SCORE

সর্বশেষ

শ্রীলঙ্কাকে ভারতের ধবলধোলাই

টেস্ট সিরিজের পর ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিলেও শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে যা করে দেখাতে পারেনি ভারত অবশেষে তা টি-টোয়েন্টি সিরিজে করে দেখালো ধোনি-রোহিতরা। সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে লঙ্কানদের ৫ উইকেটের ব্যবধানে হারিয়ে ৩-০ ব্যবধানের সিরিজ জয়ের পাশাপাশি পেরেরাদের সেই হোয়াইটওয়াশের লজ্জাই আজ দিল রোহিত ও তার সহযোদ্ধারা।

শ্রীলঙ্কাকে ভারতের ধবলধোলাই

মুম্বাইয়ে টস হেরে রোহিতের আমন্ত্রণে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেটে ১৩৫ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় সফরকারীরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে চার বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটের জয় পায় স্বাগতিকরা।

Also Read - এনসিএলে সর্বোচ্চ উইকেট ফরহাদ-নিহাদুজ্জামানের

শেষ ১২ বলে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৫ রান। প্রদীপের করা ১৯তম ওভারের প্রথম পাঁচ বলে (১, ১, ২, ০, ২) মোট ৬ রান নেওয়ার পর ওভারের শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জয়ের সমীকরণ ৬ বলে ৩ রানে নামিয়ে আনেন দিনেশ কার্তিক। বাকি কাজটা সম্পন্ন করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। পেরেরার করতে আসা শেষ ওভারের প্রথম বলে ২ রান নেওয়ার পর দ্বিতীয় বলে ৪ মেরে দলকে কাঙ্ক্ষিত জয় এনে দেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত কার্তিক ১২ বলে ১৮ ও ধোনি ১০ বলে ১২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। ষষ্ঠ উইকেটে ধোনি-কার্তিকের জুটির আগে দলের ম্যাচ জয়ের ভিত গড়ে যান শ্রেয়াজ আয়ার ও মানিশ পান্ডে। ৩৯ রানে রাহুল ও রোহিতের উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা ভারতকে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৪২ রান যোগ করে দলকে বিপদের হাত থেকে রক্ষার পাশাপাশি ম্যাচ জয়ের রাস্তা পরিস্কার করে যান এ দুই ব্যাটসম্যান। শ্রেয়াজ ৩২ বলে সময়োপযোগী ৩০ ও পান্ডে ২৯ বলে ৪ চারে ৩২ রান করেন। এছাড়া রোহিতের ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে শানাকা ও চামারা দুটি করে উইকেট পান।

এর আগে ব্যাট করে ভারতের শুরুর আঘাত সামলে ইনিংসের মাঝ পথে সাদীরার ২১ ও গুনাথিলাকার ৩৬ রানের ইনিংসে সম্মানজনক পুঁজির সন্ধান পায় সফরকারীরা। শেষ দিকে শানাকার কার্যকরী ২৯ রানে চড়ে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেটে ১৩৫ রানের পুঁজি পায় পেরেরাবাহিনী।

ভারতের বোলারদের মধ্যে উনাদকাত ও পান্ডে দুটি করে উইকেট পান। তাছাড়া একটি করে উইকেট যায় ওয়াশিংটন সুন্দর, কুলদ্বীপ যাদব ও শিরাজের ঝুলিতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

শ্রীলঙ্কাঃ ১৩৫/৭ (২০ ওভার)
গুনাথিলাকা ৩৬, শানাকা ২৯*; উনাদকাত ১৫/২, পান্ডে ২৫/২

ভারতঃ ১৩৯/৫ ৯১৯.২ ওভার)
মানিশ ৩২, শ্রেয়াজ ৩২, রোহিত ২৭; চামারা ২২/২

ফলাফলঃ ভারত ৫ উইকেটে জয়ী।

আরও পড়ুনঃ বিশ্বকাপের আগে সাইফ-আফিফদের মাশরাফির পরামর্শ

1 of 1

Related Articles

দ্বিপাক্ষিক সিরিজে মরগানের অনাগ্রহ

অভিষেক টেস্টে ফলো-অনে আফগানিস্তান

ব্যাটিং বিপর্যয়ে আফগানিস্তান

টেস্ট দল থেকে বাদ পড়লেন শামি

কোহলির সঙ্গে বোর্ডের ‘দ্বন্দ্ব’