SCORE

সর্বশেষ

আফিফ-জাকিরে লড়ছে বাংলাদেশ

তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ চার দিনের ম্যাচে সফরকারী শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৮১ রানের মধ্যে প্রথম সারির পাঁচ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চাপের মধ্যে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

আফিফ-জাকিরে-লড়ছে-বাংলাদেশ-এ-দল

লাঞ্চ বিরতির পর দ্বিতীয় সেশনে ব্যাট করতে নেমে দলের বিপর্যয় এড়িয়ে দলকে লড়াইয়ে ফেরানোর মিশনে সাইফ হাসান ব্যর্থ হলে দলীয় ৭২ রানে চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের। এরপর অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন নিজেও সুবিধা করতে না পেরে ব্যক্তিগত ৩ রানে পুষ্পকুমারের বলে আউট হলে ৮১ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা।

Also Read - আইপিএল খেলে যাবেন ডি ভিলিয়ার্স

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯১ রান। ৩৭ রান নিয়ে জাকির হাসান ও ৭ রান নিয়ে ব্যাট করছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব।

এর আগে টস জিতে অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুনের আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্তের পর ক্রিজে এসে শুরুটা ভালো হয়নি স্বাগতিকদের। দলীয় ১৪ রানের সময় ব্যক্তিগত ৯ রানে আউট হন ওপেনার সাদমান ইসলাম। এরপর দলীয় ৩৭ রানে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে ২ চারে মাত্র ১৪ রান করে সাজঘরে ফিরেন সৌম্য সরকারও।

বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যানকে সরাসরি বোল্ড আউট করে স্বাগতিকদের প্রথম ইনিংসে চাপে ফেলেছেন লঙ্কান বোলার পুষ্পাকুমারা। চাপ থেকে বের হওয়ার আগে মাত ৫ বলের ব্যবধানে ১৪ রান করা মিজানুর রহমান জয়াসুরিয়ার ফাঁদে পড়লে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ।

৩৭ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা বাংলাদেশকে এরপর লড়াইয়ের স্বপ্ন দেখান সাইফ-জাকির জুটি। দলীয় স্কোরবোর্ডে আরও ১১ রান যোগ করে লাঞ্চ বিরতিতে যান তারা। বিরতি থেকে ফিরে প্রতিরোধ গড়ার সম্ভাবনা জাগালেও আবারও বাংলাদেশের ইনিংসে ছন্দপতন ঘটান জয়াসুরিয়া। তার বলে দলীয় ৭২ রানে থিরিমান্নের হাতে সাইফ তালুবন্দী হলে বিচ্ছিন্ন হয় দু’জনের মধ্যকার ৪৫ রানের চতুর্থ উইকেট জুটি।

এরপর ক্রিজে জাকিরের সাথে যোগ দেন অধিনায়ক মিঠুন। তবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনিও।

প্রসঙ্গত, ইঞ্জুরি কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর ‘এ’ দলের চার দিনের এই ম্যাচ দিয়ে আবারও মাঠে ফিরছেন জাতীয় দলের পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। মূলত উইন্ডিজ ক্রিকেট দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে ম্যাচ ফিটনেস ফিরে পাওয়ার লক্ষ্য থেকেই তাকে এই ম্যাচে খেলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্বাচকরা।

তৃতীয় ও শেষ চারদিনের এ ম্যাচের একাদশে নেই জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন, সাব্বির রহমান ও এনামুল হকরা। তাদের বিশ্রাম দিয়ে একাদশে জায়গা দেওয়া হয়েছে সাদমান ইসলাম, মিজানুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুনদের। একাদশে একাধিক পরিবর্তন আনার এই ম্যাচে খেলা হচ্ছে না তুষার ইমরানেরও। তার পরিবর্তে একাদশে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে তরুণ মুখ অনূর্ধ্ব ১৯ দলের অধিনায়ক সাইফ হাসানকে।


আরও পড়ুনঃ আইপিএল খেলে যাবেন ডি ভিলিয়ার্স

Related Articles

এ’দলের অধিনায়কের দায়িত্বে মুমিনুল, সৌম্য

‘থ্যাংক ইউ সিলেট!’

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে বৃষ্টির জয়

রান তাড়ায় সাবধানী শুরু সাইফ-জাকিরের

সিরিজ জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ২৪০ রান