SCORE

সর্বশেষ

বিশ্বকাপ খেলতে মরিয়া সালমারা

এশিয়া কাপ জিতে বেশ ফুরফুরে মেজাজে বাংলাদেশ দলের নারী ক্রিকেটাররা। কিন্তু অবসর পাচ্ছেন না খুব বেশি সময়। সামনেই বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয়ার মিশনে নামতে হবে তাদের।

বাংলাদেশ-নারী-ক্রিকেট-দলকে-সংবর্ধনা

এই যুদ্ধ খুব বেশি অপরিচিত নয় তাদের জন্য। ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে প্রথম বিশ্বকাপ খেলার পর, ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপেও জায়গা করে নেয় তারা। কিন্তু কোনোবারই খুব আহামরি পারফর্ম করতে পারে নি তারা। তবে এবারের এশিয়া কাপের পারফরম্যান্স বেশ আশা জাগানিয়া।

Also Read - কোহলি-আনুশকাকে আইনি নোটিশ

এবার টাইগ্রেসরা ভারত, পাকিস্তান দুই উপমহাদেশীয় পরাশক্তিকে হারিয়েছে গ্রুপ পর্বে। রুদ্ধশ্বাস ফাইনালে ২য় বার ভারতকে হারিয়েছে শেষ বলে। প্রথমবারের মত জিতে নিয়েছে দেশের হয়ে কোনো শিরোপা।

অধিনায়ক সালমা বলেন, ‘অবশ্যই আমরা আশাবাদী আমরা বিশ্বকাপ কোয়াইলিফাই করবো। বিশ্বকাপ খেলবো আমরা। অবশ্যই আমাদের পারফর্ম করতে হবে ওখানে। মালয়েশিয়া থেকে আমরা একটা টুর্নামেন্ট খেলে এসেছি। এখানে ৪-৫ দিনের একটা ক্যাম্প করতে পেরেছি। যতটুকু করতে পেরেছি আমাদের যে সীমাবদ্ধতা ছিল ওই জায়গাটায় কাজ করেছি।’

তিনি যোগ করেন, ‘আত্মবিশ্বাস এখন দলের সব মেয়ের মধ্যেই আছে। প্রতিপক্ষ যারাই হোক না কেন কাউকে ছোট করে দেখা উচিত না। অনেক সময় ছোট টিমের সাথেও খারাপ হয়ে যেতে পারে। আমার মনে হয় না আমরা ওটা করবো। ‘

বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ বাছাই মিশন শুরু হবে আগামী ৭ জুলাই। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে ঐ ম্যাচের পরবর্তী ম্যাচ ৮ জুলাই, স্বাগতিক নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে। ১০ জুলাই গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে নারী ক্রিকেটাররা মুখোমুখি হবেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের। ১২ জুলাই দুই গ্রুপের সেরা চার দল নিয়ে হবে সেমিফাইনাল।

মূল লড়াইয়ে নামার আগে ৫ জুলাই স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এর আগে ২৮, ২৯ জুন ও ১ জুলাই আয়ারল্যান্ডে তিনটি টি-২০ ম্যাচ খেলবে বাঘিনীরা, স্বাগতিকদের বিপক্ষে যে ম্যাচগুলো মূলত বাছাইপর্বেরই প্রস্তুতি।

 

আরো পড়ুনঃ  ভিসা পেলেন মিরাজ

Related Articles

বাংলাদেশের ম্যাচ দিয়ে শুরু বিশ্বকাপ

আরব আমিরাতকে উড়িয়ে দিল বাঘিনীরা

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে সবার উপরে সালমারা

শেষ মুহূর্তে কপাল পুড়লো লতা ও ফাহিমার

নারী বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বাংলাদেশের গ্রুপে পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা