SCORE

সর্বশেষ

দ্রুত দুঃসময় পার করার প্রত্যাশা তাসকিনের

বিপিএল দিয়ে জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেট অঙ্গনে যখন তার আবির্ভাব হয়, অনেকেই তাকে ধরে নিয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজার যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে। আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও শুরুটা ছিল ভালো। তবে যত সময় যাচ্ছে, তাসকিনের বোলিংয়ের ক্ষুরধার বৈশিষ্ট্যটা যেন ততই কমছে।

তাসকিন আহমেদ

তবে এ নিয়ে হতাশা নেই তাসকিন আহমেদের। বরং দ্রুত দুঃসময় কেটে যাবে, এমনটাই প্রত্যাশা এই গতি তারকার।   

Also Read - ‘আমি কোহলির ধারেকাছেও নেই’

বুধবার সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তরুণ এই পেসার খারাপ সময়কে ক্যারিয়ারের স্বাভাবিক অংশ হিসেবে ধরে নিয়ে বলেন, ‘খারাপ সময় সবারই যায়। এটা জীবনেরই একটা অংশ। আমি কেবলমাত্র কঠোর পরিশ্রমটাই করতে পারি। এছাড়া আমার আর কিছুই করার নাই। আমি আমার হার্ডওয়ার্কটা করে যাই, আমার বিশ্বাস আল্লাহর রহমতে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

নিদাহাস ট্রফিতে স্কোয়াডে থাকলেও ভালো করতে পারেননি তাসকিন। এই আসরে ধারাভাষ্যকার হিসেবে ছিলেন কিংবদন্তী অস্ট্রেলীয় পেসার ব্রেট লি। সাবেক এই ফাস্ট বোলার তাসকিনকে দিয়েছেন ভালো করার মন্ত্র।

তাসকিন বলেন, ‘ব্রেট লি ফিটনেস লেভেলের বিষয়ে কিছু কথা বলেছে এবং স্কিল… সবকিছুই আসলে নির্ভর করে প্রাকটিসের ওপর। এগুলো প্রাকটিস করে এগুলোর উন্নতি করতে হয় এবং তার সঙ্গে খাদ্যাভ্যাস এবং মানসিকভাবে শক্তিশালী হওয়াটাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

এদিকে আলাপকালে নিদাহাস ট্রফির ম্যাচগুলোতে বাংলাদেশের সমর্থন নিয়েও কথা বলেছেন তাসকিন। তিনি জানান, ভারত ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে গ্যালারিতে উপস্থিত দর্শকদের প্রায় সবাই-ই ছিলেন ভারতের জয়ের পক্ষে।

তাসকিনের ভাষ্য, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের দিন শ্রীলঙ্কার সাপোর্টার ছিলো ৯৮ ভাগ। বাংলাদেশ থেকে যে দর্শকরা গেছে বা যেসব বাঙালি ছিলো কেবল তারাই সাপোর্ট করেছে। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে শ্রীলঙ্কান সাপোর্টাররা ভারতকেই সমর্থন করেছে। ওটা যদিও আসলে দেখার বিষয় না, মাঠে খেলাটাই মূল বিষয়। তবুও এইবার একটা নতুন অভিজ্ঞতা হলো পুরে ক্রাউডের বিপক্ষে মাঠে ক্রিকেট খেলা।’

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের সম্ভাব্য সূচি

1 of 1

Related Articles

তাসকিনের পিছু ছাড়ছে না ইঞ্জুরি

যেভাবে কেটেছে তাসকিনের অবসর

বোলিং শুরু করেছেন তাসকিন

‘আমরা নতুন অতিথির অপেক্ষায়’

অতীতের উড়ো খবরে নাখোশ তাসকিন