Score

উইন্ডিজ সিরিজে খেলবেন মাশরাফি?

স্বাগতিক বাংলাদেশ ও সফরকারী উইন্ডিজ ক্রিকেট দলের মধ্যকার মাসব্যাপী দুই টেস্ট, তিন ওয়ানডে ও দুই টি-টোয়েন্টির পূর্ণাঙ্গ সিরিজ শুরু হতে যাচ্ছে আগামী সপ্তাহ থেকে। টেস্ট দিয়ে সিরিজ শুরুর পর দু’দলের মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজটি মাঠে গড়াবে আসছে ডিসেম্বর মাসের ৯, ১১ ও ১৪ তারিখে। যার ফলে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের সিরিজটিতে খেলা না খেলা নিয়ে ঘুরপাক খাচ্ছে কিছু প্রশ্ন।

“মাশরাফি প্রধানমন্ত্রীর অনেক কাছের মানুষ”

যেহেতু সংসদ নির্বাচন করতে মনোনয়ন কিনেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা আর সিরিজের কিছুদিন পরই অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন তাই শেষ পর্যন্ত সবুজ সংকেত পেলে নির্বাচনের মধ্যে তিনি উইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন নাকি খেলবেন না? এ প্রশ্ন জাগছে সবারই মনে।

বৃহস্পতিবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট জয়ের পর গণমাধ্যকের মুখোমুখি হলে একই প্রশ্ন করা হয় বিসিবি সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপনকে। এসময় সরাসরি নির্দিষ্ট কোনো উত্তর না দিয়ে তিনি বলেন,

Also Read - গ্রাউন্ডসম্যানদের ধন্যবাদ মাহমুদউল্লাহর

‘কঠিন প্রশ্ন। ওর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার একটা তারিখ আছে। কবে পূরণ করবে, ওখানে ওর কর্মসূচি কী, ঠিক জানি না। আজ ওর সঙ্গে দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তখন বিস্তারিত কথা হবে। যদি সুযোগ থাকে সে অবশ্যই খেলবে। একদিনের জন্যও যদি সময় থাকে সে অবশ্যই খেলবে। খেলাটা ওর কাছে সব সময়ই প্রাধান্য পাবে।’

গণমাধ্যমে কথা বলার সময় নাজমুল হাসান পাপন।
ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি না টেনে আরও একটি ক্যারিয়ারের দিকে ঝুঁকেছেন বাংলাদেশের অন্যতম সফল অধিনায়ক মাশরাফি। তার এ সিদ্ধান্তকে কীভাবে দেখছেন বোর্ড সভাপতি? এর উত্তরে তিনি মাশরাফির সিদ্ধান্তকে সমর্থন দিয়ে এসময় আরও বলেন,

‘ও কত দিন খেলবে ঠিক নিশ্চিত না। ওর যে শারীরিক অবস্থা , এখনো যে খেলছে এটাই তো অনেক। সে খেলোয়াড় হিসেবে খেলে না, আমাদের দলে অধিনায়ক হিসেবে খেলে। ওর অধিনায়কত্ব আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। ওর মতো অধিনায়ক খুঁজে পাচ্ছি না, পাব বলেও মনে হয় না। সেদিক দিয়ে চিন্তা করলে বড়জোর বিশ্বকাপের পর হয়তো অবসরে যাবে। সেটি যদি হয় মাত্র কয়েক মাসের ব্যাপার। এটা হলে এর চেয়ে ভালো প্রস্থান আর কিছু হতে পারে না। কয়েক মাস পর অবসর নিলে সে এই সাড়ে চার বছর আর করবেটা কী? আরেকটি ক্ষেত্রে সে থাকল, যেখান সে ক্রীড়াক্ষেত্রে জোরালো অবস্থান রাখতে পারবে বলেই আমার বিশ্বাস।’
 


এক নজরে বাংলাদেশ ও উইন্ডিজের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক লড়াইয়ের পূর্ণাঙ্গ সূচি-

তারিখ                  ম্যাচ                   ভেন্যু
১৮-১৯ নভেম্বর   দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ   এমএ আজিজ স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম।
২২-২৬ নভেম্বর    প্রথম টেস্ট               জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম।
৩০-৪ ডিসেম্বর     দ্বিতীয় টেস্ট             শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢা…

৬ ডিসেম্বর        একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচ     ফতুল্লা/বিকেএসপি।
৯ ডিসেম্বর        প্রথম একদিনের ম্যাচ    শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা।
১১ ডিসেম্বর      দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচ   শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা।

১৪ ডিসেম্বর     তৃতীয় একদিনের ম্যাচ     সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সিলেট।

১৭ ডিসেম্বর      প্রথম টি-টোয়েন্টি         সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, সিলেট।
২০ ডিসেম্বর     দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি        শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা।
২২ ডিসেম্বর     তৃতীয় টি-টোয়েন্টি         শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা।


আরও পড়ুনঃ তামিম-মুশফিকদের বিসিবির ‘বিশেষ’ উপহার


Related Articles

আগামী এশিয়া কাপের আয়োজক পাকিস্তান!

পাকিস্তানে জাতীয় দল পাঠাতে চায় না বিসিবি

ঢাকা টেস্ট ভুলতে পারবেন না পাপন!

ইমার্জিং কাপ: পাকিস্তানে বাংলাদেশের সাথে যাবে নিরাপত্তা দলও

ক্রিকেট অঙ্গনের যারা এবার জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন