আমি এখনও ক্রিকেট খেলতে ভালোবাসি, অবসর প্রসঙ্গে টেলর

0
963

এক যুগের বেশি সময় ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দাপটের সঙ্গে খেলে যাচ্ছেন নিউজিল্যান্ড ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান রস টেলর। গত মার্চে ৩৭ বছরে পা রাখা এই কিউই ব্যাটসম্যানের অবসর নিয়ে আলোচনা চলছে বেশ কয়েক বছর ধরেই। টেলর নিজেও অবসর নিয়ে ভাবছেন। তবে এখনও খেলাটা উপভোগ করছেন তিনি, খেলা চালিয়ে যেতে যায় আরও যতটা সম্ভব পারা যায়।


Advertisment

ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল জিতে শিরোপা নিয়ে দেশে ফিরেছেন রস টেলররা। করোনা মহামারীর কারণে দশ দিনের কোয়ারান্টাইনে আছেন সবাই। হোটলবন্দী অবস্থায় পরিবার ও বন্ধুদের সাথে দেখা করতে ব্যাকুল হয়ে আছেন টেলর। তবে সামনের দিকগুলোতে যে তাকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ভাবতে হবে সেটি অনুধাবন করতে পারছেন ঠিকই।

টেলর বলেন, “এখন আমার মনযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে শুধু একটাই ভাবনা, কিভাবে আগামী ১০ দিন (কোয়ারান্টাইন) যত দ্রুত সম্ভব পার করা যায়। কেবল পরিবার এবং বন্ধুদের দেখার জন্য অধীর অপেক্ষায় আছি। আমি নিশ্চিত আগামী সপ্তাহগুলোতে এই ধরনের (অবসব বিষয়ক আলোচনা) আলোচনা হবে, যেখানে আমরা সকলেই এবং নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটও থাকবে।”

২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা টেলরের ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা একটুও কমেনি। ক্যারিয়ারের গোধূলি বেলাতেও শিখতে চান। আন্তর্জাতিক কিংবা ঘরোয়া ক্রিকেট যেখানেই হোক না কেন, খেলাটা চালিয়ে যেতে চান তিনি। সেই সাথে টেলর মনে করেন এখনও ক্রিকেটকে অনেক কিছু দেওয়ার সামর্থ্য রাখেন তিনি।

এই প্রসঙ্গে টেলর বলেন, “আমি এখনও ক্রিকেট খেলতে ভালোবাসি, এখনও শিখতে চাই এবং উন্নতি করতে চাই। আমি মনে করি এটা একটা ভালো দিক। এই মুহুর্তে এসে আমি কেবল ক্রিকেট খেলে যেতে চাই, সেটা যেকোন পর্যায়েরই হোক না কেন।”

“আপনি যখন আমার বয়সে আসবেন, তখন আপনার বয়স নিয়ে কথা আসবেই। এটা এমন যে, এখন আমার পুরো ক্যারিয়ার নিয়েই ভাবতে হবে। আমার মনে হয়, যখন বয়স বেড়ে যায় তখন আক্রমণের জন্য সেটা সবচেয়ে সহজ লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু আমি এখনও ক্রিকেট খেলতে ভালোবাসি। আমি মনে করি, মাঠ ও মাঠের বাইরে ক্রিকেটকে এখনও আমার অনেক কিছু দেওয়ার আছে।” যোগ করেন টেলর।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রায় ১৫ বছর কাটিয়ে ফেলা টেলরের অর্জনও বেশ সমৃদ্ধ। টেস্ট ও ওয়ানডে ফরম্যাটে নিউজিল্যান্ড ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের মালিক তিনি। ১০৮ টেস্টে ৪৫.৮৪ গড়ে ৭৫৬৪ রান এবং ওয়ানডেতে ২৩৩টি ম্যাচ খেলে করেছেন ৮৫৭৬ রান। টেস্টে ১৯টি ও ওয়ানডেতে ২১টি সেঞ্চুরি মালিক তিনি।