আশরাফুলের বাবা আর নেই

বাংলাদেশের জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলের বাবা আব্দুল মতিন ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত ১ টা ১০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ash and dad

Advertisment

গত ১১ সেপ্টেম্বর হার্টের সমস্যার কারণে আশরাফুলের বাবাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো। এর আগে ২০০৬ সালে আব্দুল মতিনের হার্ট অপারেশন হয়। এই বছরের মে মাসে আবার হার্টে সমস্যা দেখা দেয়। পরে ইবনে সিনা হাসপাতালের চিকিৎসকের পরামর্শে হার্টে ব্লক রিং পরানো হয়েছিলো। কিন্তু সম্প্রতি অবস্থা আরো খারাপ হলে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। রবিবার সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে তার হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। এরপর শক দিয়ে হৃদক্রিয়া পুনরায় চালু রাখা হয়। তবে রাত ১ টা ১০ মিনিটে দায়িত্ববান চিকিৎসকরা আব্দুল মতিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

মোহাম্মদ আশরাফুল ক্রিকেটার হবার পিছনে তাঁর বাবা আব্দুল মতিনের অবদান অনেক বড় অংশে। ছোট থেকেই সব রকমের বাধা-বিপত্তিকে অতিক্রম করে ছেলেকে উৎসাহ দিয়ে গেছেন। পরে ছেলে হয়েছেন ক্রিকেটার, খেলেছেন জাতীয় দলে, ছিলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক কিন্তু ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে ২০১৩ সালের মে মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন আশরাফুল। ৫ বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করা হয় তাকে। এই কঠিন সময়ে ছেলেকে মানসিকভাবে সাহায্য করে গেছেন আব্দুল মতিন। সম্প্রতি জাতীয় লিগে খেলার সার্টিফিকেট পেয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। তবে জাতীয় দলে সুযোগ পেতে আরো দুই বছর অপেক্ষা করতে হবে তাকে। সামনে আশরাফুল আবার জাতীয় দলে ফিরতে পারবেন কিনা তা সময়ই বলে দিবে কিন্তু আশরাফুলের বাবার অনেক ইচ্ছে ছিলো ছেলেকে আবার বাংলাদেশের হয়ে খেলতে দেখবেন! সেটি আর হলো না।

আব্দুল মতিনকে রাতেই ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানেই তাকে দাফন করা হবে।