Scores

কোহলিকে ‘বলদ’ বলল ক্রিকইনফো, ভারতীয় ভক্তদের বিক্ষোভে উত্তাল টুইটার

নিঃসন্দেহে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কোন রেকর্ডটা নেই তার গত কয়েক বছরের? রানের পর রান, শতকের পর শতক যেন করেই যাচ্ছেন কোহলি। তবে কোহলির এত রেকর্ডের পরও তার ক্যারিয়ারে যদি কোন ব্যর্থতা থেকে থাকে তাহলে সবার আগে আসবে ২০১৪ সালের ইংল্যান্ড সফরের কথা। ২০১৪ সালের ইংল্যান্ড সফরে ভয়াবহ বাজেভাবে ব্যর্থ হয়েছিলেন কোহলি। জেমস অ্যান্ডারসনের বোলিং যেন বুঝতেই পারছিলেন না।

পরবর্তীতে ২০১৮ সালের সফরে নিজের ভুল শুধরে এক নতুন কোহলি রূপে ফিরে আসেন তিনি। ভারত হারলেও ব্যাট হাতে উজ্জ্বল ছিলেন পুরো সিরিজ জুড়েই কোহলি। তবে এইবার কোহলির ২০১৪ সালের ব্যর্থতা স্মরণ করিয়ে দিল ক্রিকইনফো ঘটনাক্রমে।

Also Read - দর্শক না থাকায় বল দেখতে সমস্যা হবে ক্রিকেটারদের!


চলমান ইংল্যান্ড ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজে অসাধারণ বোলিং করছেন জেমস অ্যান্ডারসন । তার প্রশংসা করতে গিয়ে ক্রিকইনফো লিখে “অ্যান্ডারসনের বোলিংয়ে কোহলিকেও মাগ ( বলদ / ইডিয়ট) মনে হতে পারে, ব্রডের বোলিং আপনাকে দ্রুত প্যাভিলিয়নে পাঠাতে পারে, সদা হাসিখুশি থাকা আর্চারও আপনার বিপদের কারন হতে পারে, ওকসকে সাধারণ মনে হলেও সে তার সুইং দিয়ে আপনাকে পরাস্ত করতে পারে”।

মূলত ইংল্যান্ডের বোলিংয়ের প্রশংসা করতে গিয়েই ক্রিকইনফোর এই টুইট। তবে তাদের টুইটের একটি শব্দ পছন্দ হয়নি ভারতের ভক্তদের। কোহলিকে “মাগ ” বলা পছন্দ হয়নি তাদের। এখানে মাগ শব্দটির সাধারণত ইংল্যান্ডে ব্যবহৃত হয় কাউকে সহজেই বোকা বানানো যায় এমন কাউকে বোঝাতে বা বলদ / ইডিয়ট এই অর্থ বোঝাতে। ইংল্যান্ডের বোলিংয়ের প্রশংসা করতে গিয়ে কোহলিকে এই শব্দে পরিচয় করিয়ে দেওয়া মেনে নিতে পারেনি ভারতীয় ভক্তরা। তাই তার প্রতিবাদে সকাল থেকেই সরব ভারতীয় ভক্তরা।

কেউ কেউ এই টুইট ডিলিট করতে বলছেন, কেউ কেউ কোহলির সেই সিরিজের পরের রেকর্ড দেখাচ্ছেন, কেউবা নানান ভাবে ধুয়ে দিচ্ছেন ক্রিকইনফোকে।

দেখে নিন কোহলি ভক্তদের কিছু টুইট-

Related Articles

ক্রিকইনফোর বিশ্বসেরা একাদশেও নেতৃত্বে আকবর

ক্রিকইনফোর বিশ্বকাপ একাদশে নেই বর্তমানদের কেউ!

ক্রিকইনফোর সাড়া না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ ভারতীয় ভক্তরা

ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা তালিকায় তিন বাংলাদেশি

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিয়েছেন সাকিব!