খুলনার দাপুটে বোলিং; সিলেটের দেড়শ ছাড়ানো ইনিংস

0
477

৬ ম্যাচে মোটে ১ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে অবস্থান সিলেট থান্ডারের। একমাত্র জয়টি এসেছিল খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে। নিজেদের ফিরে পাওয়ার মিশনে আজ (শনিবার) আবার খুলনার বিপক্ষে মাঠে নেমেছে দলটি। যেখানে আগে ব্যাট করে ১৫৭ রানের সংগ্রহ দাঁড় করেছে সিলেট থান্ডার।

 

Advertisment

খুলনা টাইগার্সের উইকেট উদযাপন

এদিন ম্যাচের শুরুতে টসে জিতে সিলেটকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান খুলনার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। সিলেটের হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে আসেন দুই ব্যাটসম্যান আন্দ্রে ফ্লেচার ও রুবেল মিয়া।

ফ্লেচার একপ্রান্ত থেকে ঝড় তুললেও অপর প্রান্তে টেস্টের মেজাজে ব্যাটিং করতে থাকেন রুবেল। উদ্বোধনী জুটিতে দুজন যোগ করেন ৬২ রান। যেখানে ফ্লেচারের সংগ্রহ ২৪ বলে ৩৭ রান।

ফ্লেচার যখন সাজঘরের পথে, তখন ৩১ বলে ১৭ রান নিয়ে ব্যাট করছেন রুবেল। তবে সঙ্গীকে হারিয়ে খানিক জ্বলে উঠলেন তিনি। নতুন ব্যাটসম্যান জনসন চার্লেসকে সাথে নিয়ে দলীয় স্কোর বড় করার পথে ছুটেন রুবেল। কিন্তু চার্লস সঙ্গ দিতে পারেননি বেশিক্ষণ, ১২ বল থেকে ১৭ রান করে রবি ফ্রাইলিঙ্কের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। দুই রান পরেই অবশ্য ৪৪ বলে ৩৯ রান করে শহিদুলের বলে আউট হন রুবেল।

একই ওভারে মোহাম্মদ মিঠুন কোন রান না করে ফিরে গেলে মাত্র ৩ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে সিলেট। এরপর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন ও রাদারফোর্ড। শেষদিকে দুজনের ৫৩ রানের পার্টনারশিপে ১৫৭ রানের সংগ্রহ পায় সিলেট থান্ডার। রাদারফোর্ড ২০ বলে ২৬ ও মোসাদ্দেক অপরাজিত থাকেন ২৩ রানে।

খুলনা টাইগার্সের হয়ে শহিদুল ও ফ্রাইলিঙ্ক উভয়ই নেন ২টি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট থান্ডার: ১৫৭/৪ (২০ ওভার)
রুবেল ৩৯, ফ্লেচার ৩৭, রাদারফোর্ড ২৬*; ফ্রাইলিঙ্ক ২/৫৮, শহিদুল ২/২৬।