SCORE

সর্বশেষ

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

যে শ্রীলঙ্কার কাছে একসময় রীতিমতো পাত্তা পেত না বাংলাদেশ, সেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই কিনা আসলো বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জয়! শুক্রবার ত্রিদেশীয় সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে সফরকারী শ্রীলঙ্কাকে ১৬৩ রানে হারায় মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচের ফরম্যাটে এটিই সবচেয়ে বড় ব্যবধানের (রানের দিক থেকে) জয়।

বাংলাদেশের অসাধারণ এই জয়ে টুইটারে রীতিমতো বয়ে গেছে ঝড়। বাংলাদেশের প্রশংসা করার পাশাপাশি অনেকেই সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে দিয়েছেন দুয়ো। একনজরে দেখে নেওয়া যাক ঐতিহাসিক জয়ের ম্যাচ নিয়ে কিছু আলোচিত টুইট।

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

Also Read - শ্রীলঙ্কাকে বিদায় করে দেওয়ার হুমকি জিম্বাবুয়ের

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশের রেকর্ড জয়ে টুইটারে যত প্রতিক্রিয়া

১০০ রানের বেশি ব্যবধানে এটি বাংলাদেশের ১১ তম জয়। শ্রীলঙ্কাকে ১৫৭ রানে অলআউট করে দিলে আগের ১৬০ রানের জয়ের রেকর্ড ভেঙে ফেলে টাইগাররা। ২০১২ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২৯৩ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। বোলিংয়ে এসে সোহাগ গাজী আর আব্দুর রাজ্জাকের বোলিং তোপে পড়ে ১৩২ রানে অলআউট হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০০৬ সালে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ২৭৮ রান করে ম্যাচ জিতেছিল ১৪৬ রানে।  ২০১৫ সালে মুশফিকের শতকের সুবাদে ২৭৩ রান করা বাংলাদেশ জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে ১৪৫ রানের ব্যবধানে। ২০১৬ সালে অক্টোবরে আফগানিস্তানকে ২৮০ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়ে ১৪১ রানের জয় ছিনিয়ে নেয় বাংলাদেশ।

এ ম্যাচের আগে রানের হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবচেয়ে বড় জয় ছিল ৯০ রানের। গত বছর শ্রীলঙ্কা সফরে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ডাম্বুলায় তামিম ইকবালের সেঞ্চুরি আর সাকিব আল হাসানের হাফ সেঞ্চুরিতে ভর করে বাংলাদেশ করেছিল ৩২৪। ঐ ম্যাচে বাংলাদেশ ৯০ রানের বড় জয় পায়।

উইকেটের হিসাবে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জয় ৯ উইকেটে। ২০০৬ সালে কেনিয়া ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এবং ২০১৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৯ উইকেটের জয় পেয়েছিল টাইগাররা। কোনো উইকেট না হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছানোর অভিজ্ঞতা এখনো হয়নি টাইগারদের। দশটি ম্যাচে জিতেছে আট উইকেটের ব্যবধানে। ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আট উইকেটের জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ।

দুই ম্যাচে বড় ব্যবধানে জিতে বেশ সুবিধাজনক স্থানে রয়েছে মাশরাফিরা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৪০ ওভারের আগেই রান তাড়া করে ম্যাচ জেতায় এবং শ্রীলঙ্কাকে বড় ব্যবধানে হারানোর জন্য দুই ম্যাচেই বোনাস পয়েন্ট পেয়েছে বাংলাদেশ। দশ পয়েন্ট নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের শীর্ষে আছে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুনঃ ডিপিএলে আবাহনীর হয়ে খেলবেন মাশরাফি!

Related Articles

ফ্র্যাঞ্চাইজির অনুরোধেই সাকিব-তামিমের বিতর্কিত টুইট

কোচের টুইট সম্পর্কে জানেন না মুশফিক!

টুইটারে রানার্স-আপ বিসিবি!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্রিকেটারদের ঈদ-বার্তা

বাংলাদেশের বীরোচিত জয়ে টুইটারে ঝড়