SCORE

সর্বশেষ

বোলিংয়ে ফিরেছেন মুস্তাফিজ

ইনজুরির কারণে ক্রিকেট থেকে বেশ ক’দিন ধরে দূরে রয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তবে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় থাকা ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত এই ক্রিকেটার এখন অনেকটাই সুস্থ।

বোলিংয়ে-ফিরলেন-মুস্তাফিজ

আর সেই সুস্থতার ধারাবাহিকতায় এবার বোলিংও শুরু করেছেন মুস্তাফিজ। রোববার (১ জুলাই) মিরপুর একাডেমি মাঠে চোট পাওয়ার পর প্রথমবারের মত বল হাতে নেন তিনি।

Also Read - জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে পাকিস্তানের দারুণ শুরু

অনেকদিন পর ২২ গজে ফিরেও পুরো রান-আপেই বল ছুঁড়েছেন মুস্তাফিজ। তবে পুরনো ছন্দ ফিরে পেতে লাগবে আরও কয়েকদিন। তার আগে ফিজিও-ট্রেনারদের পরামর্শ অনুযায়ী চালিয়ে যাবেন রুটিনমাফিক অনুশীলন।

আইপিএলে নিজের প্রথম আসরের পর এবার তৃতীয় আসর শেষেও চোট নিয়ে বাংলাদেশে ফিরেন দেশের ক্রিকেটের অন্যতম সেরা এই ফাস্ট বোলার। পায়ের অগ্রভাগের সেই চোট প্রথমে মারাত্মক বলে মনে হয় নি। তাই আফগানিস্তান সিরিজের স্কোয়াডে থেকে যথারীতি দলের সাথে চালিয়ে গেছেন অনুশীলন, যোগ দিয়েছিলেন প্রস্তুতি ম্যাচেও। তবে তিন ম্যাচের ঐ টি-২০ সিরিজকে সামনে রেখে দল সিরিজের ভেন্যু দেরাদুনে উড়াল দেওয়ার প্রাক্কালে জানা যায়, ঐ চোটের কারণেই খেলার জন্য ফিট নন মুস্তাফিজ।

এরপর তার পরিবর্তে দলে নেওয়া হয় সিলেটের পেসার আবুল হাসান রাজুকে। তবে রাজুও করতে পারেন নি প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স। মুস্তাফিজের অভাব তাই হারে হারে টের পেয়েছে দল।

এরপর উইন্ডিজ সফরের টেস্ট সিরিজে মুস্তাফিজের ফিরে আসার প্রত্যাশা করা হলেও চোট বাধা দিয়েছে সেখানেও। তাই তাকে ছাড়াই দল উড়াল দিয়েছে ক্যারিবীয় দ্বীপ অ্যান্টিগায়।

তবে চোট সারিয়ে শীঘ্রই পুরোদমে মাঠে ফেরার অপেক্ষায় থাকা মুস্তাফিজ অংশ নেবেন ওয়ানডে ও টি-২০ সিরিজে, এমনটাই প্রত্যাশা ক্রিকেট সংশ্লিষ্টদের। তার আগে তরুণ এই পেসার ঘাম ঝরাতে পারেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে আনঅফিসিয়াল টেস্টে, যেখানে তার সঙ্গী দেশের ক্রিকেটের প্রথম সারির ক্রিকেটাররা।


আরও পড়ুনঃ জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে পাকিস্তানের দারুণ শুরু

Related Articles

আধিপত্য বিস্তার করে বাংলাদেশের স্বস্তির জয়

ঘরোয়া প্রথম শ্রেণিতে না খেলে নয় টেস্টে অংশগ্রহণ

লুইসকে ফেরালেন মাশরাফি, বোলিংয়ে দুর্দান্ত শুরু টাইগারদের

সিমন্স-স্যামুয়েলসের রেকর্ড জুটি ভাঙলেন সাকিব-তামিম

সাকিব-তামিমে প্রতিরোধ বাংলাদেশের