খেলা শুরুর পর উইকেটের ভিন্নতা বুঝতে পেরেছে বাংলাদেশ

শারজার উইকেট স্পিন বান্ধব হয়, রান কম আসে- এমনই ধারণা ছিল সবার। এমনকি শারজার উইকেট দেখে তিন স্পিনারে একাদশ সাজানো বাংলাদেশ দলই এমন ধারণাই রেখেছিল। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে নামার পর টাইগাররা বুঝতে পারে, এই উইকেট প্রত্যাশার মত আচরণ করছে না।

মাঠে নেমে উইকেটের ভিন্নতা বুঝতে পেরেছে বাংলাদেশ 
উইকেট চিনতে যেন এখনও অপটু বাংলাদেশ। ফাইল ছবি

আইপিএল কিংবা বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচগুলোর চেয়ে রবিবার (২৪ অক্টোবর) ভিন্ন ছিল শারজার উইকেট। এদিন রান এসেছে সহজেই, যার কারণে দুই দলই উইকেটকে ব্যাটিং বান্ধব হিসেবে মূল্যায়ন করেছে। বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১৭১ রান জড়ো করেও জিততে পারেনি ম্যাচ।

Advertisment

শ্রীলঙ্কার একাদশে মাত্র এক স্পিনার ও চার পেসার দেখে যার ভ্রূ কুঁচকেছিলেন তারা তাই ব্যাপারটি ধরতে পেরেছেন ম্যাচের পর। অবশ্য ম্যাচ শেষে মুশফিকুর রহিম জানালেন, বাংলাদেশ দলও উইকেটের আচরণ বুঝতে পেরেছে খেলা শুরু করে।

মুশফিক বলেন, ‘আমার মনে হয়, পেশাদার দল হিসেবে আপনাকে পরিস্থিতি অনুযায়ী দ্রুত মানিয়ে নিতে হবে। আইপিএল ও বিশ্বকাপের সর্বশেষ ম্যাচগুলো দেখে আমরা জেনেছি গড় রান কেমন হয়। তবে আমাদের ওপেনাররা ২-৩ ওভার খেলার পর আমরা ফিডব্যাক পেয়েছি- আজকের উইকেট অন্য দিনের চেয়ে অনেক ভালো। তাহলে আমাদের অবশ্যই ১৬০ রানের বেশি করতে হবে। যদি আরও বেশি করতে পারি তাহলে ভালো হয়। আমাদের নিয়মিত যোগাযোগ ছিল।’

মাঠে নেমে উইকেটের ভিন্নতা বুঝতে পেরেছে বাংলাদেশ 
সংবাদ সম্মেলনে মুশফিকুর রহিম।

শ্রীলঙ্কার একাদশে পেসারদের আধিক্যর বিষয়ে মুশফিকের যুক্তি, স্পিনারদের গুরুত্ব দিয়েও ভালো করার সুযোগ ও সম্ভাবনা ছিল বাংলাদেশের।

তিনি বলেন, ‘বোলিং অ্যাটাক যার যার স্ট্রেন্থের ব্যাপার। নাসুম কিন্তু প্রথম ওভারে একটি উইকেট নিয়েছিল, দ্বিতীয় ওভারে চার্জ করে বাউন্ডারি পেয়েছে। আপনি পাঁচটা স্পিনার খেলান বা পাঁচটা পেস বোলার, ঠিকমত কাজে লাগাতে না পারলে এটা কোনো কাজে আসে না। বোলাররা সুযোগ সৃষ্টি করেছিল, দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা কাজে লাগাতে পারিনি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।