ইমরুল-ওয়ালটনের ব্যাটে চট্টগ্রামের সহজ জয়

0
660

আজ শেষ হচ্ছে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ঢাকা (প্রথম) পর্বের খেলা। ২ দিন বিরতি দিয়ে আগামী ১৭ ডিসেম্বর শুরু চট্টগ্রাম পর্ব। নিজেদের ঘরের মাঠে নামার আগে জয়ে ফিরল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। রংপুর রেঞ্জার্সকে তারা হারিয়েছে ৬ উইকেটের ব্যবধানে। যেখানে চ্যাডউইক ওয়ালটন আর ইমরুল কায়েসে ম্লান নাঈম শেখের ব্যাটিং।

অধিনায়কত্ব নিয়ে মুখ খুললেন ইমরুল

Advertisment

বিপিএলের সপ্তম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিলো চট্টগ্রাম। তবে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ৮ উইকেটে হারে খুলনার কাছে। চট্টগ্রাম পর্ব শুরুর আগে আবার জয়ের ধারায় ফিরলো দলটি। আজ (শনিবার) দিনের শুরুর ম্যাচে রংপুরের দেওয়া ১৫৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামে বন্দরনগরীর দলটি। ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে এসে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন চট্টগ্রামের দুই ব্যাটসম্যান আভিস্কা ফার্নান্দো ও ওয়ালটন।

উদ্বোধনী জুটিতে দুজন যোগ করেন ৬৮ রান। ২৩ বলে ৩৭ রানে থাকা আভিস্কাকে ফিরিয়ে এই পার্টনারশিপ ভাঙ্গেন গ্রেগরি। তবে ইমরুলকে নিয়ে ব্যাটিং ঝড় অব্যাহত রাখেন ওয়ালট। ৩২ বলে নিজের ফিফটি তুলে নিয়ে সমান ৫০ রানে নবীর শিকারে পরিণত হন তিনি। এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৫ রান করে আউট হওয়ার পর জয়ের বাকি আনুষ্ঠানিকতা সারেন ইমরুল। ৬ উইকেটের বিশাল জয় পায় চট্টগ্রাম। যেখানে ইমরুল নিজে অপরাজিত থাকেন ৪৩ রানে

এর আগে টসে হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নামে রংপুর। তবে উদ্বোধনী জুটিতে সুবিধা করতে পারেনি তারা, ৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন শেহজাদ। এরপর তিনে ব্যাট করতে আসেন টম অ্যাবল। তিনিও আউট হয়েছেন ১০ রান করে। এই দুই ব্যাটসম্যানকে হারানোর মাঝে নিজ ব্যাটে ঝড় তোলেন আরেক ওপেনার নাইম। ৬টা চার ও ৩টা ছয়ের মারে মাত্র ২৬ বলে তুলে নেন ব্যক্তিগত অর্ধশতকটা।

তবে এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান একপ্রান্ত আগলে রাখলেও অন্যপ্রান্তে তাকে সাপোর্ট দিতে পারেননি রংপুরের ব্যাটসম্যানরা। মাঝে অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী করেন ২১ রান। শেষদিকে রুবেল হোসেনকে স্কুপ করতে যেয়ে মেহেদী হাসানের হাতে ধরা পড়েন নাইম। আউট হওয়ার আগে খেলে যান ৫৪ বলে ৭৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস।

ফলে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রানে থামে রংপুরের ইনিংস। চট্টগ্রামের হয়ে কেসরিক উইলিয়ামস ও রায়ান বার্ল নেন ২টি করে উইকেট। এছাড়া মাহমুদউল্লাহ এবং রুবেল নেন একটা করে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

রংপুর রেঞ্জার্স: ১৫৭/৮ (২০ ওভার)
নাইম ৭৮, নবী ২১, তাসকিন ১১*; উইলিয়ামস ২/৩৫, বার্ল ২/৩০, মাহমুদউল্লাহ ১/১৭।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স: ১৫৮/৪ (১৮.২ ওভার) ওয়ালটন ৫০, আভিস্কা ৩৭, ইমরুল ৪৩*; গ্রেগরি ২/২৭, অ্যাবল ১/১১।

ফলাফল: চট্টগ্রাম ৬ উইকেটে জয়ী।