SCORE

সর্বশেষ

আশাহীনতার দায় কি বিসিবি’র নয়?

২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে। প্রকাশিত হয়েছে বিশ্বকাপের সূচিও। এমন সময়ে মাশরাফিদের কোচ নিয়োগের কাজটাও শেষ করতে পারেনি বিসিবি। তথাপি বাংলাদেশকে নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করলেন খোদ বিসিবি প্রধান। এটাকে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার দীনতার বহিঃপ্রকাশ বলাটা অত্যুক্তি হবে কি? কারণ, এই পরিস্থিতির দায় তো বিসিবি’রই।

সেই নিদাহাস ট্রফির শুরুতে বিসিবি প্রধান জানালেন সিরিজ শেষেই কোচ নিয়োগ দেওয়া হবে। তারপর বললেন এপ্রিলেই আসছে নতুন কোচ। এবার আবারও সময়ক্ষেপণের আশঙ্কা দেখা যাচ্ছে। তার মানে খুব শীঘ্রই নতুন কোচ পাওয়ার আশা নেই বললেই চলে। দলের মূল কর্তাটি যদি না থাকেন তাহলে দলের অবস্থা ভাল হবে এমন আশা করাই ঠিক নয়। সে ক্ষেত্রে বিসিবি প্রধান সত্য কথাই বলেছেন। কিন্তু এই পরিস্থিতির দায় কি তার বা বিসিবি’র এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ আছে?

Also Read - অবশেষে স্ত্রীকে সামনে আনলেন রুবেল

বিসিবি প্রধান শুক্রবার (২৭ এপ্রিল) বললেন, ‘বিশ্বকাপে বাংলাদেশ নিশ্চিত ভালো করবে, এটা বলা কঠিন। এখন বাংলাদেশ ভালো খেলছে। কিন্তু বাংলাদেশের চেয়ে অনেক দলই ভালো খেলছে। জিততে হলে দুটি জিনিস দরকার- ভালো খেলোয়াড় আর ভালো দল। ভালো খেলোয়াড় আছে কিন্তু আমাদের পুরো দল এখনো প্রস্তুত নয়। সেদিক দিয়ে অনেক পিছিয়ে আছি অনেক দল থেকে।’

প্রশ্ন হলো বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে আছে কেন সেই প্রশ্নের জবাব তো তার কাছেই থাকার কথা। দলের মধ্যে সেই জয়ের স্পৃহা কমে গেছে। আর অন্য কোন দেশের প্রধান কোচ নিয়োগ কি বাকি আছে এখনো? না, নেই। শুধু বাংলাদেশেই এই অবস্থা। কোথায় দলের মধ্যে দারুণ একটা বন্ডিং গড়ে উঠবে, তা না, বরং কেমন অগোছালো হয়ে উঠছে দিনদিন। দলের মূল কোচ ঠিক এই কাজটিই করেন। দলের সবাইকে একসূত্রে গাঁথা। কিন্তু পদটি যদি দিনের পর দিন খালি থাকে তবে মূল কাজটি কে করবেন?

সিনিয়রদের সাথে জুনিয়রদের একটা দূরত্ব আজকাল দেখা যাচ্ছে। সিনিয়র ক্রিকেটার যারা আছেন তাদের নিবেদন নিয়ে কোন সংশয় নেই। কিন্তু, কোচের দায়িত্ব তো আর তারা পালন করবেন না। সেই অভিজ্ঞতাও তাদের নেই। আর জুনিয়রদের পিছনে সময় দেওয়ার সুযোগও তাদের হাতে খুব কম। নিজেদের খেলায় মনোযোগ দিয়ে আবার জুনিয়রদের জন্য কষ্ট করা কষ্টসাধ্য কাজ। আর জয়ের জন্য যে পরিকল্পনার প্রয়োজন তা একজন অভিজ্ঞ কোচের চেয়ে খেলোয়াড়রা ভাল বুঝেন না। ফলে কোচবিহীন অবস্থায় এই দলের পক্ষে ভাল করা আদৌ সম্ভব নয়।

