SCORE

সর্বশেষ

রাতে উইন্ডিজ একাদশের মুখোমুখি বাংলাদেশ

উইন্ডিজ ক্রিকেট দলের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ শুরুর আগে একমাত্র দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে বৃহস্পতিবার রাতে  উইন্ডিজ একাদশের বিপক্ষে মাঠে নামতে যাচ্ছে সফরকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দু’দলের মধ্যকার প্রস্তুতি ম্যাচটি বাংলাদেশ সময়ানুযায়ী রাত ৮টায় ক্লোলিজ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে শুরু হবে।

টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে উত্থানে সেরা অবস্থানে বাংলাদেশ

ম্যাচটিকে সামনে রেখে বুধবার ১২ সদস্যের উইন্ডিজ একাদশের দল ঘোষণা করেছে উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। শামার ব্রুকসকে অধিনায়ক করে ঘোষিত এ দলে জায়গা পেয়েছেন উইন্ডিজের কিংবদন্তী ক্রিকেটার শিবনারায়ন চন্দরপলের ছেলে ত্যাগনারায়ন চন্দরপল। ২৫টি প্রথম-শ্রেণির ম্যাচে ২৮.৯৫২ গড়ে ১২১৫ রান করার বিপরীতে ৮ উইকেট নিয়ে নিজের জাত চেনানোর ফল হিসেবেই তাকে ডাকা হয়েছে স্কোয়াডে।

Also Read - রোহিত-ধাওয়ানের ব্যাটিংয়ে আয়ারল্যান্ডের পরাজয়

অন্যদিকে, দীর্ঘ ইঞ্জুরি কাটিয়ে স্কোয়াডে ফিরেছেন উইন্ডিজের জার্সিতে ৬ টেস্ট ও ১৪ ওয়ানডে খেলা তরুণ পেসার আলঝারি জোসেফ। তাছাড়া উইন্ডিজের জার্সিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খেলার অভিজ্ঞতা অর্জন করা দুই ক্রিকেটার শিমরন হেটমায়ার ও ভিশাল সিংকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে সাকিবদের বিপক্ষের প্রস্তুতি ম্যাচের উইন্ডিজ দলে।
বাংলাদেশের-বিপক্ষে-প্রস্তুতি-ম্যাচের-উইন্ডিজ-দল-ঘোষণা
প্রতিকূল পরিবেশের লম্বা সফরটিকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে দেশটিতে পৌঁছেছে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ টেস্ট দল। সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন নতুন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিদায়ের দীর্ঘদিন পর নতুন প্রধান কোচের অধীনে এটিই হতে যাচ্ছে টাইগারদের প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফর। আফগানিস্তান সিরিজের ব্যর্থতা ভুলে নতুন ফরম্যাটে নতুন শুরুর অপেক্ষায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় মেয়াদে অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর উইন্ডিজ সফরটিই হতে যাচ্ছে সময়ের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের অধীনে টাইগারদের প্রথম সফর। ২০০৯ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশকে সাদা পোশাকের লড়াইয়ে মোট ৯ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে মাত্র ১ জয় পাওয়া সাকিবের সামনে তাই অধিনায়কত্বের খাতা নতুন করে লেখার হাতছানি।

লাল বলের দু’দিনের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের পর ৪ জুলাই দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এরপর একই মাসের ১২ তারিখে সিরিজ নির্ধারণী শেষ টেস্টে স্বাগতিকদের বিপক্ষে জ্যামাইকায় লড়বে সাকিব-রিয়াদরা। টেস্ট সিরিজ শেষে ১৯ জুলাই একমাত্র ৫০ ওভারের প্রস্তুতি ম্যাচে লড়বে সফরকারীরা। এরপর ২২, ২৫ ও ২৮ জুলাই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে লড়বে দু’দল।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শেষে ৩১ জুলাই, ৪ আগস্ট ও ৫ আগস্ট প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের লড়ার মধ্য দিয়ে শেষ হবে টাইগারদের এবারের উইন্ডিজ সফর।

প্রস্তুতি ম্যাচের উইন্ডিজ দলঃ শামার ব্রুকস (অধিনায়ক), জন ক্যাম্পবেল, ত্যাগনারায়ণ চন্দরপল, জামার হ্যামিলটন, শিমরন হেটমায়ার, আলজারি জোসেফ, কিওন হার্ডিং, শেন মোসেলে, গুদাকেশ মতি, রোমারিও শেফার্ড, ভিশল সিং ও ওডিন স্মিথ।

উইন্ডিজ সফরের বাংলাদেশ টেস্ট দলঃ সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন দাস, মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম রাব্বি, রুবেল হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, আবু জায়েদ রাহী, নাজমুল হোসেন শান্ত ও শফিউল ইসলাম।


আরও পড়ুনঃ তুষার-মোসাদ্দেকে প্রতিরোধের চেষ্টা বাংলাদেশের

Related Articles

টাইগারদের জয়ে টুইটার প্রতিক্রিয়া

“বলেছি হৃদয় উজাড় করে খেলতে, দেশের জন্য খেলতে”

রেকর্ড জুটিতে বাংলাদেশের দুইশো পার

তামিম-সাকিবের অর্ধশতকে লড়ছে বাংলাদেশ

প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট লিটন দাস