চন্ডিকাকেই উপযুক্ত কোচ ভাবেন সুজন

বাংলাদেশের কোচ হিসেবে চন্ডিকা  হাথুরুসিংহেকেই উপযুক্ত মনে করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও সাবেক ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদ সুজন। বিডিক্রিকটাইমকে দেওয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে সুজন জানান চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা।  

চন্ডিকাকেই উপযুক্ত কোচ ভাবেন সুজন
চন্ডিকাকেই উপযুক্ত কোচ ভাবেন সুজন


হাথুরুসিংহের ফোকাস এবং লক্ষ্য ঠিক জায়গায় ছিল বলে মনে করেন সুজন। চন্ডিকা দিনের পুরোটা সময় ক্রিকেট নিয়েই ভাবতেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

Advertisment

তিনি বলেন, “আমি তো চন্ডিকার  সাথে সাড়ে চার বছর কাজ করেছি। একটা মানুষের ভুলত্রুটি পরের ব্যাপার। তার ফোকাসটা কী সেটা খুব খুব গুরত্বপূর্ণ। চান্দিকাকে আমি কাছ থেকে যত দেখেছি, ওভাবে মিডিয়ার সামনে বলা হয়নি বা প্রশ্নও করা হয়নি আমাকে তাই উত্তর দেইনি, সে একজন ফুল টাইম ক্রিকেট কোচ।”  

“আমি অনেক কোচকে দেখেছি এর মধ্যে। আমার চান্দিকার মতো সকাল সাতটায় ঘুম ভাঙত। রাত বারোটার সময় বা যখনই ঘুমাতে যেতাম- ঐ পর্যন্ত সে ক্রিকেট কোচ।”

চন্ডিকার সঙ্গে মনোমালিন্যও হয়েছিল খালেদ মাহমুদ সুজনের। কিন্তু এক সময় তা দূর হয়। সুজন মনে করেন হাথুরুসিংহে একজন দূরদর্শী কোচ। তার চিন্তা-ভাবনাও ছিল শক্তিশালী।

সুজন বলেন, “প্রথম ট্যুরে তার সাথে আমার তর্ক হয়েছে, ঝগড়া হয়েছে। কিন্তু দুইজন দুইজনকে একটা সময় বুঝতে পেরেছি যেহেতু দুইজনই আমরা বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়নের জন্য চিন্তা করতাম। আমি মনে করি চান্দিকা আমাদের জন্য উপযুক্ত কোচ।”  

“এই উপহামদেশের মানুষ যার চিন্তা অনেক শক্তিশালী ছিল, পরিকল্পনা অনেক শক্তিশালী ছিল। অনেক সাহসী কোচ ছিলেন। যে কোচ এসে বলেন আমি বিশ্বকাপে গেলে আমাকে বোনাস দিবা- বাংলাদেশ টিমে যখন কোনো কোচ এসে এমন কথা বলে তখন লোকে বলবে বেটা, তুই পাগল নাকি? কিন্তু তিনি পাগল ছিলেন না।”