বিসিবি প্রধানের আরও একটা কথা খুব অদ্ভুত মনে হয়েছে। বিশ্বকাপটা হবে ইংল্যান্ডে। ফলে সেখানকার কন্ডিশনের সাথে বাংলাদেশ কতোটা মানিয়ে নিতে পারবে তা নিয়ে তিনি সন্দিহান। কিন্তু তিনি কি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি’র কথা কিংবা অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৫ সালে বাংলাদেশের ভাল খেলার কথা ভুলে গেছেন? আর নিজের দেশে স্পিননির্ভর দল আর পিচ গড়ে বাইরের দেশে সাফল্য আশা করাও তো ঠিক না। প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ না দিলে কিভাবে প্রস্তুতি সম্পন্ন হবে?

ইদানিং দলের জুনিয়রদের মধ্যে ফর্মহীনতা প্রকট হয়ে উঠেছে। সাব্বির, সৌম্য, মিরাজ, বিজয়, মোসাদ্দেকদের অবস্থা হতাশাজনক। অথচ, তাদের নিয়ে কিছুদিন আগেও প্রত্যাশার পারদ ছিল অনেক উঁচুতে। তাদের খারাপ সময় যেতেই পারে। কিন্তু তাদের বিকল্প খুঁজে বের করা আজও সম্ভব হলো না, এর দায় আসলে কার? এসব দেখভাল করার কথা যাদের তারা কি ঠিকভাবে কাজটা করছেন?

পাশের দেশ ভারতে অনূর্ধ্ব-১৯ দল আর আমাদের এখানকার একই দলের পার্থক্য অনেক। অথচ, তাদের জাতীয় দলের মতোই বয়সভিত্তিক সেই দলের কোচও তাদের দেশি। কিংবদন্তী ভারতীয় ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়কে তারা কাজে লাগিয়ে দারুণ সাফল্য পাচ্ছে। অথচ আমরা বহু টাকা খরচ করে বিদেশি কোচ এনেও সাফল্য পাচ্ছি না। এসব প্রশ্ন আগেও তোলা হয়েছে। কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

পাপন papon

প্রধান কোচ এবং অন্য কোচিং স্টাফ নিয়োগে যদি আরও সময়ক্ষেপণ করা হয় তাহলে হতাশার মাত্রা আরও বাড়বে। কেননা, খেলোয়াড়দের সাথে কোচিং স্টাফের ভাল বোঝাপড়ার প্রয়োজন সবার আগে, তারপর খেলোয়াড়দের সেরাটা বের করে আনা, আর দুর্দান্ত একটা জয়ের রেসিপি (পরিকল্পনা)। আর এসব এখনও অনেক দূরে রেখে হতাশা প্রকাশ করা ছাড়া আর গতি কি? কিন্তু দায়িত্বে থেকে দায় এড়ানোর সুযোগ নেই।

অতএব, দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রধানের আসনে বসে হতাশামূলক কথা না বলে, সঠিক পদক্ষেপ নিতে হবে। যেভাবে চলছে তাতে হতাশা সমর্থকদের মধ্যেও জাগছে, কিন্তু তা সমাধার পথ বিসিবি’র হাতেই আছে। সমর্থকরাও জানেন, দলের অবস্থা এখন কেমন। ফলে দায় এড়ানোর কোন চেষ্টা মোটেই গ্রহণযোগ্য হবে না। ভাল কিছু কিভাবে সম্ভব সেটা বিসিবি’কেই দেখতে হবে।


আরও পড়ুনঃ পূর্বাচলের স্টেডিয়াম হবে বিশ্বের অন্যতম সেরা!

1 of 1

Related Articles

উইন্ডিজদের হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন আফগানিস্তান

বিশ্বকাপের টিকিট পেল আফগানিস্তান

তিন রানে হেরে বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ জিম্বাবুয়ের

বৃষ্টিতে পুড়ল স্কটল্যান্ডের কপাল, বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ ‘ড্র’য়ে শেষ