অপ্রতিরোধ্য মুস্তাফিজ, নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন নিজেই

0
2397

আজ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে দারুণ বল করছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু চার ওভারের কোটা শেষ করতে পারলেন না। কারণ ইনিংসের দশ বল ও মুস্তাফিজের কোটার চার বাকি থাকতেই যে অলআউট হয়ে যায় ভিক্টোরিয়ান্স।

দুই দলেই আলোচনা মুস্তাফিজকে নিয়ে

৩.২ ওভার বোলিং করে প্রতিপক্ষের সর্বশেষ উইকেটটি তুলে মুস্তাফিজ। মাত্র একটি পেলেও অসাধারণ বল করেছেন তিনি। কিপটে বোলিংয়ে দিয়েছেন মাত্র ৮ রান। মুস্তাফিজের করা বিশটি বলের মধ্য ১৪টিই ছিলো ডট বল! ইকোনমিক রেট মাত্র ২.৪০।

Advertisment

মুস্তাফিজ যখন নিজের ওভারে বোলিংয়ে আসলেন তখন দারুণ ছন্দে ছিলেন তামিম ইকবাল। আগের ওভারগুলোতেই চার-ছয়ে বাউন্ডারি পার করেছেন বল। তার প্রথম বলটিতে এক রান নিয়ে তামিমকে স্ট্রাইকে দিয়েছিলেন বিজয়। কিন্তু সেই ওভারে আর বল খেলার সুযোগ পাননি বিজয়। কারণ পরের পাঁচটি বলই যে ডট ছিল। প্রথম ওভারে মাত্র ১ রান দিয়ে আজ দারুণ কিছু করারই আভাস দিয়েছিলেন ফিজ।

দ্বিতীয় ওভারে যখন বোলিংয়ে এসে দিয়েছেন মাত্র ৪ রান খরচ করেন ফিজ। মারমুখী ব্যাটসম্যান আফ্রিদিকে টানা তিনটি বল ডট দেন। ভিক্টোরিয়ান্সের পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি যখন কায়েস আহমেদের বলে চার-ছয়ের ফোয়ারা ছোটাচ্ছিল তখনই নিজের তৃতীয় ওভারে বোলিং করতে এসেই তাঁর লাগাম টেনে ধরেন কাটার মাস্টার। আবারো মুস্তাফিজের টানা চারটি বলে রান নিতে ব্যর্থ হন আফ্রিদি। ফলে চাপে পড়ে যায় ভিক্টোরিয়ান্স ও আফ্রিদি। টানা চারটি ডট বলের চাপ সামলাতে না পেরে পরের ওভারের প্রথম বলেই কামরুল ইসলামকে উড়িয়ে মারতে যেয়ে আউট হয়ে যান আফ্রিদি।

প্রথম তিন ওভারে মাত্র ৮ রান খরচ করে দারুণ বোলিং করতে থাকা মুস্তাফিজের উইকেট ক্ষুধাটা মিটে বিশতম বলে। কুমিল্লার অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান তার বলে ক্যাচ তুলে দেন। অধিনায়ক মিরাজ ক্যাচটি লুফে নিলে রাজশাহী কিংস জয়োৎসবে মেতে ওঠে।

মুস্তাফিজের বলে আজ কোনো চার বা ছয় মারতে পারেনি কোনো ব্যাটসম্যান। আক্ষেপ শুধু এতো ভালো বোলিংয়ের পরেই একাধিক উইকেট না পাওয়া।