২০১৭ঃ বিডিক্রিকটাইম বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ

শেষ হতে চলেছে ২০১৭। আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে ২০১৭ সালের দুর্দান্ত পারফর্ম করা ক্রিকেটারদের নিয়ে বিডিক্রিকটাইম ডট কম সাজিয়েছে বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ।

১.রোহিত শর্মা (ভারত)  : এ বছরটা দুর্দান্ত কাটিয়েছেন ভারতের রোহিত শর্মা। ২১ ইনিংস ব্যাটিং করে ১২৯১ রান করেছেন তিনি। এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান ৬ টি শতক হাঁকিয়েছেন এ বছর। এর মধ্যে একটি দ্বিশতকও ছিল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অপরাজিত ২০৮ রানের ইনিংস খেলে ওয়ানডেতে তিন ডাবল সেঞ্চুরির এক অবিশ্বাস্য কীর্তি গড়েন রোহিত। ২৩ ম্যাচে ৪৬ টি ছক্কা হাঁকান রোহিত। এ বছর ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি ছয় তার। ব্যাটিং গড় ৭১.৮৩ ও স্ট্রাইক রেট ৯৯.৪৬।

২. তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ) দারুণ ছন্দে ছিলেন বাংলাদেশের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল। ২০১৭ সালে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তামিম। ১২ ম্যাচে ১১ ইনিংস ব্যাটিং করে ৬৪৬ রান করেছেন তামিম ইকবাল। এ বছর তামিমের শতক রয়েছে দুইটি। পাশাপাশি অর্ধশতক রয়েছে চারটি। বিদায়ী বছরে ব্যাটিং গড়টা দুর্দান্ত এ ব্যাটসম্যানের। এ বছর তার গড় ৬৪.৬০ এবং স্ট্রাইক রেট ৮৩.১৪।

Also Read - হাথুরুসিংহেকে 'গুডলাক' জানালেন তামিম

৩. বিরাট কোহলি (ভারত) (অধিনায়ক): ২০১৭ সালের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক বিরাট কোহলি। ভারতের এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান এ বছর ২৬ ইনিংস ব্যাটিং করে রান করেছেন ১৪৬০। বছরজুড়েই ওয়ানডেতে রানের ফোয়ারা ছিল বিরাট কোহলির ব্যাটে। পুনেতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শতক দিয়ে বছর শুরু করেছিলেন তিনি। কানপুরে বছরের নিজের শেষ ওয়ানডেতেও হাঁকিয়েছেন শতক। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছেন ১১৩ রানের ইনিংস। মাঝে শতক হাঁকিয়েছেন আরো ৪ টি। সাথে রয়েছে সাতটি অর্ধশতক।  ৭৬.৮৪ গড় আর ৯৯.১১ স্ট্রাইক রেট ভারতের এ ব্যাটসম্যানের।

৪. জো রুট (ইংল্যান্ড): ১৯ ম্যাচে ১৮ ইনিংস ব্যাটিং করে ৯৮৩ রান করেছেন ইংল্যান্ডের জো রুট। ৭০.২১ গড় এবং ৯২.১২ স্ট্রাইক রেট এ ইংলিশ ব্যাটসম্যানের। ২ টি শতকের পাশাপাশি হাঁকিয়েছেন ৭ টি অর্ধশতক। ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। ২০১৭ সালের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় রুটের নাম চারে।

৫. বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড): এ ইংলিশ অলরাউন্ডার ১৫ ম্যাচে ১৩ ইনিংসে ব্যাটিং করে রান করেছেন ৬১৬। শতক রয়েছে দুইটি। অর্ধশতকের সংখ্যা চার। ৬১.৬০ গড়ে রান করেছেন তিনি। ২০১৭ সালে তার স্ট্রাইক রেটটাও দুর্দান্ত, ১০৬.৯৪।  উইকেট শিকার করেছেন ১৪ টি।

৬. মুশফিকুর রহিম (বাংলাদেশ) :  বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক মুশফিকুর রহিম। ১৪ ম্যাচের ১৩ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৪৫৮ রান সংগ্রহ করেছেন মুশফিকুর রহিম। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে একটি শতক রয়েছে তার। এছাড়া রয়েছে চারটি অর্ধশতক। ২০১৭ সালে তার ব্যাটিং গড় ৪৫.৮০।

৭. মহেন্দ্র সিং ধোনি (ভারত) (উইকেটরক্ষক) : ২৯ ম্যাচের ২২ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৭৮৮ রান করেন ভারতের উইকেট রক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ২০১৭ সালে ধোনির ব্যাটিং গড় ছিল ৬০.৬১। ব্যাটিংয়ে হাঁকিয়েছেন একটি শতক। অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন ছয়টি। উইকেটের পেছনে সবচেয়ে বেশি ডিসমিসালও ধোনির দখলে। ২৬ টি ক্যাচ ধরেছেন তিনি। স্টাম্পিং করেছেন ১৩ টি। সব মিলিয়ে গ্লাভস হাতে ধোনির ডিসমিসাল ৩৯ টি।

৮. হাসান আলি (পাকিস্তান) : ২০১৭ সালের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী বোলার হাসান আলি। পাকিস্তানের এ পেসার ১৮ ম্যাচে উইকেট শিকার করেছেন ৪৫ টি। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন এ ফাস্ট বোলার। ২০১৭ সালে ব্যাটসম্যানদের জন্য আতঙ্কের নাম ছিলেন তিনি। ওভারপ্রতি গড়ে রান দিয়েছেন ৫.০৩। বোলিং গড় ১৭.০৪। পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন তিন ম্যাচে।

৯. রাশিদ খান (আফগানিস্তান) : ২০১৭ সালে উইকেট শিকারীর তালিকায় হাসান আলির পরেই আছেন আফগান লেগ স্পিনার রাশিদ খান। ৪৩ টি উইকেট শিকার করেছেন তিনি। বল করেছেন ১৫ ইনিংসে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৮ রানে ৭ উইকেট পেয়েছিলেন রাশিদ। এ বোলিং ফিগার ২০১৭ সালের সেরা। ওয়ানডে ইতিহাসে এটি চতুর্থ সেরা বোলিং ফিগার। পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন এক ইনিংসে।

১০. লিয়াম প্লাঙ্কেট (ইংল্যান্ড) : ইংল্যান্ডের ২০১৭ সালের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেট। ১৮ ম্যচে ৩৬ উইকেট শিকার করেন তিনি। তার বোলিং গড় ২২.৪৭, ইকোনমি ৫.৬২। দুই ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়েন লিয়াম প্লাঙ্কেট।

১১. জশ হ্যাজলউড (অস্ট্রেলিয়া) : মাত্র ৯ ম্যাচ খেলেই ১৯ উইকেট শিকার করেছেন অস্ট্রেলিয়ার ফাস্ট বোলার জশ হ্যাজলউড। ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী এ পেসার। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ২০১৭ সালের আসরে প্রথম পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি। বল হাতে বেশ হিসেবী ছিলেন জশ হ্যাজলউড। ওভারপ্রতি গড়ে মাত্র ৪.৯০ রান করে রান দিয়েছেন তিনি। ২০১৭ সালে তার বোলিং গড় ছিল ২২.৪২।

আরও পড়ুনঃ হাথুরুসিংহেকে ‘গুডলাক’ জানালেন তামিম

1 of 1