Scores

‘আগামী ৫ বছরের জন্য প্রস্তুত হচ্ছি’

একদিনের ক্রিকেটে সাব্বির রহমানের অভিষেকটা দুর্দান্ত হয়েছিল কিন্তু সেই ধারা আর ধরে রাখতে পারেননি তিনি। ফর্মহীনতার কারণে দল থেকে বাদও পড়েছেন। বিডিক্রিকটাইমের সরাসরি আড্ডায় সাব্বির জানান নিজেকে গুছিয়ে নিয়ে আবারও লম্বা সময়ের জন্য দলে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

সাব্বিরের উদযাপন দেখে নাখোশ মাশরাফি

২০১৫ বিশ্বকাপের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে সাব্বিরের অভিষেক হয়। সেই ম্যাচে ২৫ বলে ৪৪ রানের এক ইনিংস খেলে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তী পাঁচ বছরে নামের পাশে লেখাতে পেরেছেন মাত্র একটি শতক। অভিষেকের কিছু দিন পরেই বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। সেই সুযোগটা ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছিলেন বলে বিশ্বাস করেন সাব্বির।

Also Read - বাংলাদেশের বিপক্ষে হেলমেট পরে কিপিং করতে চেয়েছিলেন কোহলি


২০১৫ বিশ্বকাপের নিজের পারফর্ম নিয়ে সাব্বির বলেন, ‘আসলে দায়িত্ব না, আমার যে ভূমিকাটা ছিল সেটা আমি ভালোই করেছিলাম। সুযোগ যা পেয়েছিলাম, বল অনুযায়ী ভালো খেলার চেষ্টা করেছিলাম। আমার মনে হয়, একটা খেলোয়াড়ের পরবর্তী ৫-১০ বছর খেলার জন্য অভিষেক ম্যাচটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। ওই ম্যাচে আমি ২৫ বলে ৪৪ করেছিলাম। আমি নার্ভাস ছিলাম। মুশফিক ভাই আমার সাথে মাঠে ছিলেন। মাশরাফি ভাইও ছিল। দুইজনেই অনেক সমর্থন করেছিলেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘খেলোয়াড় মানুষ মাঝেমাঝে ভুল হতেই পারে। দেখুন, কখনো ব্যর্থ হবে আবার কখনো সফল হবে, জিতবে। আমার কাছে মনে হয় আমি শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিছু ম্যাচে পেরেছি, দুর্ভাগ্যবশত কিছু ম্যাচে পারিনি; এটাই আসলে ক্রিকেট। আমি সবসময়ই ১০০ তে ১০০ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। বাকিটা ভাগ্যের ওপর।’

বিশ্বকাপ পরেই পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয় করে বাংলাদেশ। সবগুলো সিরিজেই দলে ছিলেন সাব্বির। পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে খুব বেশি আক্ষেপ তার নেই।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে শতকটা আমাকে অনেক আত্মবিশ্বাস এনে দিয়েছিল। তারপর যতটুকু সুযোগ পেয়েছিলাম ভালো করেছিলাম। দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে বেশি সুযোগ পাইনি কারণ আমাদের প্রথমে যারা ব্যাটিং করেছিলেন উনারা খেলে ফেলেছিলেন। শেষে ১০-১২ বলের জন্য আমাদের যেতে হয়েছিল। ওই সময় নেমেই প্রথম বলে ছয় মারাটা কঠিন হয়ে যায়। থিতু হয়ে গেলে মারাটা সহজ হয়।’

ভারতের বিপক্ষে লম্বা ইনিংস খেলার সুযোগ হাতছাড়া হওয়া নিয়ে আফসোস করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান, ‘ভারতের সাথেও আমি ভালো ইনিংস শুরু করেছিলাম। কিন্তু ইনিংসগুলো বড় করতে পারলে ভালো হতো। যেটা ৪১ রান করেছিলাম ওটা শতক করার বা বড় রান করার সুযোগ ছিল কিন্তু মিস করে ফেলেছিলাম। তখন তরুণ ছিলাম, আবেগ বেশি ছিল; সব বলেই মারার চেষ্টা করতাম। সব বলেই মারাটা আমার কাছে মুখ্য বিষয় ছিল।’

২৮ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান আগের ভুলগুলো শুধরে নিজেকে প্রস্তুত করছেন বলে জানান, ‘কিন্তু এখন অনেক ম্যাচিউর। আস্তে আস্তে আরও শিখছি। ভিডিও দেখছি আগে কী কী ভুল করেছিলাম। ওগুলো সংশোধন করে আগামী পাঁচ বছরের জন্য প্রস্তুত হচ্ছি। আবার যেন ফিরে এসে নিজের দায়িত্বটা ঠিকভাবে পালন করতে পারি।’

সাব্বির রহমানের পুরো সাক্ষাৎকারটি দেখুন এখানে :

Related Articles

জিম্বাবুয়ের পাকিস্তান সফরসূচি চূড়ান্ত

বোলিংয়ে নতুন অস্ত্র যোগ করছেন রশিদ

৬টি কেক কেটে যুবরাজের ‘৬ ছক্কা’র বর্ষপূর্তি উদযাপন

জম্মু-কাশ্মিরে দশটি স্কুল ও ক্রিকেট একাডেমি বানাবেন রায়না

সীমান্ত খুললেও দক্ষিণ আফ্রিকায় ফিরছে না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট