইনালের পথে এক পা এগিয়ে গেছে রংপুর রাইডার্স। কিন্তু রংপুরের জন্য প্রথমবারের মতো বিপিএলের ফাইনালে খেলার স্বপ্নে বাগড়া দেওয়ার আশঙ্কা জাগিয়েছে সমুদ্রে নিম্নচাপের কারণে সৃষ্ট বৃষ্টি। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, আজকের মতো বৃষ্টি হতে পারে কালকেও। আর তাহলে হুমকিতে পড়ে যাবে রংপুরের ফাইনাল স্বপ্ন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, এমন বড় আয়োজনে কোয়ালিফায়ার রাউন্ডে একটা দিন রিজার্ভ কেন থাকবে না?

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ের পর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে আগামীকাল ১০ অক্টোবরের ম্যাচটি হতে চলেছে অঘোষিত সেমিফাইনাল। এই ম্যাচের জয়ী দল ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে খেলবে ফাইনালে। গ্রুপ পর্বের শীর্ষ দল কুমিল্লা শুক্রবার ঢাকা ডায়নামাইটসের কাছে বড় ব্যবধানে হেরে ফাইনালে সরাসরি খেলার সুযোগ হারালেও আরও একটা সুযোগ তাদের সামনে থাকছে। রংপুকে হারাতে পারলেই ফাইনালে উঠবে কুমিল্লা।

Also Read - মাশরাফির সামনে মাইলফলকের হাতছানি

অপরদিকে শীর্ষ চারের চতুর্থ দল হিসেবে কোয়ালিফায়ারে খেলা রংপুরের সামনেও একই সমীকরণ। গেইল ঝড়ের প্রত্যাশা থাকবে এই ম্যাচেও। কিন্তু গেইল ঝড়ের আগেই ঝড়-বৃষ্টির একটা সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আর তা নিয়ে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে রংপুরের ফ্র্যাঞ্চাইজির সবার কপালে। কারণ, ওই যে বৃষ্টি। ঢাকার আকাশ আজ সারাদিন হালকা বৃষ্টির দখলে ছিল। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, আগামীকাল রোববারও একইরকম যেতে পারে। আর তাহলে রংপুরের জন্য বিপদ! কারণ, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বাইলজ অনুযায়ী ফাইনাল খেলবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কারণও স্পষ্ট, টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী বেশি ম্যাচে জয়ী দল তথা কুমিল্লাই খেলবে ফাইনাল।

ম্যাচ না খেলেই বিদায় নেওয়াটা অনেক বড় ধাক্কা। বিনা যুদ্ধে মেদিনী কেই বা দিতে চায়? যে কারণে এমন একটা বড় টুর্নামেন্টে রিজার্ভ ডে না থাকা নিয়ে হতাশা বিরাজ করা স্বাভাবিক। রংপুর রাইডার্সের দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা যেমন এক আলাপে বলেছেন, আসলে প্রকৃতির ওপর তো কারো হাত থাকে না। কিন্তু খুব ভালো হতো একটা রিজার্ভ ডে থাকলে। কারণ, বিপিএলের মতো একটি টুর্নামেন্টের সেমি ফাইনাল যদি বৃষ্টির কারণে বাতিল হয় তাহলে সেটা তো দুঃখের।

ম্যাশের এমন চাওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু সেই সুযোগ অন্তত এবারের আসরে থাকছে না। হয়তো শীতকালে আয়োজিত হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো বিসিবি। কিন্তু, আবহাওয়ার উপর কারও হাত নেই। বঙ্গোপসাগরে যে কোন সময় নিম্নচাপ হতে পারে, আর এর প্রভাবে বৃষ্টি হবে এটা মাথায় রাখা উচিত ছিল বিসিবি’র। এক্ষেত্রে ম্যাচের গুরুত্ব বুঝেই একটা সমাধানের পথ রাখা উচিত। না হলে একটি দল এক্ষেত্রে দুর্ভাগ্যের শিকার হতে পারে। তবে মাশরাফি এটা নিয়ে না ভেবে পরের ম্যাচেই মনোযোগ রাখতে চান। কিন্তু যদি সত্যিই বৃষ্টি হয় তাহলে কি হবে?

মাশরাফির কাছে এর সমাধান আপাতত না থাকলেও ভবিষ্যতের কথা ভেবে তার মত, আমি অবশ্য এটা (বৃষ্টি) নিয়ে ভাবছি না। তবে অবশ্যই বলবো এরকম পর্যায়ে রিজার্ভ ডে থাকা উচিৎ এবং বিসিবি চাইলে আইন তো বদলাতেই পারে। (রোববারের) খেলা না হলে রিজার্ভ ডের ব্যবস্থা নিশ্চয়ই আইনে করার সুযোগ আছে।

তার পরের কথাতেও স্পষ্ট আক্ষেপের সুর, কারণ মাঠ ভর্তি দর্শকদের জন্য এটা সত্যিই হতাশার বিষয়,  এই যে হাজার হাজার দর্শক এমন একটা ম্যাচ দেখতে মাঠে আসবে। আরো কতো মানুষ এই ম্যাচটার দিকে তাকিয়ে থাকবে। এখন বৃষ্টির জন্য এবং রিজার্ভ ডে না থাকায় এরকম একটা ম্যাচ খেলা না হলে তো এমন বড় একটি আসরের দর্শকদের জন্যও তা অনেকটা অবিচারের মতো হয়ে যায়।

বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করল ঢাকা ও চট্টগ্রামও

মাশরাফি চাইলে কি হবে, এর প্লে-অফের আগেই আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী গত শুক্রবারের প্রথম কোয়ালিফায়ারের ম্যাচের আগে বিসিবি একবার উদ্যোগ নিয়েছিলো বাইলজ পরিবর্তন করে রিজার্ভ ডে রাখার। কিন্তু, চার দলের সাথে আলোচনায় কুমিল্লার কাছ থেকে তীব্র বিরোধিতার মুখোমুখি হয় বিসিবি। এমনকি আইনি লড়াইয়ের হুমকিও দিয়েছিলো দলটি। যদিও আখেরে লসটা তাদেরই হয়েছিল। সেদিনের ম্যাচে ঢাকার কাছে বিশাল ব্যবধানে পরাজয় বরণ করতে হয় তামিম ইকবালের দলকে।

অঘোষিত সেমিফাইনাল যদি বৃষ্টির কারণে বাতিল হয় তাহলে লাভটা হবে কুমিল্লার। কারণ, টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি জয় পেয়েছে দলটি। গ্রুপ পর্বে ১২ ম্যাচ খেলে ৯ টি জয় কুমিল্লার, সমান সংখ্যক ম্যাচে রংপুরের জয় ৬টি। রংপুরের বিপক্ষে মুখোমুখি ২ ম্যাচের লড়াইয়েও জয়ী দল কুমিল্লা। কিন্তু গ্রুপ পর্বের রেজাল্ট কোয়ালিফায়ারে কাজে লাগে না, তার প্রমাণ কুমিল্লা নিজেই। এখন আবহাওয়ার পূর্বাভাসকে মাথায় রেখেই খেলার ছক কষতে হবে দুই দলকেই। খেলা না হলে লাভ কুমিল্লার। হলে দুই দলেরই সমান সুযোগ।

সময়সূচী অনুযায়ী রোববার সন্ধ্যা ৬টায় ম্যাচ শুরু হবে। তবে বৃষ্টির কারণে খেলা আরম্ভ হতে বিলম্ব হলে অপেক্ষা করা হবে প্রায় ৯টা পর্যন্ত। নইলে খেলা বাতিল। আর তাহলে ফাইনালে খেলবে কুমিল্লাই।

তবে রংপুরের অধিনায়ক মাশরাফির ভাবনায় বৃষ্টি নয়, খেলা নিয়েই। আর তামিম ইকবালের কাছে বৃষ্টি আশীর্বাদ হয়ে আসতে পারে, আর বৃষ্টি না হলেও গেইল ঝড়তো আছেই। তামিমের ভাষায়, (গেইল) যদি খেলে তাহলে এভাবে দুইশো করেও আটকানো সম্ভব না!

আর মাশরাফির ভাবনায়, পরের দুই ম্যাচের কথা আমি বলবো না, পরের ম্যাচটা নিয়ে ভাবছি। সম্ভবত টুর্নামেন্টের সেরা দুই দলের একটির বিপক্ষে আমাদের খেলতে হবে। পরের ম্যাচটা দুই দলের জন্যই সমান। যারা নার্ভ ধরে রাখতে পারবে তারাই সুবিধা পাবে।

তবে সব মিলিয়ে এবারের আসরের অনেক অপূর্ণতার একটি হতে পারে বৃষ্টি বাঁধায় আগামীকালের ম্যাচ বাতিল হয়ে যাওয়া। দর্শকদের কাছেও এটি হতাশার উপলক্ষ হতে পারে। আর গেইলের রানবৃষ্টি তথা ঝড় দেখতে যারা মাঠে যাবেন তাদের জন্য বৃষ্টি হয়ে উঠতে পারে অভিশাপ। স্বস্তির কারণও আছে। সন্ধ্যার পর বৃষ্টি কমে যেতে পারে বলে জানা গেছে। কিন্তু প্রকৃতির উপর কারও হাত নেই। রিজার্ভ ডে তাই ভীষণ জরুরী। আগামী আসরে বিষয়টা খেয়াল রাখা হবে এমন কামনা রইলো।

আরও পড়ুনঃমাশরাফির সামনে মাইলফলকের হাতছানি

 

– মোয়াজ্জেম হোসেন মানিক

1 of 1

Related Articles

“মাশরাফি ভালো মানুষ, নরম মানুষ”

রশিদকে নিয়ে ভাবতে মানা তামিমের

ত্রুটিই ধরা পড়ল আল-আমিনের বোলিংয়ে

তামিমের শুনানি আজ

টেস্ট নিয়ে তাড়াহুড়া নেই সাইফউদ্দিনের