Scores

ঐতিহাসিক ম্যাচে পেরিদের মুখোমুখি জাহানারা-সালমারা

অস্ট্রেলিয়ায় চলছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বাংলাদেশ নারী দল নিজেদের প্রথম ম্যাচে আশা জাগালেও শেষ পর্যন্ত জিততে পারেনি। বৃহস্পতিবার নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঐতিহাসিক এক ম্যাচে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী দল।


নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ নারী দল বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হবে নারী ক্রিকেটের সবচাইতে শক্তিশালী দল অস্ট্রেলিয়া নারী ক্রিকেট দলের। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে এর আগে কখনো কোনো ফরম্যাটেই অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়নি বাংলাদেশ নারী দল।

বাংলাদেশ দলের সাথে এশিয়ার বাইরের বড় নারী দলগুলো সাধারণত কোন সিরিজ খেলেনা। তাই বিশ্বকাপে দেখা না হলে তাদের বিপক্ষে খেলার সুযোগ হয় না। কাকতালীয়ভাবে এর আগে তিনবার নারী টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেললেও একবারও অস্ট্রেলিয়ার সাথে একই গ্রুপে খেলা পরেনি সালমা, জাহানারাদের। সেই সুযোগ অবশেষে আসলো এবং তাও খোদ অস্ট্রেলিয়ার ঘরের মাঠেই অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরাতে।

Also Read - সৌম্যর বিয়েতে অতিথিদের জন্য থাকছে যেসব খাবার


ক্যানবেরার মানুকা ওভালে বাংলাদেশ সময় দুপুরে দুইটায় বর্তমান টি-টোয়েন্টি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ নারী দল। অস্ট্রেলিয়া নারী দল পুরো তারকায় ঠাসা। মেগ লেনিং, এলিস পেরি, অ্যালিসা হিলি সকলেই যার যার দেশে তো বটেই বিশ্ব ক্রিকেটেও তারকা। তাদের সুযোগ সুবিধা ও পরিচিতির ধারে কাছেও নেই বাংলাদেশ নারী দল। তবে এই বাংলাদেশ দলের চেষ্টায় কোন কমতি নেই সীমিত সুযোগের পরও।

বিশ্বকাপের আগে ব্যাটসম্যান জ্যোতি বলেছিলেন তাদের স্বপ্ন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বিশ্বকাপ খেলা। সেই স্বপ্ন সত্যি হয়েছে ভারতের বিপক্ষে খেলায়। বৃহস্পতিবার তা আরো ভালোভাবে বাস্তবায়ন হবে স্বাগতিকদের বিপক্ষে।

প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মোটেও খারাপ করেনি বাংলাদেশি নারীরা। প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে খেলতে নেমে ভারতের বিপক্ষে ১২৪ রান করে বাংলাদেশ দল। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াও কিছুদিন আগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নিজেদের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে এত রান করতে পারেনি। শেফালির মতো একজন হার্ড হিটিং ব্যাটসম্যান না থাকাতেই পিছিয়ে যায় বাংলাদেশ। তবে মাঠে শুরু থেকেই যথেষ্ট উৎসাহী দেখা গিয়েছে বাংলাদেশ দলকে।

শক্তির বিচারে হয়তো বৃহস্পতিবারের খেলায় ফেভারিট হিসেবে কেউ বাংলাদেশের নামই আনবেনা। তবে বাংলাদেশ দল নিশ্চিত চাইবে তাদের সামর্থ্যর সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করার যাতে এটা প্রমাণিত হয় বিশ্বের সবচাইতে শক্তিশালী দলের বিপক্ষেও বাংলাদেশের মেয়েরা লড়াই করতে পারবে। এত বড় দলের বিপক্ষে বিশ্বকাপে তাদের মাঠে খেলার সুযোগ সব সময় আসবেনা বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের। এখন দেখার অপেক্ষা কীভাবে এই বড় সুযোগে তারা নিজেদের মেলে ধরেন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

পেরির কান্নায় কাঁদলো ক্রিকেট বিশ্ব

ভারতকে ‘১৪২’ এ আটকে দিলো বাংলাদেশ

বিশ্বকাপে সালমাদের প্রাপ্য সম্মান ও সমর্থন দিবেন তো ভক্তরা?

ঐতিহাসিক আসরের বাকি মাত্র ১০০ দিন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কঠিন প্রতিপক্ষের সামনে বাংলাদেশ