SCORE

সর্বশেষ

ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়া উচিত!

বিগত কয়েক বছর ধরে উড়তে থাকা বাংলাদেশের ছন্দপতন গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে। ২০১৭ সালের শেষ সফরে প্রোটিয়াদের কাছে তিন সিরিজেই ধবলধোলাই হয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর লম্বা সময় ছিল না আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়া উচিত!

মাঝের সময়টুকুতে নিজেদের আরও ভালোভাবে প্রস্তুত করেছেন ক্রিকেটাররা। প্রত্যাশা ছিল, নতুন বছরে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ। তবে ২০১৮ সালের প্রথম মিশনে ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং এরপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও টি-২০ সিরিজেও সেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের বাংলাদেশ। একই দৃশ্য নিদাহাস ট্রফির প্রথম ম্যাচেও।

Also Read - ব্যাটসম্যানদেরই দায় দিলেন রিয়াদ

টাইগারদের এমন পারফরমেন্সে যারপরনাই হতাশ কোচ-খেলোয়াড়-সমর্থক সবাই। এরই মধ্যে অবশ্য ব্যক্তিগত অর্জন বা ম্যাচ জমিয়ে ফেলার মতো ক্ষুদ্র ঘটনাকে বড় করে দেখে মাঝে মাঝে চলছে সাফল্য অন্বেষণের চেষ্টা! তবে এই ব্যাপারটিতে বেজায় চটেছেন নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ্‌ রিয়াদ।

রিয়াদ বলেন, ‘অর্জনগুলো মোটেও বড় মনে হচ্ছে না। তাহলে এভাবে হতাশা প্রকাশ করতাম না। ভালো করতে পারছি না বলেই এভাবে বলছি।’

রিয়াদের মতে, ব্যর্থতার বৃত্তে বন্দী থাকা সময়ে এভাবে এসব ছোট ছোট সাফল্যকে বড় করে তুলে ধরা হলে টাইগারদের ক্রিকেট খেলাই ছেড়ে দেওয়া উচিত! তিনি বলেন, ‘ছোট ছোট অর্জন যদি বড় করে দেখি, তবে আমাদের মনে হয় ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়া উচিত!’

তবে টাইগারদের সামর্থ্য বা সীমাবদ্ধতা রিয়াদ জানেন ভালোই। আর সেই বিবেচনায় অধিনায়কের দৃষ্টিকোণ থেকে বলছেন, আরও ভালো করার সামর্থ্য আছে বাংলাদেশের। রিয়াদের মতে, একটি ম্যাচ জিততে পারলেই হারের বৃত্ত থেকে বের হতে পারবে বাংলাদেশ, যা দলের খারাপ সময় দূরে ঠেলতেও সহায়তা করবে।

রিয়াদের ভাষ্য, ‘আমাদের আরও অনেক বড় কিছু করার সামর্থ্য আছে। আমাদের একটি ম্যাচ দরকার, যেটি জিততে পারলে ছন্দ ফিরে পাব। ওই ছন্দের জন্য অপেক্ষা করছি। একবার যদি সেটা পেয়ে যাই, অন্য বাংলাদেশকে দেখতে পাবেন।’

আরও পড়ুনঃ ‘ডট বল অনেক চাপ সৃষ্টি করছিল’

1 of 1

Related Articles

রুবেল হোসেনের সমস্যা কোথায়?

নিদাহাস ট্রফি থেকে ৪৮২ শতাংশ লাভ!

অসুস্থ রুবেল, দোয়া চাইলেন সবার কাছে

যেখান থেকে শুরু ‘নাগিন ড্যান্স’ উদযাপনের

‘খারাপ করছি দেখেই বেশি চোখে পড়ছে’